ঢাকা, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ রজব ১৪৪৪ হিঃ

বিশ্বজমিন

রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে আলোচিত বন্দী বিনিময়

মানবজমিন ডেস্ক

(১ মাস আগে) ৯ ডিসেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ৪:৫২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

mzamin

যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে আলোচিত বন্দী বিনিময়। উভয় দেশই একে অপরের একজন করে নাগরিককে কারাগার থেকে মুক্তি দিয়েছে। বন্দী মুক্তির সংখ্যা মাত্র দুই জন হলেও, এর দিকে নজর ছিল গোটা বিশ্বের। যুক্তরাষ্ট্রের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন রুশ ব্যবসায়ী ভিক্টর বাউট। বিনিময়ে রাশিয়া ছেড়ে দিয়েছে মার্কিন বাস্কেটবল তারকা ব্রিটনি গ্রিনারকে।

বিবিসি ও আরটির খবরে জানানো হয়েছে, ভিক্টর বাউটকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। তিনি এরইমধ্যে ১২ বছর কারাবন্দী ছিলেন। অপরদিকে মাদক পাচারের অভিযোগে রাশিয়ায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন ব্রিটনি গ্রিনার। অভিযোগ প্রমাণের পর তাকে ৯ বছরের কারাদণ্ড দেয় রুশ আদালত। সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবু ধাবি বিমানবন্দরে এই বিনিময় সম্পন্ন হয়। এই বন্দী বিনিময় নিয়ে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে দীর্ঘ আলোচনা চলছিল।

এ নিয়ে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ওয়াশিংটন বারবার ভিক্টরকে মুক্তি দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
কিন্তু রুশ ফেডারেশন নিজেদের নাগরিককে উদ্ধার করতে সক্রিয়ভাবে কাজ করে গেছে। অপরদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এক টুইট বার্তায় ব্রিটনির মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি ফোনে ব্রিটনির সঙ্গে কথা বলেছেন। ভিক্টর এবং ব্রিটনি উভয়কেই তাদের স্বদেশের তরফ থেকে দায়মুক্তি দেয়া হয়েছে। এরফলে তাদেরকে আর স্বদেশে ফিরে সাজা ভোগ করতে হবে না। 

গ্রিনারের মুক্তির খবর ছড়িয়ে পড়তেই তার ভক্ত, সমর্থক, প্রিয়জন ও মার্কিন কর্মকর্তারা স্বস্তি প্রকাশ করেন। তাকে দেশে ফেরাতে কয়েক মাস ধরে প্রচার চালানো হচ্ছিল। গাঁজার নির্যাস বহনের অভিযোগে গ্রিনারকে গত ফেব্রুয়ারি মাসে মস্কোর একটি বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার করা হয়। অলিম্পিকে দুবার স্বর্ণপদক জিতেছেন মার্কিন বাস্কেটবল তারকা গ্রিনার।

রুশপন্থী টেলিগ্রাম চ্যানেলগুলোতে বন্দী বিনিময়ের ভিডিও পাওয়া গেছে। এতে দেখা যায়, আবুধাবিতে রাশিয়ার একটি উড়োজাহাজ থেকে নামছেন গ্রিনার। তাকে একজন মার্কিন কর্মকর্তা স্বাগত জানাচ্ছেন। অন্যদিকে বাউটকে স্বাগত জানান দুই রুশ কর্মকর্তা। এই রুশ কর্মকর্তাদের চেহারা ঝাপসা করে দেয়া হয়েছে। দুবাই থেকে বাউটকে রাশিয়া নিয়ে আসা হয়েছে। সেখানে মস্কো বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান তার মা ও স্ত্রী। তার স্ত্রীকে তাকে জড়িয়ে ধরতে ও ফুল দিয়ে বরণ করতে দেখা যায়। 

২০০৮ সালে থাইল্যান্ড থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল ভিক্টর বাউটকে। এসময় সেখানে একটি অভিযান চালায় যুক্তরাষ্ট্রের ডিইএ। তাকে এরপর যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণ করা হয়। সেখানে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়। তবে নিজের বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন তিনি।

হুইলান নামের আরেক মার্কিন নাগরিকের মুক্তি নিয়েও রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এ নিয়ে এখনও কোনো সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেনি দুই দেশ। ব্রিটনি গ্রিনারের মুক্তি নিশ্চিতে যারা রাশিয়ার সঙ্গে দর কষাকষি চালিয়ে গেছেন তাদের ‘কঠোর পরিশ্রমের’ জন্য ধন্যবাদ দিয়েছেন বাইডেন। 

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status