ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

রকমারি

১১ বছরের ছেলে ওড়াচ্ছে বিমান, পাশে বসে বিয়ারে চুমুক দিচ্ছে বাবা, অতঃপর...

মানবজমিন ডিজিটাল

(৮ মাস আগে) ১১ আগস্ট ২০২৩, শুক্রবার, ৫:১৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৭ পূর্বাহ্ন

mzamin

সম্প্রতি ঘটে যাওয়া এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, ১১ বছরের এক বালক অদক্ষ হাতে বিমান ওড়াচ্ছে। পাশে বসে ভিডিও করছেন বাবা, তাঁর হাতে ধরা বিয়ারের বোতল। গত ২৯ জুলাই ব্রাজিলের বাসিন্দা গ্যারন মাইয়া (৪২) এবং তাঁর ছেলে ফ্রান্সিসকো মাইয়া (১১) তাঁদের ব্যক্তিগত টুইন-ইঞ্জিন বিচক্র্যাফ্ট ব্যারন ৫৮-এ চড়েছিলেন। রন্ডোনিয়া এবং মাতো গ্রাসোর মাঝখানে একটি জঙ্গলের মধ্যে ভেঙে পড়ে প্রায় ৯.৯ কোটি টাকার বিমানটি। মৃত্যু হয় দু’জনেরই।

Express.co.uk-এর মতে, দুর্ঘটনায় পিতা-পুত্র জুটি দুঃখজনকভাবে মারা যাওয়ার কয়েক মুহূর্ত আগে ভিডিওটি তোলা হয়েছিল। ভিডিওতে, মাইয়াকে তার ১১ বছর বয়সী ছেলেকে বিয়ারে চুমুক দিতে দিতে বিমান চালানোর নির্দেশনা দিতে এবং বিমানের নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে শেখাতে দেখা যায়।তদন্তকারীরা বলছেন ছেলের সুরক্ষা নিয়ে এতটুকু মাথাব্যথা ছিল না মাইয়ার।  

স্থানীয় ব্রাজিলিয়ান আউটলেটের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, মাইয়া নোভা কনকুইস্তার রন্ডোনিয়া শহরের একটি পারিবারিক খামার থেকে উড়ে এসেছিলেন এবং তারপরে জ্বালানি নিতে ভিলহেনার একটি বিমানবন্দরে থামেন। তিনি তার ছেলেকে ক্যাম্পো গ্রান্ডে, মাতো গ্রোসো ডো সুলে ফিরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন, যেখানে সে তার মায়ের সাথে থাকে। এদিকে স্বামী, পুত্রের মৃত্যুর পর ভেঙে পড়েন গ্যারনের স্ত্রী, আনা প্রিডোনিক। 

১ অগাস্ট তাঁদের শেষকৃত্য সম্পন্ন হওয়ার পরই আনা আত্মহত্যা করেন।

বিজ্ঞাপন
তারপরেই ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে মাঝ আকাশে মদ্যপান করার ভিডিও।ব্রাজিলের আইন অনুসারে, শুধুমাত্র ১৮ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিরা, যারা হাই স্কুল শেষ করেছে এবং জাতীয় বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার সাথে নিবন্ধিত হয়েছে, তারাই বিমানে ওড়ার অনুমতি পায়।

সূত্র : এনডিটিভি

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status