ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

কলকাতা কথকতা

কলকাতার বাজারে মুরগি অগ্নিমূল্য

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা

(৩ সপ্তাহ আগে) ৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার, ১১:২৪ পূর্বাহ্ন

ফ্রান্সের রানী মেরি এতোয়নেত একবার দুর্ভিক্ষের সময় প্রজাদের বলেছিলেন, ওরা রুটি পাচ্ছে না তো কেক কেন খাচ্ছে না? ভাগ্যিস পশ্চিমবঙ্গের কোনও জননেতা বলে বসেননি, ওরা পাঁঠার মাংস কিনতে পারছে না তো মুরগির মাংস কেন কিনছে না? উক্তিটি করলে ওই জননেতা ফাঁসতেন। কারণ, কলকাতায় এখন পাঁঠার মাংসের দাম আকাশছোঁয়া। মুরগির মাংসের আরও কঠিন অবস্থা। পাঁঠার মাংস প্রতি কিলোগ্রাম ৬৪০ থেকে ৭২০ টাকা। মুরগির মাংসর দাম দুশো টাকা ছাড়িয়েছে। গোটা মুরগি ১৩৫ থেকে ১৪০ এর মধ্যে। মানুষ আলুভাতে ভাত খেতে গিয়েও সমস্যায় পড়ছে। জ্যোতি আলু ৩০ টাকা, চন্দ্রমুখী ৩৬ টাকা। বেগুন এর কিলো ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকা, টমেটো ৫৫ থেকে ৬৫। একটি ফুলকপি বা বাঁধাকপি ৩০ টাকা।

বিজ্ঞাপন
পটল ৩০ থেকে ৪০, ভেন্ডি ৩০ থেকে ৩৫, কুমড়ো একই দাম। মোচা ২০ টাকা, পেঁপে ২০ টাকা, কাঁচকলা জোড়া ১০ থেকে ১২ টাকা, পুঁইশাক এক আটি ২০ টাকা, লাউ ২০ টাকা পিস। কাঁচালঙ্কা ১৬০ থেকে ২০০। মানুষ খাবে কি?
মাছের বাজারে নজর দিলে রুই ১৮০ থেকে ২০০। কাতলা ৩৪০ থেকে ৪০০ টাকা। পাবদা ৫০০ থেকে ৭০০, কই ৫০০, লোটে ১০০ টাকা। মাছের বাজারে গিয়েও মাথা গরম ছাড়া আর কিছু হবার নেই। বাংলাদেশের তুলনায় এই বাজার নাকি সস্তা। অগ্নিমূল্য দু দেশকেই যেন কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে।

পাঠকের মতামত

বাংলাদেশের তুলনায় অনেক ভাল

ফেরদৌস
৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার, ৬:৫০ পূর্বাহ্ন

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

কলকাতা কথকতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status