ঢাকা, ১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

বাংলারজমিন

কোটি টাকা নিয়ে উধাও প্রতারক দম্পতি

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি
১০ জুন ২০২৪, সোমবারmzamin

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে ফরহাদ হোসেন ও সানজিদা নামে প্রতারক দম্পতি। এরা ঘাটাইলের চুহালিয়াবাড়ি গ্রামের বেলায়েত হোসেনের ছেলে ও পুত্রবধূ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সাত্তার বাদী হয়ে প্রতারণার অভিযোগ এনে ৬ই জুন টাঙ্গাইল সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা  দায়ের করেন। মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, প্রতারক ফরহাদ ও তার স্ত্রী সানজিদা আক্তারের যোগসাজশে ব্যবসায়ী সাত্তারের সঙ্গে কৌশলে সখ্যতা গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে তারা ওই ব্যবসায়ীর কাছে ভারত থেকে স্থলপথে ভুট্টা, গম ও গো-খাদ্য আমদানি করতে এলসি খোলার সমস্যা ও ডলার সংকটের কথা জানায়। ব্যবসায়ী সাত্তার তাদের কথায় বিশ্বাস  করেন। এতে ফরহাদ ও সানজিদা দম্পতিকে ৬ কিস্তিতে সাড়ে ৯৫ লাখ টাকা দেন। পরে ব্যবসায়ীকে ওই দম্পতি কোন মালামাল না দিয়ে হঠাৎ করে আত্মগোপনে চলে যান। এতে ব্যবসায়ী সাত্তারের মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ে। ওই প্রতারক দম্পতির চুহালিয়াবাড়ি গ্রামে শনিবার গিয়ে তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন
পরে প্রতিবেশী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুনের কাছে জানতে চাইলে বলেন, ওর (ফরহাদ) কাজই প্রতারণা আর ধান্ধাবাজি করা। তার বিরুদ্ধে শুধু এলাকায় নয়, দেশের বিভিন্ন জেলার লোকদের কাছ থেকে প্রতারণা করে কোটি কোটি টাকা নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। তিনি একেক সময় একেক জায়গায় আত্মগোপনে থাকে। ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সাত্তার মিয়া জানান, তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনই নিয়মিত আমার দোকানে আসতো। তাদের আচরণে আমি মুগ্ধ হই। ভারত থেকে এলসির মাধ্যমে ব্যবসা বাণিজ্য করে বলে জানান। পরে এলসির কথা বলে ২/৩ দিনের জন্য আমার কাছ থেকে প্রায় কোটি টাকা নেয় তারা। আমি আগে জানতাম না যে তারা এত বড় প্রতারণা করবে। আমি এখন আমার ব্যবসায়ের সমুদয় টাকা দিয়ে একেবারে পথে বসেছি।
 

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status