ঢাকা, ২২ জুন ২০২৪, শনিবার, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ জিলহজ্জ ১৪৪৫ হিঃ

বিনোদন

‘সমালোচনা তোয়াক্কা না করে কেবল কাজটা করে গেছি’

স্টাফ রিপোর্টার
২৬ মে ২০২৩, শুক্রবারmzamin

তিনি সোশ্যাল মিডিয়ার তারকা। পুরোদমে ব্যবসায়ী হলেও এখন অনলাইন মাধ্যমের আলোচিত মুখ। প্রথমে বিতর্কিত হলেও লাইভে নিজের সাবলীল ও বোল্ড উপস্থাপন ও ব্যক্তিত্বের মাধ্যমে অর্জন করেছেন মানুষের ভালোবাসা। তিনি আর কেউ নন, রোবাইয়াত ফাতিমা তনি। সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে তার লাইভের ভিডিওগুলো ভেসে বেড়ায়। সবমিলিয়ে বর্তমানে আলোচনায় তিনি। নিজের কাজের শুরুর গল্প বলতে গিয়ে টনি বলেন, আমার জন্য বিষয়টা এত সহজ ছিল না। বেশ স্ট্রাগল করতে হয়েছে। অনেক মানুষের কথা শুনেছি। নারীদের ক্ষেত্রে যেটা হয় আর কি। 

কিন্তু মানুষের সমালোচনার তোয়াক্কা না করে আমি কেবল কাজটা করে গেছি।

বিজ্ঞাপন
যার ফল আমি এখন পাচ্ছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তো আপনাকে ট্রলও হতে হয়েছে? তনি বলেন, হ্যাঁ। বিশেষ করে আমি একজন বয়স্ক মানুষকে বিয়ে করেছি, সে কারণে নানা রকম ট্রলের মুখে পড়েছি। এখানেও নারী প্রসঙ্গটা চলে আসে। সবাই কিন্তু আমাকে নিয়েই কথা বলছে। আমি যদি কাউকে বিয়ে করে সুখী হতে পারি তাতে কারও তো কোনো সমস্যা হওয়ার কথা না। অনেকে বলেছে আমি লোভে পড়ে বিয়ে করেছি বাবার সমান লোককে। 

এটাই যদি হতো তাহলে তো আমি কাজ করতাম না। ১৫-১৬ ঘণ্টা কাজ করি আমি। আমার ফ্যাশন ব্র্যান্ড ‘সানভীস তনি’স এর ১১টি শাখা চালাচ্ছি। লোভী হলে তো এগুলোর দরকার পড়তো না। কাজ না করে পায়ে পা উঠিয়ে বিলাসী জীবনযাপন করতাম। ঈদের আগে তো আপনার স্বামী লাইফ সাপোর্টে ছিল। তারপরও আপনি কাজ চালিয়ে গেছেন। লাইভ করে গেছেন। এই সময়টা কেমন ছিল? তনি বলেন, কঠিন সময় ছিল। তবে এই ব্যবসা দিয়ে কিন্তু আমার স্টাফদের বেতন দিতে হয়। বোনাস থাকে ঈদে। 

সবকিছুর কথা চিন্তা করে আমি কাজ বন্ধ রাখিনি। আমি মরে গেলেও কাজ যেন বন্ধ না হয় আমি স্টাফদের বলে রেখেছি। তবে আমার ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীদের অনেক শুভকামনা ও দোয়া ছিল। আপনি যা করছেন তাই ভাইরাল হচ্ছে। এ বিষয়টি কীভাবে দেখেন? তনি অকপট বলেন, পজেটিভলি দেখি। কারণ আমি আমার কাজটা করে যাচ্ছি। কেউ বাজে কমেন্ট করে শান্তি পেলে পাক। আমি আমার মতো উত্তর দিয়ে দেই। আবার আমার লাইভের ভিডিও কেটেও অনেকে পেজ ও ইউটিউব থেকে অনেক ইনকাম করছেন। আমার ভিডিওর জন্য যদি কারও সংসার চলে তাতে মন্দ কি।

 

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন

   

বিনোদন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status