ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

রকমারি

ভারতীয় তেলেভাজার প্রেমে পড়ে এক ব্রিটিশ দম্পতি সদ্যোজাতের নাম রেখেছেন ‘পকোড়া’!

(৩ সপ্তাহ আগে) ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, রবিবার, ৩:০১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:২১ পূর্বাহ্ন

একটি সন্তানের নামকরণ পিতামাতার সবচেয়ে সুদূরপ্রসারী কাজ। নামকরণ এমন একটি বিষয় যা সেই শিশুকে পরিচয় করিয়ে দেয় সমাজের সঙ্গে। এই কারণেই বেশিরভাগ বাবা-মায়েরা জন্মের আগেও শিশুর নামকরণের জন্য বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে। অনেক দম্পতি তাদের পরিবারের গুরুজন, বন্ধুবান্ধব বা পরামর্শদাতার পরামর্শ নেয়। অন্যরা তাদের অনুপ্রেরণা, কখনো বা নিজের পছন্দের দিকে মনোনিবেশ করে।একটা সময় ছিল যখন বাবা-মায়েরা সন্তানের নাম বাছাই করতে বা চূড়ান্ত করার জন্য নামের বই কিনতেন। সেই অভ্যাসটি এখন অনেকটাই পাল্টেছে ইন্টারনেটের দৌলতে।  শুনতে অবাক লাগলেও, সদ্যোজাত পকোড়াকে নিয়ে এখন নেটদুনিয়ায় হইচই পড়ে গিয়েছে। আসলে আপনি একটি বিখ্যাত ব্যক্তি, স্মৃতিস্তম্ভ, স্থান বা কাল্পনিক চরিত্রের নামে একটি শিশুর নাম শুনে থাকতে পারেন। কিন্তু আপনি কখনো  শুনেছেন যে একটি শিশুর নাম তাদের পিতামাতার প্রিয় খাবারের নামে রাখা হয়েছে?আয়ারল্যান্ডের নিউটাউনঅ্যাবেতে একটি রেস্তরাঁ রয়েছে। সেই রেস্তরাঁয় এক ব্রিটিশ দম্পতি প্রায় খেতে আসতেন।

বিজ্ঞাপন
 সেখানে যাতায়াত করতে করতেই তাঁদের মাথায় আসে তাঁদের প্রিয় সন্তানের নাম কোনও খাবারের নামে রাখলে কেমন হয় ? ওই রেস্তরাঁয় দম্পতির প্রিয় খাবারের মধ্যে একটি ছিল পকোড়া। ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় তেলেভাজা। আর এই নামেই অনুপ্রাণিত হন তাঁরা। আর সাত-পাঁচ না ভেবে সদ্যোজাত কন্যাসন্তানের নাম রাখেন পকোড়া। নেটিজেনরা এই দম্পতিকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন। পকোড়ার জন্ম ২৪ অগস্ট।  আয়ারল্যান্ডের রেস্তরাঁ বিলের একটি ছবি শেয়ার করে সেখানে লেখা রয়েছে, ‘আমার স্ত্রী আমাদের সদ্যোজাত কন্যার নাম রেখেছে পকোড়া। অন্যদিকে রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষ সদ্যোজাতকে অভিনন্দন জানিয়ে লিখেছে - ‘তোমাকে স্বাগত পকোড়া।  দেখা করার অপেক্ষায় রইলাম।’

সূত্র :  টাইমস নাও
 

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

রকমারি থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status