ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

শরীর ও মন

ক্যান্সারের যে লক্ষণগুলো জানা জরুরি

মাহমুদুল হাসান সরদার
২৮ নভেম্বর ২০২২, সোমবারmzamin

ক্যান্সারের সেরা চিকিৎসা হলো প্রতিরোধ। লক্ষণ জানা থাকলে ক্যান্সার প্রতিরোধ করা ও চিকিৎসা নেয়া সহজ হয়। 

লক্ষণ

দীর্ঘস্থায়ী ক্লান্তি: দীর্ঘ সময় ধরে ক্লান্তিবোধ করা বা অবসাদে ভোগা অনেক রোগের মতো হতে পারে ক্যান্সারের লক্ষণও। সাধারণত মলাশয়ের ক্যান্সার বা রক্ত ক্যান্সার হলে এমন  লক্ষণ দেখা যায়। 

হঠাৎ শরীরের ওজন কমে যাওয়া:  কোনো কারণ ছাড়া হঠাৎ করে দ্রুতগতিতে যদি ওজন কমে যেতে থাকে, তাহলে বিষয়টি গুরুত্বসহকারে নিতে হবে।  

দীর্ঘদিনের ব্যথা: দীর্ঘদিন কোনো কারণ ছাড়া শরীরের কোনো জায়গায় ব্যথায় ভোগা এবং সেই ব্যথায় ওষুধ কাজ না করলে বিষয়টিকে গুরুত্বসহকারে নিতে হবে। শরীরের কোন জায়গায় ব্যথা করছে, তার ওপর নির্ভর করে রোগী ব্রেইন টিউমার, ডিম্বাশয়, পায়ুপথ নাকি মলাশয়ের ক্যান্সার বা অন্য কিছুতে আক্রান্ত। 

অস্বাভাবিক মাংসপিণ্ড: যদি শরীরের কোনো অংশে অস্বাভাবিক মাংসপিণ্ড বা মাংস জমাট হতে দেখেন কিংবা এ ধরনের পরিবর্তন বুঝতে পারেন, তবে বিলম্ব না করে চিকিৎসক দেখান।  

বারবার জ্বর: শরীরে ক্যান্সারের কারণে স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধক্ষমতা নষ্ট হয় বলে বারবার জ্বর দেখা দেয়। আবার কিছু ক্যান্সারের শেষ পর্যায়ের উপসর্গই ঘন ঘন জ্বর। তবে ব্লাড ক্যান্সারসহ এ ধরনের কিছু ক্যান্সারের প্রাথমিক পর্যায়ে ঘন ঘন জ্বর দেখা দেয়। 

ত্বকে দৃশ্যমান পরিবর্তন: ত্বকের অস্বাভাবিক পরিবর্তন ত্বকের ক্যান্সার শনাক্ত করার সহজ উপায়। তাই ত্বকে অতিরিক্ত তিল বা ফ্রিকেল অথবা আঁচিলের দিকে খেয়াল করুন। এগুলোর রং ও আকারে পরিবর্তন দেখা দিলে চিকিৎসকের কাছে যান।

বিজ্ঞাপন
ত্বক লালচে হয়ে যাওয়া, ফুসকুড়ি হওয়া এবং রক্তক্ষরণও অন্যান্য ক্যান্সারের উপসর্গ। 

দীর্ঘস্থায়ী কাশি: যদি দেখেন যে, ওষুধ সেবনের পরও কাশি সারছে না এবং কাশির কারণে বুক, পিঠ বা কাঁধে ব্যথা করে, তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এটিও ক্যান্স একটি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ। 

মলমূত্র ত্যাগের অভ্যাসে পরিবর্তন: হঠাৎই মলত্যাগের অভ্যাস পরিবর্তন, মল কালো রঙের বা মলের সঙ্গে রক্ত যাওয়া, ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্য বেড়ে যাওয়া সাধারণত মলাশয়ের ক্যান্সারের লক্ষণ। মূত্রত্যাগের সময় অন্ত্রে ব্যথা বা রক্তক্ষরণ মূত্রথলির ক্যান্সারের উপসর্গ।  

অকারণে রক্তক্ষরণ: যদি কাশির সময় রক্তক্ষরণ হয়, তবে তা ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে। এ ছাড়া নারীদের জননাঙ্গ বা মলদ্বার থেকে রক্তক্ষরণসহ এ ধরনের অন্যান্য অস্বাভাবিকতাও ক্যান্সারের উপসর্গ হতে পারে। 

খাবার গিলতে বা খেতে সমস্যা: নিয়মিত বদহজম হওয়া পেট, কণ্ঠনালি বা গলার ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে। ক্যান্সারের আরও কিছু লক্ষণ হলো পা ফুলে যাওয়া, শরীরের আকারের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি বা পরিবর্তন ইত্যাদি। 

 

লেখক: ক্যান্সার চিকিৎসক ও চিফ কনসালট্যান্ট, সরদার হোমিও হল, ৬১/সি, আসাদ এভিনিউ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭। যোগাযোগ: ০১৭৪৭৫০৫৯৫৫

শরীর ও মন থেকে আরও পড়ুন

শরীর ও মন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status