ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

কটিয়াদীতে ভিজিএফ চাল আত্মসাতের মামলায় ২ আসামির জামিন নামঞ্জুর

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে
১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার চাঁন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর বরাদ্দকৃত ২৩৫০ কেজি ওজনের ৪৭ বস্তা ভিজিএফ চাল প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাত করার অপরাধে দুদক এর দায়ের করা মামলার ২ আসামি আব্দুর রহমান (২৪) ও মো. সজিব (২০) এর জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. সায়েদুর রহমান খান শুনানি শেষে তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন। দুই আসামির মধ্যে আব্দুর রহমান কটিয়াদী উপজেলার চাঁন্দপুর বড়পাড়ার মো. রমজান মিয়ার ছেলে এবং মো. সজীব উপজেলার চাঁন্দপুর মদিনাছপাড়ার মো. চাঁন মিয়ার ছেলে। তাদের মধ্যে আব্দুর রহমান ভিজিএফ চাল বহনকারী ট্রাক্টর লরির চালক ও মো. সজীব তার হেলপার। মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ৮ই জুলাই ভোররাত ৪টার দিকে কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম চাতলডাঙ্গী ব্রিজ এলাকা থেকে থানা পুলিশের সহায়তায় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আব্দুল আলিম ট্রাক্টর লরি আটকে ৪৭ বস্তা সরকারি ভিজিএফ চাল ও ১২টি খালি চটের বস্তাসহ আব্দুর রহমান ও মো. সজীবকে আটক করেন। এ সময় মদিনাছপাড়ার গোলাপ মিয়ার ছেলে শরিফ মিয়া (২৫) দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আব্দুল আলিম কটিয়াদী মডেল থানায় জিডি (নং-৩৭৮, তারিখ-০৮/০৭/২০২২) করেন। পরবর্তীতে দুদক কিশোরগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ২৪শে জুলাই দুদক কিশোরগঞ্জ জেলা কার্যালয়ে মামলা (নং-১) করেন। চালসহ আটকের পর ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তারকৃত আব্দুর রহমান ও মো. সজীবকে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করে দুদক। দুদকের মামলার এজাহারে বলা হয়, চাঁন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর বরাদ্দকৃত সরকারি ভিজিএফ চাল কালোবাজারীর উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে মজুত করে রাখার জন্য আটক ২ পলাতক আসামি ও অজ্ঞাতনামা আসামিদের সহায়তায় ও যোগসাজশে প্রতারণার আশ্রয়ে আত্মসাত করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছে।

বিজ্ঞাপন
এদিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার জিডি এবং দুদক এর মামলার এজাহারে সুস্পষ্টভাবে জব্দ হওয়া চাল চাঁন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর বরাদ্দকৃত সরকারি ভিজিএফ চাল বলে উল্লেখ করা হলেও চাঁন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মাহফুজুর রহমান মাফুজকে মামলায় আসামি না করায় অনেকেই এ ব্যাপারে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে দুদক কিশোরগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. সালাহউদ্দিন বলেন, আসামিদের শ্যোন এরেস্ট হয়ে গেছে। তারা জামিন পায়নি। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। আদালতের ধার্য্য তারিখে আসামিদের উপস্থিতিতে রিমান্ড শুনানি হবে। তাৎক্ষণিকভাবে যাদের দখল থেকে চাল উদ্ধার করে তাদেরকে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া তদন্তে যাদের নাম আসবে তাদেরকেই আসামি করা হবে।

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status