ঢাকা, ১৪ জুলাই ২০২৪, রবিবার, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

প্রথম পাতা

সিলেক্টেড কয়েকজনের হাতে রাষ্ট্র জিম্মি

স্টাফ রিপোর্টার
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবারmzamin

খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ ড. রেহমান সোবহান বলেছেন, বাংলাদেশে এক শ্রেণির মানুষের   আবির্ভাব ঘটেছে। তারা শুধু রাষ্ট্রকে জিম্মিই করেনি, একই সঙ্গে নিজেরাই রাষ্ট্র হয়ে উঠেছেন। ‘পলিটিক্যাল ইকোনমি অব ব্যাংকিং সেক্টর অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক সেমিনারে সোমবার তিনি এ কথা বলেন। রেহমান সোবহান আরও বলেন, এর বিরুদ্ধে এখন কিছু করা খুব কঠিন হয়ে পড়েছে। কারণ, এই শ্রেণি এখন আমলাতন্ত্রের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। সমাজ গবেষণা কেন্দ্র আয়োজিত ভার্চ্যুয়াল ইভেন্টে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সৃষ্টির সময় যাকে আমরা একটি মধ্যবর্তী শাসন (ইন্টারমিডিয়েট রেজিম) হিসেবে শ্রেণি-ভাগ করেছিলাম তা এখন পরিণত হয়েছে পূর্ণমাত্রায় পুঁজিবাদী শাসনে। একে শুধু কিছু পুঁজিবাদীই জিম্মি করেননি। একই সঙ্গে বিশেষ শ্রেণির একটি অংশও জিম্মি করেছেন। সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের চেয়ারম্যান রেহমান সোবহান কার্যকর সুদহারের বিষয়েও কথা বলেন। তিনি বলেন, যদি ১০ অথবা ১৫ বছরে ঋণ শোধ করা না হয়, তখন প্রকৃত সুদহার অনেক কম হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে আপনি ঋণ পরিশোধ করছেন কিনা তার ওপর নির্ভর করে সুদের হার ব্যাপকভাবে অসম হয়ে যায়। খেলাপি ঋণের সংস্কৃতি সুদের হার নির্ধারণে বিকৃতি সৃষ্টি করেছে। রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতায় ঋণ দেয়া প্রধান মাপকাঠিতে পরিণত হয়েছে। যদি আপনি রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষক শ্রেণিকে ঋণ দেন, তাহলে ওই পৃষ্ঠপোষক পরে একটি রাজনৈতিক উৎসে বা সম্পদে পরিণত হয়। তখন রাজনৈতিক ওই উৎস ব্যবহার করে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, আপনার ঋণ কার্যকরভাবে সংগ্রহ করা হবে না। যখন এমনটা ঘটে তখন ওই শ্রেণিটি আরও ক্ষমতায়িত হয়ে ওঠে। এভাবে তারা রাজনৈতিক সক্ষমতা এবং রাজনৈতিক শক্তি অর্জন করে। 
রেহমান সোবহান আরও বলেন, এভাবে আপনি তখন একটি বানোয়াট পুঁজিবাদী শ্রেণি থেকে একটি প্রকৃত শক্তিশালী এবং সুপ্রতিষ্ঠিত পুঁজিবাদ শ্রেণিতে পরিণত হন, যা রাজনৈতিক ক্ষমতার চর্চা করে। এখানে আত্মীয়করণ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হয়ে উঠেছে। কারণ, সব পুঁজিবাদী শ্রেণিকে আধিপত্যবাদী সৃষ্টি করা হলে তাদের মধ্যে কিছু মানুষ অন্যদের থেকে আরও অধিক আধিপত্যবাদী হয়ে ওঠেন। এটাই সমস্যার প্রকৃতি।   
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন  কোর্টল্যান্ড স্টেট ইউনিভার্সিটি অব নিউ ইয়র্কের অর্থনীতির প্রফেসর বিরু প্রকাশ পাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির প্রফেসর এমএম আকাশ, সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অন ইকোনমিক মডেলিংয়ের নির্বাহী পরিচালক সেলিম রায়হান।

পাঠকের মতামত

যথার্থ বলেছেন

কনক
১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ৩:৪৭ অপরাহ্ন

দেশে ভারত বান্ধব শক্তির ক্ষমতায় আনারা ব্যাপারে এই ভদ্রলোকের বহু অবদান আছে।

আব্দুল মালেক
১১ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৮:৫৯ অপরাহ্ন

এই লোকগুলো আওয়ামী লীগ থাকলে যত অনিয়ম ও দুর্নীতি হোক না কেন ক্লিয়ারভাবে কিছু বলবে না। এটা জাতির জন্য দুর্ভাগ্য।

শওকত আলী
১১ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

স্যারের তো চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই।‌ শুধু একটু সাহসী হয়ে নামগুলো বলে দিলে জাতি উপকৃত হতো

belal
১১ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন

১৯৭১ সালে ভারতের সাথে হাত মিলিয়ে পাকিস্তান ভাঙার সময় মনে ছিলোনা ?

mohd. Rahman ostrich
১১ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৭:১১ পূর্বাহ্ন

সহমত পোষণ করছি।

Azmal Hossain
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবার, ৮:৫১ অপরাহ্ন

রাষ্ট্র এখন সঙ্ঘবদ্ধ দানবচক্র আর গিনিপিগের পালে ভাগ হয়ে গেছে।

আকবর আলী
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবার, ৪:২৪ অপরাহ্ন

স্যারের তো চাওয়া পাওয়ার কিছু নেই।‌ শুধু একটু সাহসী হয়ে নামগুলো বলে দিলে জাতি উপকৃত হতো।‌

Andalib
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবার, ২:৪৯ অপরাহ্ন

অত্যন্ত বাস্তব সত্য কথা।

Farid Ahmed
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবার, ১২:৪৮ অপরাহ্ন

স্যার, অন্তত মেধা তালিকায় প্রথম ১০ জনের নাম ঘোষণা করতে পারতেন

Md Chowdhury
১০ জুলাই ২০২৪, বুধবার, ৯:৫১ পূর্বাহ্ন

প্রথম পাতা থেকে আরও পড়ুন

   

প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status