ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

নিরাপত্তা চেয়ে কানাডা প্রবাসীর সংবাদ সম্মেলন

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি

(২ মাস আগে) ২৮ নভেম্বর ২০২২, সোমবার, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন

mzamin

সোনাইমুড়ীতে  নিরাপত্তা ও স্ত্রীর উপর হামলার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন কানাডিয়ান প্রবাসী ও তার পরিবার। এ পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা ও ন্যায় বিচার চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তারা। ন্যায় বিচার না পেলে ৩০শে নভেম্বর কানাডিয়ান দূতাবাসে অভিযোগ দেয়ার কথা জানিয়েছে পরিবারটি। 

রোববার (২৭ নভেম্বর ) দুপুরে সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এসব বক্তব্য তুলে ধরেন কানাডিয়ান প্রবাসী আবদুর রেজ্জাক ও তার স্ত্রী শেফালী বেগম। তিনি উপজেলার দেওটি ইউনিয়নের আকরাম উদ্দিন হাজী বাড়ীর মৃত আলী আশ্বাদের ছেলে। 

প্রবাসী আবদুর রেজ্জাক লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি সপরিবার নিয়ে ১৯৯০ সাল থেকে কানাডায় বসবাস করে আসছি। মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসি। গত ২০০১ সালে অবৈধভাবে আমার উপার্জিত টাকা দিয়ে ছোট ভাই জাকির হোসেন কানাডায় যায়। সেখানে দীর্ঘদিন লুকিয়ে থাকার পর কানাডিয়ান পুলিশের কাছে আটক হলে সেখান থেকে আমি তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় উদ্ধার করি। পরে সে কাগজপত্র সঠিক না থাকায় পুনরায় পুলিশ তাকে আটক করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়। দেশে এসে সে আমার প্রজেক্টের মাছ ও আমার বাড়িঘর দখলের চেষ্টা করে। আমার ক্রয়কৃত স¤পত্তিতে খননকৃত পুকুর ও প্রজেক্ট থেকে মাছ ধরে নিয়ে যায় এবং বসতঘর জোরপূর্বক দখল করার চেষ্টা করে।

বিজ্ঞাপন
 আমি প্রায় ২ বছর আগে দেশে এসে আমার বসতঘরে তালা দিয়ে কানাডায় চলে যাই। সেখানে বিভিন্নভাবে আমার কাছে ৫০ লক্ষ টাকা দাবি করে এবং আমাদের ঘরে তালার উপর তালা লাগিয়ে দেয় জাকির হোসেন। পরে গত ১১ নভেম্বর ২০২২ সালে আমি দেশে এসে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করলে ইউএনও তাকে ডেকে মীমাংসার জন্য বসেন। সেখানে সে কোন টাকা পাবে না মর্মে সিদ্ধান্ত হলে আমাকে ঘরের চাবি দিয়ে দেয়। তার অত্যাচারে আমি আমার খননকৃত প্রজেক্ট বিক্রি করে দেই। এ কারণে জাকির হোসেন আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে এবং বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। তার অত্যাচার ও নির্যাতনে আমরা অতিষ্ঠ হয়ে আমার ভায়রার বাড়ি একই উপজেলার বারুল গ্রামে গিয়ে আশ্রয় নেই। পরে ২২শে নভেম্বর আমার স্ত্রী রিকশাযোগে নিজ বাড়িতে গেলে রিকশা ড্রাইভার উপস্থিত থাকাকালীন আমার ঘরে ঢুকতেই সে আমার স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে এবং ঘরের ভেতর আটকে রেখে টাকা না দিলে মেরে বস্তায় ভরে ফেলে দিবে বলে হুমকি দেয়। এসময় জাকির হোসেন আমার স্ত্রীর ব্যাগে থাকা নগদ ৬৫ হাজার ২ শত টাকা ও তার গলায় থাকা দেড় ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। স্থানীয়রা আমার স্ত্রীকে সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে আমি বাদী হয়ে সোনাইমুড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করি। প্রায় ৫ দিন অতিবাহিত হলেও আসামিকে ধরছে না। পুলিশ আমার মালামাল উদ্ধার ও জাকিরকে না ধরে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে আমাকে হয়রানি করছে। এতে আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমি একজন কানাডা প্রবাসী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আমার ও আমার পরিবারের নিরাপত্তা এবং সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

 

 

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status