ঢাকা, ১২ জুলাই ২০২৪, শুক্রবার, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৫ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অনলাইন

ইউক্রেনে আরও দুই ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু, মস্কোর প্রতি কড়া মনোভাব দেখাল নয়াদিল্লি

মানবজমিন ডিজিটাল

(৪ সপ্তাহ আগে) ১৩ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৩:০৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

mzamin

রাশিয়ান সেনাবাহিনীতে  কাজ করা আরও দুই ভারতীয় নাগরিক নিহত হয়েছে। ভারতের  পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘোষণা করেছে, ইউক্রেন যুদ্ধে নিহত ভারতীয়র সংখ্যা এখন বেড়ে  চারজন হয়েছে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে ভারত রাশিয়াকে তাদের সেনাবাহিনীতে ভারতীয় নাগরিকদের যেকোন নিয়োগ বন্ধের দাবি জানিয়েছে।  সেইসঙ্গে তারা আরও জানিয়েছে , এরপরেও নিয়োগ চললে তা দুই দেশের  অংশীদারিত্বের  ওপর প্রভাব ফেলতে পারে। দুই ভারতীয়ের নাম প্রকাশ্যে আনেনি মন্ত্রণালয় । বিবৃতিতে আরও যোগ করা হয়েছে যে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নয়াদিল্লিতে রাশিয়ান রাষ্ট্রদূত এবং মস্কোতে রাশিয়ান সরকারের সাথে কথা বলে  রাশিয়ান সেনাবাহিনীর সাথে কাজ করা সমস্ত ভারতীয় নাগরিকদের দ্রুত প্রত্যাবর্তনের বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছে । যেদিন নয়াদিল্লিতে রাশিয়ান দূতাবাস তার জাতীয় দিবস উদযাপনের আয়োজন করেছিল, সেই দিনই খবরটি এসেছিল, যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় কোয়াত্রা। 

মৃতদের নিকটাত্মীয়দের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে যে ভারতীয় দূতাবাস "মৃতদেহের দ্রুত প্রত্যাবাসনের জন্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়সহ রাশিয়ান কর্তৃপক্ষকে চাপ দিয়েছে । আমরা ভারতীয় নাগরিকদেরও  রাশিয়ায় কর্মসংস্থানের সুযোগ খোঁজার সময় সতর্কতা অবলম্বন করার আহ্বান জানাই। 'রুশ সেনাতে ১০০ জন ভারতীয় নিয়োগের খবর পাওয়া গেলেও গত ফেব্রুয়ারিতে বিদেশ মন্ত্রণালয় জানায়, ২০ জন ভারতীয় তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। সেই ভারতীয়রা দেশে ফিরে আসতে চেয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
এরপরেই তাঁদের দেশে ফিরিয়ে আনার সব রকমের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেই চেষ্টা সফল না হওয়ায়  মস্কোর প্রতি কড়া মনোভাব দেখাল নয়াদিল্লি। মার্চের মাঝামাঝি সময়ে, দুই ভারতীয় নাগরিক, মোহাম্মদ আসফান এবং হেমিল অশ্বিনভাই মাঙ্গুকিয়ার মরদেহ ভারতে আসে। আসফান জানুয়ারীতে ডোনেটস্কে একটি বিস্ফোরণে মারা যান এবং ইউক্রেনের বিমান হামলায় মাঙ্গুকিয়া নিহত হন। প্রতিবেদন অনুসারে, রাশিয়ান সেনাবাহিনীতে বেশিরভাগ ভারতীয় কর্মীকে দুবাই-ভিত্তিক একটি সংস্থার মাধ্যমে নিয়োগ করা হয়েছিল, ইউটিউবের মাধ্যমে তাদের প্রলুব্ধ করা হয়েছিল । একবার তারা রাশিয়ায় পৌঁছে গেলে, তাদের সেখানে নথিতে স্বাক্ষর করতে এবং যুদ্ধক্ষেত্রে পাঠানোর আগে মাত্র ১৫ দিনের প্রশিক্ষণ  দেয়া হয়েছিল ।

সূত্র: দ্য ওয়্যার

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status