ঢাকা, ২৮ মে ২০২৪, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

অনলাইন

সেই টিটিইকে বিভাগীয় রেলওয়ে কার্যালয়ে তলব

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি

(২ বছর আগে) ৭ মে ২০২২, শনিবার, ২:৪০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৬:১৬ অপরাহ্ন

mzamin

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সেই ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীক্ষক (টিটিই) শফিকুল ইসলামকে পশ্চিমাঞ্চল পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে কার্যালয়ে তলব করা হয়েছে। আজ শনিবার সকাল ১১টার দিকে শফিকুল ইসলাম নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, গেল বৃহস্পতিবার  মধ্যরাতে পাবনার ঈশ্বরদীতে রেলমন্ত্রীর ‘আত্মীয়’ পরিচয়ে বিনা টিকিটধারী তিন যাত্রীকে জরিমানাসহ ভাড়া আদায় করেন টিটিই শফিকুল ইসলাম। পরে তিনি রেলমন্ত্রীর ওই তিন আত্মীয়ের সঙ্গে ‘অসদাচরণ’ করেছেন- এমন অভিযোগে তাকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। শফিকুল ইসলাম ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশন টিটিই হেডকোয়ার্টারে কর্মরত।

টিটিই শফিকুল ইসলাম বলেন, ঈশ্বরদী রেলওয়ের টিটিই হেডকোয়ার্টারের ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র টিটিই ইন্সপেক্টর বরকত উল্লাহ আল-আমিন বরখাস্তের দিন ফোন করে তাকে জানিয়েছেন, রোববার পশ্চিমাঞ্চল পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে কার্যালয়ের ম্যানেজার (ডিআরএম) আমাকে তলব করেছেন। সৃষ্ট ঘটনা নিয়ে হয়তো আমার সঙ্গে কথা বলবেন।

বরখাস্তের আদেশ সমীচীন হয়েছে কিনা এবং তিনি বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহারের আবেদন করবেন কিনা- জানতে চাইলে শফিকুল ইসলাম বলেন, স্যাররা যেটা ভাল মনে করেছেন, সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এখানে আমার আর কী বলার আছে? রোববার বিভাগীয় কার্যালয়ে গিয়ে দেখি, স্যাররা কী বলেন। তারপর আমার স্যারের (ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র টিটিই ইন্সপেক্টর) সঙ্গে আলোচনা করে প্রত্যাহারের আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।

শফিকুল ইসলাম বলেন, ওইদিন আমি ওই তিন যাত্রীর সঙ্গে কোনো ধরনের ‘অসদাচরণ’ করিনি। তারাও আমার সঙ্গে খারাপ কোনো আচরণ করেননি। কোনো ধরনের কথা কাটাকাটিও হয়নি। এমনকি হলো যে আমি নিজেও জানি না।

বিজ্ঞাপন
আল্লাহ জানেন আর তারা জানেন। শুধু জানি, আমি আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেছি। কোনো অন্যায় বা অনিয়ম করিনি।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খুলনা থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে তিন যাত্রী বিনা টিকিটে এসি কেবিনে চেপে ঢাকা যাচ্ছিলেন। এসময় কর্তব্যরত টিটিই শফিকুল ইসলাম তাদের কাছে টিকিট দেখতে চাইলে তারা রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দেন। টিটিই বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে পাকশী বিভাগীয় রেলের সহকারী বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (এসিও) নুরুল আলমের সঙ্গে আলাপ করলে তিনি সর্বনিম্ন ভাড়া নিয়ে এসি টিকিট না করিয়ে, সাধারণ কোচের টিকিট কাটার পরামর্শ দেন। এসিও’র পরামর্শ অনুযায়ী টিটিই শফিকুল ইসলাম ওই তিন ট্রেনযাত্রীকে এসি টিকিটের পরিবর্তে ৩৫০ টাকা জনপ্রতি হিসেবে ১ হাজার ৫০ টাকা নিয়ে তিনটি সুলভ শ্রেণির নন এসি কোচে সাধারণ আসনের টিকিট বানিয়ে দেন।

রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকিটে ভ্রমণ

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status