ঢাকা, ১৫ জুন ২০২৪, শনিবার, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

রকমারি

সময়ের আগেই পারকিনসন্সের লক্ষণ প্রকাশ করতে পারে স্মার্ট ঘড়ি

মানবজমিন ডিজিটাল

(১১ মাস আগে) ৪ জুলাই ২০২৩, মঙ্গলবার, ১২:৪২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৬ পূর্বাহ্ন

mzamin

একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, পারকিনসন্স রোগের মূল লক্ষণ দেখা দেয়ার সাত বছর আগেই রোগ শনাক্ত করতে স্মার্ট ঘড়ি। এছাড়া রোগ নির্ণয়েও সাহায্য করতে পারে সেটি। গবেষকরা ঘড়ির ডিভাইস দ্বারা সংগৃহীত ডেটা বিশ্লেষণ করে দেখতে পেয়েছেন যে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (AI) ব্যবহার করে পূর্বাভাস পাওয়া যেতে পারে পরবর্তীতে কোনো ব্যক্তির দেহে পারকিনসন্স রোগের বিকাশ ঘটবে কিনা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এটি পারকিনসন্সের জন্য একটি নতুন স্ক্রিনিং টুল হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে, যা বর্তমান পদ্ধতিগুলির চেয়ে অনেক আগের পর্যায়ে পারকিনসন্স ডিসঅর্ডার শনাক্ত করতে সক্ষম। কার্ডিফ ইউনিভার্সিটির ইউকে ডিমেনশিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউটের গবেষক ডাঃ সিনথিয়া স্যান্ডর বলেছেন: "এই ফলাফলগুলির সাথে আমরা পারকিনসন্সের প্রাথমিক শনাক্তকরণে সহায়তা করার জন্য একটি মূল্যবান 'স্ক্রিনিং টুল' তৈরি করতে পারি। ক্লিনিকাল ট্রায়ালেও এটি সহায়তা করতে পারে। লক্ষণগুলি দেখে রোগীদের রোগ নির্ণয়ের আগে থেকেই চিকিৎসা শুরু করা যেতে পারে।" 

কার্ডিফ ইউনিভার্সিটির NMHII (নিউরোসায়েন্স অ্যান্ড মেন্টাল হেলথ ইনোভেশন ইনস্টিটিউট)-এর ক্লিনিকাল সিনিয়র লেকচারার ডাঃ ক্যাথরিন পিল বলেছেন: “পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত বেশির ভাগ লোকের মধ্যে যখন উপসর্গগুলি দেখা যায় ততক্ষণে আক্রান্ত মস্তিষ্কের কোষগুলির অনেকটাই ক্ষতি হয়ে গেছে। এর মানে হল যে অবস্থাটি প্রাথমিকভাবে নির্ণয় করা চ্যালেঞ্জিং।'' এক্ষেত্রে স্মার্ট ঘড়ির ডেটা রোগের প্রাথমিক শনাক্তকরণে সহায়তা করার জন্য একটি দরকারী স্ক্রিনিং সরঞ্জাম হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে। এর মানে হল যে রোগটি মস্তিষ্কের ব্যাপক ক্ষতি করার আগে রোগীর চিকিৎসা শুরু করা যেতে পারে। পারকিনসন্স মস্তিষ্কের কোষগুলিকে প্রভাবিত করে যা ডোপামিনার্জিক নিউরন নামে পরিচিত, মস্তিষ্কের সাবস্ট্যান্টিয়া নিগ্রা নামক এলাকায় এটি অবস্থিত। পার্কিনসন্স কাঁপুনি, শারীরিক অনমনীয়তা (কঠোরতা) এবং নড়াচড়ার গতি ধীর করে দেয়।

বিজ্ঞাপন
যখন এই অবস্থার লক্ষণগুলি প্রকাশ পেতে শুরু করে তখন সাবস্ট্যান্টিয়া নিগ্রার অর্ধেকেরও বেশি কোষ মৃত হয়ে যায় বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা। 

নতুন ইউকে বায়োব্যাঙ্কের গবেষণায় ১০৩,৭১২ জনের কাছ থেকে সংগৃহীত তথ্য বিশ্লেষণ করেছেন গবেষকরা, যারা ২০১৩-১৬ সালে সাত দিনের জন্য একটি মেডিকেল-গ্রেডের স্মার্ট ঘড়ি পরেছিলেন। ডিভাইসগুলি সপ্তাহব্যাপী সময় ধরে ওই ব্যক্তিদের গড় ত্বরণ পরিমাপ করেছেন। বিজ্ঞানীরা এমন একদল লোকের ডেটা তুলনা করেছেন যারা ইতিমধ্যেই পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। অন্য গ্রুপের ব্যক্তিদের স্মার্ট ঘড়ির তথ্য সংগ্রহ করে সাত বছর আগেই রোগ নির্ণয় করা গেছে। অর্থাৎ AI প্রযুক্তি ব্যবহার করে এমন ব্যক্তিদের শনাক্ত করা গেছে যারা পরবর্তীতে পারকিনসন রোগে আক্রান্ত হবেন। ইউকে ডিমেনশিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট এবং কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসায়েন্স অ্যান্ড মেন্টাল হেলথ ইনোভেশন ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানীরা এই গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন। নেচার মেডিসিন জার্নালে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে।

সূত্র : nottinghampost.com

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

মা-বাবার বিরুদ্ধে মামলা/ 'অনুমতি না নিয়েই কেন জন্ম দিয়েছ?'

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status