ঢাকা, ২২ মে ২০২৪, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

অনলাইন

ছবি যখন কথা বলে

মানবজমিন ডিজিটাল

(১ মাস আগে) ১৯ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৮ পূর্বাহ্ন

mzamin

পাঁচ বছরের একরত্তি ভাইঝির মৃতদেহ জড়িয়ে বসে আছেন এক ফিলিস্তিনি নারী। সেই মুহূর্তকে ফ্রেমবন্দি করে ২০২৪ সালের ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো অফ দ্য ইয়ার পুরস্কার জিতে নিলেন রয়টার্সের মোহাম্মদ সালেম। ছবিটি ২০২৩ সালের  ১৭ অক্টোবর তোলা হয়েছিল, দক্ষিণ গাজার খান ইউনিসের নাসের হাসপাতালে। যেখানে হতভাগ্য পরিবারগুলো ফিলিস্তিনি ছিটমহলে ইসরাইলি বোমা হামলার সময় নিহত আত্মীয়দের সন্ধান করছিল। সালেমের ছবিতে যে নারীকে দেখা গেছে তিনি ইনাস আবু মামার (৩৬)। তিনি হাসপাতালের মর্গে বসে ভাইঝি স্যালির চাদর-ঢাকা দেহটি বুকে আগলে ধরে অঝোরে কাঁদছেন। রয়টার্সের ছবি এবং ভিডিওর গ্লোবাল এডিটর, রিকি রজার্স আমস্টারডামে এক অনুষ্ঠানে বলেন, মোহাম্মদ সালেমকে যখন ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো অফ দ্য ইয়ার সম্মানে সম্মানিত করা হয় সে বলেছিলো, 'এটি উদযাপন করার ছবি নয়'।  তবে তিনি এই ছবিকে বিশাল সংখ্যক দর্শকদের কাছে পৌঁছে দেবার সুযোগে পেয়ে কৃতজ্ঞ। 

সালেম আশা করেন, এই পুরস্কারের মাধ্যমে বিশ্ব যুদ্ধের মানবিক প্রভাব সম্পর্কে মানুষ আরও সচেতন হবে, বিশেষ করে শিশুদের উপর। আমস্টারডাম-ভিত্তিক ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো ফাউন্ডেশন তার বার্ষিক পুরষ্কার ঘোষণা করে বলেছে, যুদ্ধের খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিকরা যে বিপদের সম্মুখীন হচ্ছেন তা চিহ্নিত করা গুরুত্বপূর্ণ। তারা বলেছে যে, ৭ অক্টোবর হামাস যোদ্ধারা  দক্ষিণ ইসরাইলে আক্রমণ করার পর থেকে ইসরাইল ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধের খবর কভার করতে গিয়ে ৯৯ জন সাংবাদিক এবং সংবাদ কর্মী  নিহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
সংস্থার নির্বাহী পরিচালক জুমানা এল জেইন খুরি বলেছেন, ‘বিশ্বব্যাপী প্রেস এবং ডকুমেন্টারি ফটোগ্রাফারদের কাজ প্রায়শই উচ্চ ঝুঁকির মুখে করতে হয়। গত বছর, গাজায় নিহত সাংবাদিকের সংখ্যা রেকর্ড উচ্চতায় পৌঁছেছে। যুদ্ধের মানবিক প্রভাব বিশ্বকে দেখানোর জন্য তারা যে ট্রমা অনুভব করেছে তার  স্বীকৃতি দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।’ 

বছর ৩৯ এর সালেম একজন ফিলিস্তিনি, ২০০৩ সাল থেকে রয়টার্সের জন্য কাজ করছেন। তিনি ২০১০ সালের ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো প্রতিযোগিতায় একটি পুরস্কারও জিতেছিলেন। জুরি বলেছে যে, সালেমের ২০২৪ সালের বিজয়ী চিত্রটি ‘অকল্পনীয় ক্ষতির আভাস দেয়’। ছবিটি তোলার কয়েকদিন আগে সালেমের স্ত্রী তাদের সন্তানের জন্ম দেন। গার্ডিয়ান নিউজ অ্যান্ড মিডিয়ার ফটোগ্রাফির প্রধান জুরি সদস্য ফিওনা শিল্ডস বলেছেন, 'ছবিটি গভীরভাবে প্রভাবিত করেছে'। জুরি বোর্ড ১৩০টি দেশের ৩৮৫১ ফটোগ্রাফারের তোলা ৬১,০৬২ টি ছবির মধ্যে থেকে সালেমের ছবিটিকে বেছে নেয়।

সূত্র : খালিজ টাইমস

পাঠকের মতামত

এই ছবিটা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছেন সেই ছবিটা কোথায়? এ তো দেখি যার বিয়ে তার খবর নাই পাড়া পড়শীর ঘুম নাই...

মোঃ মাহবুবুর রহমান
১৯ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার, ২:৩৪ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status