ঢাকা, ১৩ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

রকমারি

মানব মস্তিষ্কে 'নিউরালিংক' স্থাপনের পরীক্ষার ছাড়পত্র পেলেন মাস্ক

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ বছর আগে) ২৬ মে ২০২৩, শুক্রবার, ৪:৪৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৬ পূর্বাহ্ন

mzamin

মানবমস্তিষ্কে চিপ প্রতিস্থাপনের পরীক্ষা চালানোর অনুমতি পেল ইলন মাস্কের নিউরালিঙ্ক। মাস্কের স্টার্ট-আপ নিউরালিংক বৃহস্পতিবার বলেছে যে তারা মানুষের মস্তিষ্কে ইমপ্লান্ট পরীক্ষা করার জন্য মার্কিন নিয়ন্ত্রকদের কাছ থেকে অনুমোদন পেয়েছে। নিউরালিংক বলেছে যে ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) থেকে ক্লিনিকাল স্টাডির জন্য ছাড়পত্র তার প্রযুক্তির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রথম পদক্ষেপ, যা মস্তিষ্ককে কম্পিউটারের সাথে সরাসরি ইন্টারফেস করতে সাহায্য করবে। নিউরালিংক টুইটারে একটি পোস্টে বলেছে যে -''আমরা শেয়ার করতে পেরে আনন্দিত যে আমরা মানব দেহে ক্লিনিকাল স্টাডি চালু করার জন্য FDA-এর অনুমোদন পেয়েছি। এটি এফডিএর সাথে নিউরালিংক দলের অবিশ্বাস্য কাজের ফলাফল। ‘’

নিউরালিংক অনুসারে, ক্লিনিকাল ট্রায়ালের জন্য নিয়োগ এখনও খোলা হয়নি। নিউরালিংক ইমপ্লান্টের লক্ষ্য হল মানুষের মস্তিষ্ককে কম্পিউটারের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে সক্ষম করা, মাস্ক ডিসেম্বরে স্টার্ট-আপের একটি উপস্থাপনার সময় একথা বলেছিলেন। তিনি সেই সময়ে বলেছিলেন- ''আমরা আমাদের প্রথম মানব পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত হতে কঠোর পরিশ্রম করছি, এবং স্পষ্টতই আমরা অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করতে চাই। নিশ্চিত হতে চাই যে মানুষের মধ্যে একটি ডিভাইস স্থাপন করার আগে এটি ভালভাবে কাজ করবে।'' 

মাস্ক  গত বছরের শেষের দিকে টুইটার কিনেছিলেন এবং স্পেসএক্স, টেসলা এবং অন্যান্য বেশ কয়েকটি সংস্থারও মালিক তিনি। ২০১৯ সালের জুলাই মাসে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে নিউরালিংক ২০২০ সালে মানুষের উপর তার প্রথম পরীক্ষা করতে সক্ষম হবে।

বিজ্ঞাপন
সংস্থাটি জানিয়েছে, পণ্যের প্রোটোটাইপগুলি একটি মুদ্রার আকারের যা বানরের খুলিতে প্রতিস্থাপন করা হয়। নিউরালিংক প্রেজেন্টেশনে কোম্পানি বেশ কয়েকটি বানরকে সামনে আনে। 

নিউরালিংক ইমপ্লান্টের মাধ্যমে যাদের বেসিক ভিডিও গেমস খেলতে দেখা যায়, স্ক্রিনে কার্সার সরাতে দেখা যায়। মাস্ক বলেছেন যে সংস্থাটি ইমপ্লান্টগুলি ব্যবহার করার চেষ্টা করবে মানুষের দৃষ্টিশক্তি এবং গতিশীলতা পুনরুদ্ধার করার জন্য যারা এই ধরনের ক্ষমতা হারিয়েছে। মাস্ক বলেন, ''আমরা প্রাথমিকভাবে এমন একজনকে সক্ষম করব যিনি পেশীগুলি পরিচালনা করার  ক্ষমতা হারিয়েছেন। আমরা নিশ্চিত যে মেরুদণ্ডের কর্ড বিচ্ছিন্ন কোনো ব্যক্তির সম্পূর্ণ শরীরের কার্যকারিতা পুনরুদ্ধার করা সম্ভব।” 

স্নায়বিক রোগের চিকিৎসার পাশাপাশি মাস্কের লক্ষ্য হল এটা নিশ্চিত করা যে মানুষ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দ্বারা পরিচালিত নয়। অনুরূপ সিস্টেমে কাজ করা অন্যান্য সংস্থাগুলির মধ্যে রয়েছে সিনক্রোন, যারা  জুলাই মাসে ঘোষণা করেছিল যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম মস্তিষ্ক-মেশিন ইন্টারফেস স্থাপন করেছে তারা।

সূত্র : এনডিটিভি

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

মা-বাবার বিরুদ্ধে মামলা/ 'অনুমতি না নিয়েই কেন জন্ম দিয়েছ?'

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status