ঢাকা, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

রকমারি

ভারতের তাজমহল সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

মানবজমিন ডিজিটাল

(৫ মাস আগে) ৯ নভেম্বর ২০২৩, বৃহস্পতিবার, ৬:১৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৯ অপরাহ্ন

mzamin

ভারতের আগ্রার তাজমহল বিশ্বের সবচেয়ে সুপরিচিত প্রেমের প্রতীকগুলির মধ্যে একটি। এর পরতে পরতে জড়িয়ে রয়েছে অনেক গোপন রহস্য। মুঘল সম্রাট শাহজাহানের নির্দেশে তাজমহলটি শেষ হতে ১৭ বছর সময় লেগেছিল, এটি তার প্রিয় বেগম  মমতাজের জন্য তিনি তৈরি করেছিলেন। সন্তান প্রসবের সময় মারা যান মুমতাজ। কয়েক শতাব্দী পরে, এটি এখনও ভারতের সবচেয়ে পরিচিত স্থাপত্যের বিস্ময় হিসাবে রয়ে গেছে। কিন্তু তাজমহল সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য রয়েছে যা খুব কম লোকই জানেন।  

১. এটি সম্পূর্ণরূপে প্রতিসম নয়
তাজমহল খুবই  সুন্দর একটি প্রতিসম স্মৃতিস্তম্ভ হিসেবে আমাদের সামনে প্রতিভাত হয়। তাজমহল মিনার দ্বারা ঘেরা। এর  লাল বেলেপাথরে দুটি অভিন্ন কাঠামো - একটি মসজিদ এবং একটি অতিথিশালা - সমাধি থেকে সমান দূরে অবস্থিত। খিলান থেকে শুরু করে সম্মুখভাগ এবং মার্বেলের উপরে ক্যালিগ্রাফি- সবকিছুই প্রতিসম।

বিজ্ঞাপন
তবে তাজমহলে এমন একটি জায়গা আছে যা বেমানান, আর তা হল শাহজাহানের সমাধি। স্থানীয় কিংবদন্তি আছে যে সম্রাট নিজের জন্য একটি কালো তাজমহল তৈরি করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু তার সময় ফুরিয়ে গিয়েছিল, তাই তার সমাধিস্থলটি তাজমহলের সৌন্দর্যের সামনে একেবারেই বিপরীত ।

২. তাজের সৌন্দর্যচর্চা 
আগ্রা একটি জনপ্রিয় পর্যটন স্পট হয়ে উঠলে, শহর ও আশেপাশের এলাকায় শিল্পায়ন ও বাণিজ্য বৃদ্ধি পায়। যার জেরে  তাজমহলের সম্মুখভাগের মার্বেল  পাথরগুলি হলুদ হতে শুরু করে । অবশেষে, ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় যে তাজ ট্র্যাপিজিয়াম জোনের অন্তর্গত শিল্পগুলি - যা ১০,৪০০ বর্গ কিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত - অবশ্যই প্রাকৃতিক গ্যাসের আওতায় আনতে হবে বা ওই জায়গা থেকে সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। একজন  ভারতীয় নারীর  মতোই তাজের সৌন্দর্যচর্চা করা হয়। ফুলারস আর্থ বা মুলতানি মাটি হলো এক ধরনের ক্লিনজিং মাড প্যাক। সেটি  তাজের উপর ভালো করে লেপে দেয়া হয়। তারপর ২৪ ঘণ্টা পরে পানি  দিয়ে ধুয়ে ফেলা হয়, এই প্রক্রিয়া  তাজের  উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করেছিলো ।

৩.  কোন কারিগরের অঙ্গচ্ছেদ করা হয়নি
একটি জনপ্রিয় পৌরাণিক কাহিনী বলে যে শাহজাহান তাজমহলের প্রধান কারিগরদের পঙ্গু ও অন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন, যাতে সমাধির সৌন্দর্যের প্রতিলিপি করা না হয়। কিন্তু ইতিহাসবিদরা এই তত্ত্বের পক্ষে খুব কম সমর্থন পেয়েছেন। ইতিহাসবিদরা মনে করেন, অনেক কর্মী শারীরিক বিকৃতিতে ভুগছিলেন, সম্ভবত বছরের পর বছর হাড়ভাঙ্গা খাটুনির জেরে। অনেক কারিগর যারা তাজের অভ্যন্তরীণ কাজ করছিলেন তারাও দৃষ্টিশক্তির সমস্যায় ভুগছিলেন বলে জানা গেছে।

৪. তিনবার বিক্রি হয়েছে
এটি একটি জাতিসংঘের শিক্ষাগত, বৈজ্ঞানিক ও সাংস্কৃতিক সংস্থা  ইউনেস্কো দ্বারা স্বীকৃত হেরিটেজ সাইট এবং একটি জাতীয় স্মৃতিস্তম্ভ।কিন্তু কিছু লোককে বোকা বানানো হয়েছিল যে এটি বিক্রি করা হবে। কুখ্যাত কনম্যান এম. কে. শ্রীবাস্তব (নটওয়ারলাল নামেও পরিচিত) তিনজন বিশ্বস্ত পর্যটককে মাত্র ১,০০,০০০ টাকায় তাজমহল কিনতে বাধ্য করেছিলেন। যেহেতু তিনি একজন আইনজীবী ছিলেন, তাই তার কাছে ভুয়া সরকারি অফিসিয়াল আইডি সহ নকল দলিল ছিল। নটওয়ারলালের বিরুদ্ধে ১০০ টিরও বেশি মামলা ছিল এবং বেশ কয়েকবার গ্রেপ্তার হয়ে তাকে কারাবরণ করতে হয়। যদিও তিনি একাধিকবার পালিয়ে যান। ১৯৯৬ সালে ৮৬ বছর বয়সে কারাগার থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে পালিয়ে যান কনম্যান এম. কে. শ্রীবাস্তব। এরপর থেকে তাকে আর দেখা যায়নি।

সূত্র : গালফ নিউজ

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status