ঢাকা, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ রজব ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছিলেন ফুটপাথে, নার্স এনে প্রসব করালো পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, বুধবার

সোমবার রাত সাড়ে ৯টা। চট্টগ্রাম নগরীর জামালখান মোড়ের অন্ধকার গলির এক জায়গা থেকে নারীকণ্ঠে ভেসে আসছিল গোঙানির শব্দ। অনেকেই পাশ কাটিয়ে গেছেন, কৌতূহলে আবার পথচারীদের কেউ কেউ উঁকি মেরেও দেখছিলেন। দু’একজন খেয়াল করে দেখলেন, ওই নারী মূলত প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছেন। সেই কাতরানি বাড়ছে মিনিটে মিনিটে। এমন দৃশ্য দেখে প্রান্ত নামের এক পথচারী জাতীয় জরুরি সহায়তা সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে ঘটনাটি জানান। ঢাকা ঘুরে সেই খবর চলে আসে জামালখান এলাকায় থাকা কোতোয়ালি থানা পুলিশের একটি টহল টিমের কাছে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় ওই টিম। উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোস্তফা খেয়াল করে দেখেন, ওই নারী বাচ্চা প্রসবের শেষ মুহূর্তে অতিক্রম করছেন। রক্তপাত হচ্ছিল তার শরীর থেকে।

বিজ্ঞাপন
কাকতালীয়ভাবে পাশেই ছিল ‘ইনোভা’ নামের একটি বেসরকারি হাসপাতাল।

 এসআই মোস্তফাসহ তার পাঁচ সদস্যের টিম দৌড়ে যান সেই হাসপাতালে। বুঝিয়ে বলতেই জরুরি চিকিৎসা সরঞ্জামসহ নার্সরা দ্রুত পৌঁছে যান ‘বীর চট্টলা’ রেস্টুরেন্টের পাশের গলির সেই জায়গায়। নার্সদের চেষ্টা, পথচারীদের উৎকণ্ঠা মাড়িয়ে এর মিনিট দশেকের মাথায় জামালখান মোড়ে রাস্তার উপরে ওই নারীর গর্ভ ছিঁড়ে বেরিয়ে আসে ফুটফুটে এক নবজাতক ছেলে সন্তান। কিন্তু মায়ের অবস্থা তখন খুবই খারাপ। ‘ইনোভা’ নামের সেই বেসরকারি হাসপাতালে সেই পরিস্থিতি সামাল দেয়ার মতো অবস্থা নেই। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিজেদের একটি এম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করে দেন। এরপর সেই এম্বুলেন্সে মা ও নবজাতককে নিয়ে এসআই মোস্তফা ও তার টহল টিম গেলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। মা-ছেলে এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। 

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি জাহিদুল কবির মানবজমিনকে বলেন, ওই নারীর প্রচুর রক্তপাত হওয়ায় তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে এম্বুলেন্সযোগে উক্ত নারীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রমের দায়িত্ব নেন। বাচ্চা ও মা বর্তমানে সুস্থ আছে। এ ব্যাপারে হাসপাতালকে অবহিত করা হয়েছে। এভাবে বাংলাদেশ পুলিশের সকল ইউনিটের সদস্যগণ সার্বক্ষণিক অসহায় মানুষের পাশে থাকবে।

পাঠকের মতামত

আলহামদুলিল্লাহ, যিনি ৯৯৯ এ জানিয়েছেন, জরুরী সেবা সংশ্লিষ্ট পুলিশ এবং উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের বাস্তবিক তৎপরতায় নারসদের সেবায় আল্লাহ পাক বাচিয়েছেন,জাযাকাল্লাহ খায়ের।

Nurul Alam Tipu
১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ৯:১৯ অপরাহ্ন

সব সময় পুলিশের অপকর্মের খবরের মাঝে এধরনের মানবিক কর্মকাণ্ডের খবর আশা জাগায়। আমার ধারণা অধিকাংশ পুলিশ সদস্য ভালো কিন্তু পরিস্থিতি এবং প্রশাসনিক দুর্নীতির কারণে উনারা প্রশ্নবিদ্ধ।

মাহমুদ
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ৭:২২ পূর্বাহ্ন

Hattsoff To Bangladesh Police.

Shahriar
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন

Thank you all for yours humanities response. Really it is very appreciated.

sayadur Rahman
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, বুধবার, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

Thanks all the police members and hospital authorities for their sincere dedication to save lives.

Zia
২৪ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

GOD BLESS ALL OF YOU. REALLY GOOD PEOPLE STILL ALIVE.

Farid ahmed
২৪ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ১১:১৯ অপরাহ্ন

Really remarkable. Allah bless all.

Rana
২৪ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ৮:৩৩ অপরাহ্ন

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status