ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

শেষের পাতা

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০২৪

সিলেটে নির্বাচন থেকে সরে যাচ্ছেন বিএনপি জামায়াত নেতারা

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে
১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার

সিলেট জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে প্রথম ধাপে চারটি উপজেলার মনোনয়ন জমা হয়েছে নীরবেই। নেই তেমন ঢাকঢোল। প্রার্থী, কর্মী-সমর্থকদেরও দৌড়ঝাঁপ কম। সাধারণ ভোটারের মধ্যে উৎসাহ নেই। এদিকে; সোমবার মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিনে চারটি উপজেলায় বিএনপি’র জামায়াতের নেতারা মনোনয়নপত্র জমা দিলেও গতকাল তারা জানিয়েছেন; দলীয় সিদ্ধান্তে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিচ্ছেন। ফলে এ নির্বাচন আরও বেশি নিরুত্তাপ হওয়ার শঙ্কা জাগিয়েছে। তবে; প্রতিটি উপজেলায় আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ফলে তাদের ঘিরে ভোটারের মধ্যে কিছুটা আগ্রহ রয়েছে। ভোটাররা জানিয়েছেন- পছন্দসই প্রার্থী হলে তারা কেন্দ্রে যাবেন। নতুবা নীরবই থাকবেন।

বিজ্ঞাপন
প্রথম ধাপে সিলেটের যে চারটি উপজেলায় নির্বাচন হচ্ছে সেগুলো হলো; সিলেট সদর, বিশ্বনাথ, গোলাপগঞ্জ ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা। মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় শেষ হয়েছে। সিলেটের চার উপজেলায় মোট ৫৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

 সিলেটের সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন- চার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ২৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২০ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। প্রার্থীরা হচ্ছেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদরুল ইসলাম, সদস্য আলহাজ মঈনুল ইসলাম, মোগলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম সাইস্তা, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমদ, জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা সোলাইমান হোসেন, নাট্য অভিনেতা সাহেদ মোশারফ কটাই মিয়া। দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় বিএনপি’র কোনো  নেতা মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। প্রার্থী ছিলেন জেলা বিএনপি’র প্রচার সম্পাদক লোকমান আহমদ। তিনি জানিয়েছেন- এই নির্বাচনের ফলাফল সবাই জানে। সুতরাং মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে লাভ নেই। এ কারণে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছি। মনোনয়নপত্র জমাদানকারী প্রার্থী উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর মাওলানা সুলেমান হোসেইন জানিয়েছেন- তিনি দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেবেন।

 গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, ব্রাজিল যুবলীগের আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান উজ্জল, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শাহিদুর রহমান চৌধুরী জবেদ। বিএনপি কিংবা অন্য কোনো দলের কেউ এ উপজেলায় মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। সিলেট জেলা জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল হাফিজ নাজমুল ইসলাম জানিয়েছেন- তিনি প্রার্থী হওয়ার জন্য টাকা জমা দিলেও দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছেন। বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি ও জামায়াতের নেতারা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তবে; চেয়ারম্যান পদে জমাদানকারীদের বহিষ্কৃত নেতা বলে উল্লেখ করেছেন বিএনপি’র নেতারা। বিশ্বনাথে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী আকদ্দুছ আলী, পৌরসভা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলতাব হোসেন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ-সভাপতি শমসাদুর রহমান রাহিন, পৌরসভা আওয়ামী লীগের সদস্য ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী এ আর চেরাগ আলী, আওয়ামী লীগ ঘরানার মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী এনাম, বহিষ্কৃতসহ বিএনপি নেতারা হচ্ছেন- সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বহিষ্কৃত বিএনপি নেতা সোহেল আহমদ চৌধুরী, উপজেলা বিএনপি’র সাবেক আহ্বায়ক ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান গৌছ খান, যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেবুল মিয়া এবং যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা সফিক উদ্দিন।

 এদিকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন উপজেলা জামায়াতের আমীর নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী। বিশ্বনাথ উপজেলা জামায়াতের আমীর ও মনোনয়নপত্র জমাদানকারী প্রার্থী নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকী জানিয়েছেন-  কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের আলোকে আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো। এদিকে- বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. গৌছ আলী ও সাধারণ সম্পাদক মো. লিলু মিয়া গতকাল এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন- উপজেলা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি থেকে বহিষ্কৃতরা প্রাণপ্রিয় নেতা এম ইলিয়াস আলীর ছবি ব্যবহার করে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের উপজেলা নির্বাচনে ব্যবহারের অশুভ পাঁয়তারা চালাচ্ছে। যা বিএনপি ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। বহিষ্কৃতরা কোনো ভাবেই লিফলেট, ফেস্টুনে প্রিয় নেতার ছবি ব্যবহার করতে পারে না। ইতিমধ্যে যারা ব্যবহার করেছেন অবশ্যই সেটি বন্ধ করতে হবে।

 বিবৃতিতে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিশ্বনাথ উপজেলা, পৌর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বহিষ্কৃতদের পক্ষে কাজ ও কোনো ধরনের সহযোগিতা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান। যারা এ সিদ্ধান্ত অবজ্ঞা করবে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন নেতাকর্মীরা। সিলেট সদর উপজেলায় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন- মো. এজাজুল হক, মো. ইসলাম উদ্দিন, মো. আহাদ মিয়া, মো. সুজাত আলী রফিক, মো. সামসুল ইসলাম, মিল্লাত আহমদ চৌধুরী, ডা. মো. খলিলুর রহমান। সিলেট জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী জানিয়েছেন- দলীয় ভাবে কেউ প্রার্থী হওয়ার প্রশ্নই উঠে না। যারা স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তারা সরে যাবেন। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামত

Peter D Hash koi

Muhammed Nuruzzaman
১৮ এপ্রিল ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৯:১৩ পূর্বাহ্ন

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status