ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

এখনই আফিফকে উপাধি না দিই: তামিম

স্পোর্টস ডেস্ক

(১ মাস আগে) ১১ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:৫৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৪ অপরাহ্ন

৪৭ রানে তিন উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তামিম ১৯ রানে ফেরার পর ডাক মারেন শান্ত ও মুশফিক। ওপেনার এনামুল হক বিজয় ফিফটি হাঁকিয়ে আউট হওয়ার পর বিপদ বাড়ে। রিয়াদ-আফিফের ৪৯ রানের পার্টনারশিপের পর আর কোনো বড় জুটি হয়নি। শেষ ৫ ব্যাটার মিলে রানে তোলেন ১৯। দু’জন আবার ডাক মারেন। আসা-যাওয়ার খেলায় ব্যাটিং দৃঢ়তা দেখিয়েছেন ৬ষ্ঠ উইকেটে নামা আফিফ। অপরাজিত ৮৫ রানের ইনিংসে বাংলাদেশকে বড় সংগ্রহ এনে দেন তিনি। খাদের কিনারায় থাকা দলের ত্রাতা হয়ে ওঠা আফিফকে ‘ক্রাইসিস ম্যান’ বললেও ভুল হবে না। তবে এখনই তরুণ এই ব্যাটারকে কোনো খেতাব দেয়ার পক্ষে নন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

শুধু কি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সদ্য শেষ হওয়া এই সিরিজে? না, বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি ম্যাচে বিপদের মাসিহা হওয়ার নজির রয়েছে আফিফের।

বিজ্ঞাপন
২০১৯ সালে ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবুয়ের দেয়া ১৪৫ রানের লক্ষ্যে মাত্র ৬০ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল বাংলাশে। সেখান থেকে মাত্র ২৬ বলে ৫২ রানের ইনিংস খেলে দলকে জেতান আফিফ।

গত ফেব্রুয়ারিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের একটি ম্যাচে মাত্র ৪৫ রানে ৬ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সেবার মেহেদী মিরাজের সঙ্গে ১৭৪ রানের রেকর্ডগড়া জুটিতে দলকে জেতান আফিফ। নিজে করেছিলেন ক্যারিয়ার বেস্ট ৯৩ রান। 

তামিম মনে করেন, আফিফের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে দেয়া উচিত। প্রত্যাশার ভার তার পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলতে পারে। তামিম বলেন, ‘তাকে  (আফিফ) কোনো উপাধি না দিই, এখনই খেতাব দেয়া তাড়াহুড়ো হয়ে যাবে। তার বিশেষ গুণ রয়েছে, যা খুব বেশি মানুষের নেই। দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচে সে যখন ব্যাটিংয়ে আসে তখন আমরা চাপে ছিলাম এবং সে ম্যাচ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।’
তামিম বলেন, ‘এ ধরনের খেলোয়াড়দের ক্ষেত্রে অনেক সময় এমন হবে- একই জিনিস করতে গিয়ে আউট হয়ে যাবে। এরপর আমরা বলবো এটা কী করল? আমি চাই না সে তার গুণ হারাক। যেভাবে সে ব্যাট করতে চায় করুক, এটা দারুণ। তার ক্যারিয়ারের শুরু মাত্র। আশা করি দারুণ একটি ক্যারিয়ার হবে তার।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডেতে নিজের ব্যাটিং নিয়ে আফিফ বলেন, ‘আমি সবসময় যে পজিশনে ব্যাটিং করেছি, চেষ্টা ছিল ম্যাচটা শেষ করার। আমার মনে হয়, নিজের পরিকল্পনা অনুসারে আমি খেলতে পেরেছি।’

 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status