ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২৩, বুধবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫ হিঃ

রাজনীতি

নির্বাচনে অংশগ্রহণ থেকে বঞ্চিত করতেই নিবন্ধন বাতিলের রায়: জামায়াত

স্টাফ রিপোর্টার

(১ সপ্তাহ আগে) ২০ নভেম্বর ২০২৩, সোমবার, ৮:১৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন

mzamin

আপিল বিভাগে দলের নিবন্ধন বাতিলের রায় বহালের মাধ্যমে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে অংশগ্রহণ থেকে জামায়াতকে বঞ্চিত ও নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি। পাশাপাশি এই ন্যায়ভ্রষ্ট রায় প্রদানে গভীর উদ্বেগও প্রকাশ করেছে দলটি।
সোমবার বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার বৈঠক এসব কথা বলা হয় বলে এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করা হয়েছে। এই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমীর অধ্যাপক মুজিবুর রহমান।

বৈঠকে প্রস্তাবে বলা হয়, জামায়াতের আইনজীবীরা দলের নিবন্ধন মামলার শুনানির জন্য পর্যাপ্ত সময়ের জন্য আদালতে আবেদন করেছিল। কিন্তু তা মঞ্জুর না করে আদালত ১৯ নভেম্বর হরতালের দিন মামলার শুনানির তারিখ ধার্য করেছিল। সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবীরা সাধারণত হরতালের দিন আদালতে যান না। যে কারণে জামায়াতের সিনিয়র আইনজীবীরা মামলার শুনানিতে অংশগ্রহণ করতে পারেননি। এ অবস্থায় তড়িঘড়ি করে জামায়াতের নিবন্ধন সংক্রান্ত মামলায় একটি ন্যায়ভ্রষ্ট রায় প্রদান করা হয়েছে। জামায়াতের কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা অভিমত ব্যক্ত করছে যে, আপিল বিভাগে বিচারাধীন নিবন্ধন মামলাটি শুনানির সুযোগ না দিয়ে খারিজ করে দেয়ায় তা ন্যায় বিচারের মানদণ্ডে গ্রহণযোগ্য নয়। 

‘এ ন্যায়ভ্রষ্ট রায় আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার সরকারি ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নে সহায়ক হবে। এ রায়ের মাধ্যমে জামায়াতকে ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। এ রায়ের মাধ্যমে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে অংশগ্রহণ থেকে জামায়াতকে বঞ্চিত ও নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
সরকার পতনের একদফা আন্দোলন আরো জোরদার করার জন্য জামায়াতের মজলিসে শূরা দলমত নির্বিশেষে দেশের সর্বস্তরের জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছে।’

বৈঠকে আরও বলা হয়, জামায়াতসহ বিরোধী দলগুলো আবার কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করছে। এ দাবি আদায় করার জন্য গোটা জাতি আজ ঐক্যবদ্ধ। জামায়াতকে নির্বাচন থেকে বাইরে রাখার সরকারি কৌশল হিসেবেই ষড়যন্ত্রমূলকভাবে জামায়াতের নিবন্ধন সংক্রান্ত মামলাটি শুনানির সুযোগ না দিয়ে খারিজ করে দেয়া হয়েছে।

 

পাঠকের মতামত

আওয়ামী লীগ তো জামায়াতে ইসলামীকে দলই মনে করেনা। সেজন্য আওয়ামী লীগ মনে করে জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি ও নির্বাচন করার অধিকার নাই। আওয়ামী লীগের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভিসানীতিতে বলা হয়েছে যে বা যারা জনগণের গনতান্ত্রিক ভোটের নির্বাচনে বাধা হয়ে দাঁড়াবে তাদের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে। রাজনীতিক ও বিচার বিভাগের জন্যও তা প্রযোজ্য হবে। কিন্তু বিদায়ী প্রধান বিচারপতি বলেছেন তিনি কখনো আমেরিকা যাননি, ভবিষ্যতেও যাবেননা। আমেরিকা না গেলে কি হবে? সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা বাংলাদেশ ছেড়ে কার মন চায় আমেরিকা যেতে? জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করার জন্য যদি মনে করা হয় তাদের গনতান্ত্রিক ভোটের অধিকার হরণ করা হয়েছে তাহলে সংশ্লিষ্ট কারো ওপর মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলে তাঁরা যদি আমেরিকা যেতে না চায় তাহলে সমস্যা কোথায়?

আবুল কাসেম
২০ নভেম্বর ২০২৩, সোমবার, ৯:০৪ পূর্বাহ্ন

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status