ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

‘অনেক বেশি ক্ষুধার্ত ছিলাম’ ৫ উইকেট নিয়ে মোহামেডানকে জেতানোর পর নাসুম

স্পোর্টস ডেস্ক
২০ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার
mzamin

নিজের প্রথম দুই ওভারে নিলেন দুই উইকেট। এরপর একে একে নিলেন আরও ৩টি। সবমিলিয়ে ৫ বছর ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে ফাইফারের দেখা পেলেন নাসুম আহমেদ। ম্যাচ শেষে মোহামেডানের এই স্পিনার বলেন, তিনি অনেক বেশি ক্ষুধার্ত ছিলেন উইকেটের জন্য। একই ম্যাচে মোহামেডানের জয়ে অবদান রাখেন অধিনায়ক ইমরুল কায়েসও। গতকাল ঢাকা প্রিমিয়ার লীগের প্রথম পর্বের শেষ দিনে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৫ উইকেটে হারায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। মিরপুরে শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাটিং করে মাত্র ১৩৫ রান করে ব্রাদার্স। ১০ ওভারে ২২ রানে ৫ উইকেট নেন নাসুম। আসরে এখন পর্যন্ত ১১ ইনিংসে নাসুমের শিকার ১৮ উইকেট। এরপর ইমরুল কায়েসের ৭১ বলে অপরাজিত ৯২ ইনিংসের উপর ভর করে ২৩.২ ওভারে জয়ের বন্দরে পৌছে যায় মোহামেডান।

বিজ্ঞাপন
১১ ম্যাচে ৮ জয়ে পয়েন্ট টেবিলের ৩ নম্বরে থেকে সুপার লীগ খেলবে তারা। আর সমান ম্যাচে তিন জয়ে অবনমন অঞ্চল এড়াতে পেরেছে ব্রাদার্স। ম্যাচ শেষে নাসুম বলেন উইকেটের জন্য তার ক্ষুধা ছিল। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে দ্বিতীয়বার পাঁচ উইকেট নিয়ে মোহামেডানের এই বাঁহাতি স্পিনার সাংবাদিকের বলেন, ‘অনেক দিন ধরে উইকেটের একটা ক্ষুধা নিয়ে ছিলাম। দু-একটা করে উইকেট পেতাম প্রথম চার ম্যাচে মনে হয় দুইটা উইকেট পেয়েছি। বোলিংয়ের তালিকা যখন দেখতাম, একদম তলানিতে আছি... তো অনেক বেশি ক্ষুধার্ত ছিলাম আমি যে, একটা ম্যাচে ভালো করব।’ এদিন রান তাড়ায় শুরু থেকেই অন্যপ্রান্তে রনি তালুকদারকে দর্শক বানিয়ে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেন ইমরুল। ৬৬ রানের উদ্বোধনী জুটিতে রনির অবদান স্রেফ ১০ রান। এরপর ১ রানের ব্যবধানে দুই উইকেট হারায় মোহামেডান। রনির পর ফেরেন মাহিদুল ইসলাম অংকনও। রুবেল মিয়া, মাহমুদউল্লাহ, আরিফুল হকরাও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। তবে ইমরুল ঠিকই একপ্রান্ত আগলে ছিলেন। মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে ম্যাচ শেষ করেন ইমরুল। ৩৬ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়া ইমরুল অপরাজিত থাকেন ৯২ রানে। আর মিরাজের নামের পাশে যোগ হয় ৭ রান। এর আগে প্রথম ওভারে ব্রাদার্স ওপেনার আব্দুল মজিদকে ফেরান দারুণ ফর্মে থাকা আবু হায়দার রনি। পরের ওভারে নাসুমের শিকার রহমতউল্লাহ আলি। বাঁহাতি এই স্পিনারের দ্বিতীয় ওভারে ফেরেন অভিজ্ঞ ইমতিয়াজ হোসেন।জাকিরুল ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান শুরুর ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করলেও পারেননি। দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে নাসুম ভাঙেন ৫৩ রানের পঞ্চম উইকেট জুটি। ৪৫ রান করে ফেরেন মাহমুদুল। রাহাতুল আরও কিছুক্ষণ এগিয়ে নেন ব্রাদার্সকে। তাকেও ৪৫ রানে থামান নাসুম। শেষ পর্যন্ত ১৩৫ রানেই থামে ব্রাদার্সের ইনিংস।

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status