ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

খেলা

যে কারণে টি-টোয়েন্টি ব্যাটিংয়ে ব্যর্থ টাইগাররা

স্পোর্টস রিপোর্টার
১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার

বোলিং মেশিন থেকে ছুটে আসছে তিব্র গতিতে বল। সাকিব আল হাসান তাতে ব্যাট চালিয়ে হাঁকাচ্ছেন চার-ছক্কা। তবে সব বলেই তিনি তা পারছেন না। একই অনুশীলন করলেন দেশের আরেক ব্যাটিং ভরসা মুশফিকুর রহীমও। মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে দেশের দুই তারকা পাওয়ার হিটিং নিয়ে দারুণ ব্যস্ত। কারণ আর কিছুই নয় অন্যদেশের বড় মত বলে বলে চার ছয় মারার সক্ষমতা খুব একটাই নেই বাংলাদেশের ব্যাটারদের। এখানে সব দেশের তুলনায় টাইগারদের টি- টোয়েন্টি ব্যাটিংয়ে বড় পার্থক্য। গতকাল এই দুই জনের অনুশীলনে উপস্থিত ছিলেন তাদের ছোট বেলার কোচ নাজমুল আবেদিন ফাহিম। শিষ্যদের খুটিনাটি নানা দূর্বলতা নিয়ে অনেক দিন থেকেই কাজ করছেন তিনি। তবে শুধু সাকিব-মুশফিকরা ভালো করলেইতো হবেনা দলের অন্য ব্যটারদেরও সমান অবদান রাখতে হবে।

বিজ্ঞাপন
দেশের সেরা কোচ ফাহিম জানালেন কেন টাইগার ব্যাটাররা ব্যর্থ হচ্ছে টি-টোয়েন্টিতে। তিনি বলেন, ‘দেখেন টেস্ট বা ওয়ানডের মত টি-টোয়েন্টির ব্যাটিং না। এখানে স্কোর বোর্ডের সঙ্গে তাল রেখে ব্যাট করতে হয়। যাতে আমরা এখনো অভ্যস্ত নই।  এতদিন আমরা টি-টোয়েন্টি খেলেছি ওয়ানডে ক্রিকেটের একটি ক্ষুদ্র সংস্করণ হিসেবে। আমরা ১২ বলে ১২ রান দরকার হলে কি করতে হবে সেটি করতে পারিনা। স্কোর বোর্ড দেখে যে ব্যাটি সেটিও আমাদের হয়না। তবে এখন বুঝতে পারছি। পরিবর্তন আসছে আমাদের। আশা করি খেলতে খেলতেই শিখে যাবে সব।’ 
অন্যদিকে এশিয়া কাপে দল ঘোষণার পর থেকে জোর আলোচনায় ওপেনিং বিভাগ। কারণ দলে স্বীকৃত ওপেনার বলতে শুধু এনামুল হক বিজয় ও পারভেজ হোসেন ইমন। তবে এরই মাঝে জাতীয় দলের ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন জানিয়েছেন ওপেনিং সাকিব ও মুশফিককেও দেখা যেতে পারে। তবে নাজমুল আবেদিন ফাহিম পরিবর্তনের পক্ষে হলেও তিনি চান স্বীকৃত ওপেনারই নিজেদের দায়িত্ব পালন করুক। তিনি বলেন, ‘আসলেই (মুশফিক-সাকিব ওপেনিং) করবে কি না জানি না। কারণ দুজন স্বীকৃত ওপেনার আছে আমাদের দলে। আলোচনাটা যদি মুশফিককে নিয়ে বেশি করি, ওই দুজন খুব একটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবে না। আমার মনে হয় দুজনকেই ব্যাক করা উচিত, যেন ওরা ভালো করতে পারে। সেটা পারলে সেরা হবে। যদি ওদের মধ্যে কেউ ব্যর্থ বা অসুস্থ হয় তাহলে হয়তো মেক শিফট অপশনের ব্যাপার আসবে। সেখানে বোধ হয় অনেক অপশন আছে আমাদের হাতে যারা নরমালি নিচে খেলে কিন্তু প্রয়োজনে ওপেন করেছে। মুশফিকও হতে পারে, ও যখন খেলা শুরু করেছিল, বিকেএসপিতে ওপেনার হয়েই এসেছে এটা আমি জানি ব্যক্তিগতভাবে। পরে ক্যারিয়ারের কারণে ও মিডল অর্ডারে চলে এসেছে। অবশ্যই  ও মিডল অর্ডারের একজন ব্যাটার, ওপেন করাটা সবসময় চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। আমি জানি না ও নিজেকে কতটা প্রস্তুত করতে পারবে। কিন্তু ওর অভিজ্ঞতাটা কাজে লাগবে। যদি দরকার হয় মুশফিক ও অন্যরাও আছে।’ 
অন্যদিকে গতকাল নাজমুল আবেদিন মাঠে থেবেই দুই শিষ্য সাকিব ও মুশফিকের ব্যাটিং দেখেছেন। কথাও বলেছেন তাদের সঙ্গে। দু’জনের সঙ্গে কি আলোচনা হলো তা নিয়ে তিনি বলেন, ‘ বিশেষ কিছু না। ওরা ব্যাট করছে, ওদের কোচের সঙ্গে ওরা কাজ করছে। সামনে একটা বড় টুর্নামেন্ট আছে, সেটার প্রস্তুতি চলছে। এমনিতেই ডাকা। যেহেতু এখানে আছি, তাই এসে দেখা করা। বিশেষ কিছু না। ওদের সঙ্গে আমি আগেও কাজ করেছি। কাজ নিয়ে যে খুব একটা আলাপ হয়েছে তেমন না, অন্য বিষয়ে কথা হয়েছে।’
এছাড়াও সাকিব টি-টোয়েন্টি ব্যাটিংয়ে অনেক দিন থেকেই নিজের ছন্দ খুঁজে পাচ্ছেননা। তবে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হওয়ার পর তার যে ব্যাটিং অনুশীলন সেখানে তাকে বেশ মারিয়াই মনে হচ্ছে ফর্ম ফিরে পেতে। এ বিষয়ে সাকিবের সঙ্গে কি কথা হলো তা নিয়ে ফাহিম বলেন, ‘ছোটখাটো কথাবার্তা তো হয়ই। স্বাভাবিকভাবেই বড় আলাপ আলোচনা (না)। দেখতে পাচ্ছিলাম যে ভালো বল হিট করছিল। সেটা নিয়েই একটু আলাপ হচ্ছিল। খুব বিশেষ কিছু না। যেহেতু ওদের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা একটু ভিন্ন ধরনের। এগুলো নিয়ে সবসময় আলাপ হয়। ভালো করলে সেটা বলা যে ভালো হচ্ছে, ভালো না করলে  কোন জায়গায় একটু ভালো করার সুযোগ আছে, এটা নিয়ে আলাপ করা। যেহেতু ওদের ইন্টিলেন্সটা আমি জানি। কোথায় একটু পরিবর্তন হয়েছে, মনে করিয়ে দেওয়া।’

 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

খেলা থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status