ঢাকা, ১৭ মে ২০২২, মঙ্গলবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

প্রথম পাতা

কলকাতায় অবস্থান নিয়েছিলেন শিবশঙ্কর নামে

মানবজমিন ডেস্ক
১৫ মে ২০২২, রবিবার

বাংলাদেশ থেকে প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়ে যাওয়া প্রশান্ত কুমার হালদার নিজেকে শিবশঙ্কর হালদার পরিচয় দিয়ে ভারতের বেশকিছু সরকারি পরিচয়পত্র জোগাড় করেছিলেন। এর মধ্যে আছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের রেশন কার্ড, ভারতের ভোটার পরিচয়পত্র, আয়কর দপ্তরের পরিচয়পত্র পি এ এন (প্যান), নাগরিকত্বের পরিচয়পত্র, আধার কার্ড ইত্যাদি বিভিন্ন পরিচয়। প্রশান্ত হালদারের অন্য সহযোগীরা একই কাজ করেছিলেন বলেও জানিয়েছে  ভারতের এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। এ পরিচয়পত্রের সাহায্যে ভারতে, বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গে বেশকিছু সংস্থা (কোম্পানি) খুলেছিলেন তারা। বিভিন্ন জায়গায় জমিজমাও কিনেছিলেন। কলকাতার কিছু অভিজাত এলাকাতেও তাদের বেশকিছু বাড়ি রয়েছে। ইডি বিবৃতিতে জানিয়েছে, পি কে হালদার বাংলাদেশে বহু কোটি টাকার আর্থিক কেলেঙ্কারিতে জড়িত। এই টাকা বিরাট পরিমাণে ভারতসহ অন্যান্য দেশে নিয়ে আসা হয়।

 

পাঠকের মতামত

লুটপাটের জন্য বাংলাদেশে সহজে ঋণ পাওয়া যায়,,,,ভুয়া আমদানী দেখিয়ে লুটপাটের টাকা বিদেশে পাচার করা আরো সহজ,,,,ফিনান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এবং অপর সকল সরকারি এজেন্সিগুলো বোধগম্য কারনেই চোখ বন্ধ করে থাকে,,,, পাহারার দায়িত্বে থেকে পাহারা না দেওয়া একটি অপরাধ,,, দুর্ভাগ্যবশতঃ এ রকম ব্যর্থতার কারনে তাদেরকে কোনরুপ জবাবদিহি করতে হয় না<<<

Md Shujayet Ullah
১৪ মে ২০২২, শনিবার, ৭:৪১ অপরাহ্ন

প্রথম পাতা থেকে আরও পড়ুন

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com