ঢাকা, ১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

কলকাতা কথকতা

'সত্যি সামনে আনতে' রাজভবনের সিসিটিভি ফুটেজ আমজনতাকে দেখাবেন পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল

সেবন্তী ভট্টাচার্য্য , কলকাতা প্রতিনিধি

(২ মাস আগে) ৮ মে ২০২৪, বুধবার, ৯:১৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৯:৫৮ অপরাহ্ন

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোসের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছেন রাজভবনেরই এক অস্থায়ী নারী কর্মী। ঘটনার তদন্তে ডিসি (সেন্ট্রাল) ইন্দিরা মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে আট সদস্যের সিট গঠন করেছে লালবাজার। রাজভবনের ওসির কাছে সেদিনের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ চেয়েছে পুলিশ। রাজ্যপালকে রাজভবনের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করার চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন প্রচার কর্মসূচি থেকে আক্রমণ শানিয়েছেন রাজ্যপালকে। এরই মধ্যে এক বড় সিদ্ধান্ত নিল রাজভবন। 

বুধবার ঘোষণা করা হয়েছে, বৃহস্পতিবার যে কোনও সাধারণ মানুষ ওই ফুটেজ দেখতে পারবেন। কোন ফুটেজ, তা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা না হলেও রাজভবনের তরফে জানানো হয়েছে, যে ঘটনা নিয়ে পুলিশ অবৈধভাবে তদন্ত শুরু করেছে, তারই ফুটেজ সামনে আনা হবে। এই উদ্যোগের নামকরণ করা হয়েছে ‘সাচ কে সামনে’। যাঁরা ওই সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে চান, তাঁদের জন্য দুটি ই-মেইল আইডি দিয়েছে রাজভবন। সেগুলি হল- [email protected] এবং [email protected]

বিজ্ঞাপন
সেখানে পুরো পরিচয় জানাতে হবে। রাজভবনের তরফে একটি নম্বরও দেওয়া হয়েছে। সেটি হল- ০৩৩-২২০০১৬৪১। সেই নম্বরে ফোন করেও নাম নথিভুক্ত করাতে পারেন। 

প্রথম ১০০ জনকে রাজভবনের ভিতরে ওই ফুটেজ দেখার সুযোগ দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় রাজভবনে দেখানো হবে ওই সিসিটিভি ফুটেজ। কিন্তু জনসমক্ষে অবস্থানের কারণে রাজনীতিবিদ মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় ও তাঁর পুলিশকে সিসিটিভি ফুটেজ দেখানো হবে না'। ঘটনাটি ঠিক কী ঘটেছিলো? প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে রাজভবনে তখন তৎপরতা তুঙ্গে। তার মধ্যেই রাজভবনের ওসির ঘরে হাজির হন এক নারী। রাজভবনের ওসির কাছে খোদ রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোসের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। এরপর ওই নারীকে নিয়ে যাওয়া হয় হেয়ার স্ট্রিট থানায়। থানায় তিনি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে খবর। রাজ্যপাল সাংবিধানিক পদাধিকারী বলে ফলে শ্লীলতাহানির অভিযোগে এফআইআর দায়ের করতে পারেনি পুলিশ। রাজ্যপালের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা কিংবা জেল হেফাজতের রায় দিতে পারবে না কোনও আদালত। কোনও রাজ্যপালের বিরুদ্ধে তদন্ত করা যাবে না। এমনকি, তাঁকে অভিযুক্ত হিসেবেও উল্লেখ করা যাবে না। রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বলেছেন, ''মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নোংরা রাজনীতি করছেন। আমি যতই রাজনীতির ঊর্ধ্বে থাকতে চাই, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে ততই রাজনীতিতে টেনে আনছেন।''

কলকাতা কথকতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

কলকাতা কথকতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status