ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

খেলা

পালমারের চার গোল, চেলসির জয় আর পেনাল্টি নিয়ে কাড়াকাড়ি

স্পোর্টস ডেস্ক
১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার
mzamin

নিজেদের জালে বল ঢোকেনি একবারও। প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠানো গেছে ৬ বার। ফুটবলের পসরা সাজিয়ে নিখুঁত এক ম্যাচ যাকে বলে আর কী! অথচ সেই ম্যাচেই পেনাল্টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে জড়ালেন চেলসির ফুটবলাররা। তাতে এত সুন্দর জয় ছাপিয়ে সেটাই নিয়ে কথা বলতে হলো চেলসির আর্জেন্টাইন কোচ মাউরিসিও পচেত্তিনোকে। নিজের প্রতিক্রিয়ায় খেলোয়াড়দের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। সোমবার ঘরের মাঠে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের ম্যাচে এভারটনকে ৬-০ গোলে হারায় চেলসি। ২৯ মিনিটের মধ্যে হ্যাটট্রিক পূরণ করা কোল পালমার একাই করেন চার গোল। এদিন স্টামফোর্ড ব্রিজে প্রথমার্ধেই ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। ৬৪তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান আরও বাড়ান পালমার। ২০ গোল নিয়ে এবারের লীগে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে থাকা আর্লিং হালান্দকেও স্পর্শ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
তবে এদিনকার মূল ঝামেলা হয় এই পেনাল্টি থেকেই। এভারটনের বক্সে ননি মাদুয়েকে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। বল হাতে নিয়ে পেনাল্টি নিতে চান মাদুয়েকে নিজেই। তখন এগিয়ে গিয়ে বল চান পালমার। কিন্তু পালমারকে বল দিচ্ছিলেন না মাদুয়েকে। চেলসি অধিনায়ক কনর গ্যালাগার তখন বোঝানোর চেষ্টা করছিলেন মাদুয়েকেকে। এক পর্যায়ে তার কাছ থেকে বল একরকম কেড়ে নিয়ে  পালমারের হাতে তুলে দেন তিনি। এসময় আবার নিকোলাস জ্যাকসন ছুটে এসে পালমারের হাত থেকে বল কেড়ে নিতে চান। এসময় তাকে বেশ জোরে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন পালমার। এক পেনাল্টি নিয়ে তখন তিনজনই দ্বন্দ্বে জড়ান। যদিও শেষ পর্যন্ত পালমারই পেনাল্টি নেন। ম্যাচ শেষে পচেত্তিনো নিশ্চিত করেন দল থেকে এই দায়িত্ব পালমারকেও দেয়া ছিল। পচেত্তিনো বলেন, ‘ফুটবলাররা ও স্টাফরা, সবাই জানে যে, পেনাল্টি নেয়ার দায়িত্ব কোল পালমারের। আজকে যা হলো, এটা নিয়ে আমি এত হতাশ! এত বেশি বিরক্ত! আমাদের দলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার শৃঙ্খলা। আমরা সবাই একমত যে, তারা (জ্যাকসন ও মাদুয়েকে) ভুল করেছে। এই ধরনের আচরণ আমরা দেখাতে পারি না। কোনোভাবেই না। মনে হচ্ছিল ওরা স্কুলের বাচ্চা। কনর গ্যালাগার খুব ভালোভাবে পরিস্থিতি সামলে নিয়েছে।’ যদিও এবার শাস্তি পাচ্ছেন না ফুটবলাররা। তাদের আপাতত সতর্ক করেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পচেত্তিনো বলেন, ‘আমাদের কাজ হলো ওদেরকে দেখিয়ে দেয়া যে, এটা ভুল। এতে তারা শিখতে পারবে। এবার কোনো শাস্তি হচ্ছে না, তবে আবার এরকম হলে তা মেনে নেয়া হবে না। পালমার মাঠে থাকলে পেনাল্টি নেবে সে-ই। ওরা (জ্যাকসন ও মাদুয়েকে) অভিজ্ঞ ফুটবলার নয়, দুজনই তরুণ।  তরুণ ফুটবলাররা কখনো কখনো দলের আগে নিজের কথা ভাবতে পারে। তবে ওদেরকে দ্রুত শিখতে হবে যে, পারফর্ম করতে হয় দলের জন্য। পরের মৌসুমে এই ব্যাপারগুলো আমরা অবশ্যই বিবেচনায় নেবো। তারা যদি শিখতে না পারে, তাহলে আমরা কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবো।’
তিনি আরও বলেন, ‘যে ছবিটি আমরা তুলে ধরেছি, প্রতিটি দেশের যারা দেখেছেন, সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। এই আচরণ মেনে নেয়ার মতো নয় এবং অসাধারণ এক খেলাটিকে লজ্জায় ফেলার জন্য এটা নিয়ে কথা বলতে হবে আমাদের। গোল করার তাড়না অবশ্যই থাকতে হবে ফুটবলারদের, তবে সেটা এরকম পরিস্থিতির জন্ম দিয়ে নয়। আমি এটা মেনে নেবো না, কথা দিচ্ছি।’    
 

খেলা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

খেলা সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status