ঢাকা, ২৮ নভেম্বর ২০২২, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

শরীর ও মন

দেশেই ফিস্টুলার উন্নত মানের চিকিৎসা

অধ্যাপক ডা. এস এম এ এরফান
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

লোকটির প্রায় ৩০ বছর পূর্বে পায়ুপথের পাশে একটি ফোঁড়া হয়। সেটি এক সময় ফেটে যায় এবং পুঁজ পড়তে থাকে। চিকিৎসার জন্য একজন প্রখ্যাত সার্জনের নিকট যান এবং ফিস্টুলা হওয়ার কথাটি খুলে বলেন, তার অপারেশন হয়। কিন্তু অপারেশনের   পরেই তার আবার ফিস্টুলা দেখা দেয়। এরপর অন্য একজন অধ্যাপক অপারেশন করেন। কিন্তু ফলাফল একই। এবার রোগীটির আরও কয়েকটি ফিস্টুলা দেখা দেয়। এরপর তিনি আরও দুইবার অপারেশন করেন দুইজন বিশেষজ্ঞ সার্জনের মাধ্যমে। কিন্তু ফলাফল শূন্য। বরং ফিস্টুলার সংখ্যা বেড়েই যায়।

বিজ্ঞাপন
পরিত্রাণে তিনি ভারত ও সিংগাপুরে যান চিকিৎসার জন্য। তারাও রোগীকে দেখে বলে একাধিক অপারেশন লাগবে এবং বলে আবারো ফিস্টুলা না হওয়ার কোনো গ্যারান্টি নাই। এসব শুনে তিনি অপারেশন না করেই দেশে চলে আসেন। তিনি গত ২০ বছর ধরে এই ফিস্টুলার কষ্ট নিয়েই জীবনযাপন করছেন। বারবার অপারেশন এবং ফিস্টুলার কষ্টটা নিয়ে তিনি গত ৩০ বছর ধরে যন্ত্রণায় ছিলেন।
দেশে লেজারের মাধ্যমে কাটাছেঁড়া ছাড়া ও সহনীয়ভাবে   জটিল ফিস্টুলার অপারেশন করা যায় তিনি বিভিন্ন মাধ্যম থেকে বিষয়টি জানতে পেরে আমার  সঙ্গে  দেখা করেন। দেখা যায় তার প্রায় ছয়টি ফিস্টুলা আছে। তার সবগুলোই হাই লেভেল এবং কমপ্লেক্স (High Level Complex)। আমি দেখেশুনে একবারেই লেজার দিয়ে অপারেশন করার জন্য সিদ্ধান্ত নেই। মাস তিনেক আগে আমি তার সবগুলো ফিস্টুলার অপারেশন করলাম লেজার-এর সাহায্যে। এর আগের প্রতিটা অপারেশনে পায়ুপথে দীর্ঘ ক্ষত ছিল, অনেকদিন লেগেছিল ভালো হতে। কিন্তু আমি অপারেশন করার একদিন পরেই রোগীকে ছুটি দিয়ে দিলাম। এরপর তিনি কয়েকবার ফলোআপে এসেছিলেন। এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ।  
পায়ুপথের ফিস্টুলা বা ফিস্টুলা ইন এনো পায়ুপথের একটি রোগ। যাকে প্রচলিত ভাষায় নালিও বলা হয়। এটি একটি নালির মতো যা একটি মুখ পায়ুপথের বাইরে থাকে, আর একটি মুখ পায়ুপথের ভেতরে থাকে। এই নালি দিয়ে পুঁজ, রক্ত ইত্যাদি বের হতে থাকে। তারপর ফুলে যাওয়া, ব্যথা করা, টয়লেটে সমস্যা ইত্যাদি হতে পারে। বিষয়টি কখনো কখনো বড় উপদ্রব হয় যখন ফিস্টুলা দিয়ে পুঁজ বা মল বের হয়ে কাপড়ে দাগ পড়ে বা অনেক সময় অজু নষ্ট হয়ে যায়। 
এটির প্রচলিত সমাধান হচ্ছে ফিস্টুলোটমি ও ফিস্টুলোকস্টমী। যাতে পুরো নালি কাটা হয়। বড় একটি ক্ষত থাকে সেটি ড্রেসিং করে ভালো করতে হয়। ক্ষত শুকাতে ২/৩ মাস পর্যন্ত সময় লাগে। হাই লেভেল ফিস্টুলা হলে ৩/৪ ধাপে অপারেশন করতে হয়। ফলশ্রুতিতে রোগীর অনেক কষ্ট করতে হয় এবং অর্থ খরচও হয় বেশি। এই অপারেশনের একটি বড় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হচ্ছে মল ধরে রাখতে না পারা। এ ছাড়া সুতা (Seton) Lift নামক বিভিন্ন অপারেশন আছে যে সবে এর ফলাফল খুব ভালো নয়। আবার হওয়ার হার অনেক বেশি। বর্তমানে আমরা যে পদ্ধতিতে অপারেশন করছি সেটি হচ্ছে লেজার পদ্ধতি। বৈজ্ঞানিক নাম লেজার ফিস্টুলা Laser fistula Closure (Filac)। এই পদ্ধতিতে একাধিক ফিস্টুলা, হাই লেভেল ফিস্টুলা, জটিল ফিস্টুলা কিংবা আবার হওয়া ফিস্টুলা একবারেই চিকিৎসা করছি। কোনো কাটাছেঁড়া, ক্ষত বা ড্রেসিং নাই। রোগী একদিনেই বাড়ি চলে যেতে পারে।
 

লেখক: কলোরেক্টাল সার্জন 
চেম্বার: পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, শ্যামলী, ঢাকা। ফোন: ০১৮৬৫ ৫৫৫ ৫১১
ফেইসবুক: Prof.Dr.S M A Erfan
ইউটিউব: Prof.Dr.S M A Erfan.

 

 

শরীর ও মন থেকে আরও পড়ুন

শরীর ও মন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status