ঢাকা, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

রাজনীতি

সরকার বুঝতে পেরেছে জনগণ তাদের সঙ্গে নেই: মঈন খান

স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ থেকে

(১ বছর আগে) ১১ মার্চ ২০২৩, শনিবার, ৩:০৩ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৬:২২ অপরাহ্ন

mzamin

বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, আওয়ামী লীগের আজ মাথা গুলিয়ে গেছে। মুখে যাই বলুক না কেনো অন্তরে বুঝতে পেরেছে জনগণ তাদের সঙ্গে নেই। সে কারণে আজকে তাদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তারা অস্থির হয়ে গেছে কিভাবে তারা ২০১৪ ও ১৮ সালের মতো নতুন করে কিভাবে নির্বাচনকে দখল করবে এবং ইচ্ছে মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত করে আবার এ দেশকে তাদের খপ্পরে নিয়ে আসবে। আজকে বুঝতে হবে একটা ভুয়া নির্বাচন দিয়ে কোনদিন জনগণের ভালবাসা পাওয়া যায় না। রোববার দুপুরে সারা দেশের ন্যায় মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

জেলা বিএনপির সভাপতি আফরোজা খান রিতার সভাপতিত্বে জেলা শহরের বেওথা এলাকায় ১০ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ড. আব্দুল মঈন খান আরো বলেন, সরকারের সমালোচনা আর রাষ্ট্রের সমালোচনা দুটো ভিন্ন জিনিস, একটার সাথে আরেকটা গুলিয়ে ফেললে হবে না। সরকার সেটা গুলিয়ে ফেলছে। সরকারের মন্ত্রী এমপিরা একদিন বলে বেগম খালেদা জিয়া রাজনীতি করতে পারবেন, দ্বিতীয় দিন বলে রাজনীতি করতে পারবেন না, তৃতীয় দিন আবার বলে বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত রাজনীতি করতে পারবেন আবার চতুর্থদিন বলে বেগম খালেদা জিয়া রাজনীতি করতে পারবেন না। 

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ একসময় বলতো আমার ভোট আমি দেবো যাকে খুশি তাকে দেবো। আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, আজকে কেনো ওই কথা বলেন না ! আজ তারা বলে আমার ভোট আমি দেবো দিনের ভোট রাতে দেবো। আওয়ামী লীগ এমন একটি সরকার গঠন করেছে যারা জনগণের সরকার নয়।

বিজ্ঞাপন
জনগণের কোন আস্থা নেই এই সরকারের প্রতি এবং তারা জনগণের সমর্থনও চায় না। তারা ভিন্ন প্রক্রিয়ায় ক্ষমতা দখল করে রাখতে চায়। কেনো ক্ষমতা দখল করতে চায়। কারণ ক্ষমতায় থেকে তারা অন্যায়ভাবে অর্থ সংগ্রহ করছে, লুটপাট করছে। তারা জানে ক্ষমতা থেকে চলে গেছে এই লুটপাট আর করতে পারবে না। 

মঈন খান বলেন, তারা যদি উন্নয়ন দিয়ে দেশকে ভাসিয়ে দিয়ে থাকে তাহলে কেনো তারা একটি সুষ্ঠু নির্বাচনকে ভয় পায়। কারণ তারা জানে তারা ভাল কাজ করে নাই। তারা মেগা উন্নয়নের নামে মেগা দুর্নীতি করেছে। তাই এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ  বাংলাদেশ থেকে গণতন্ত্র হরণ করেছে, মানবাধিকার হরণ করা হয়েছে। সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে গেলেই তারা বলে বেড়ায় মানুষ নাকি রাষ্ট্র বিরোধী কথা বলেছে। সভাপতির বক্তব্যে আফরোজা খান রিতা বলেন, এই সরকার বাংলাদেশকে একটি ভারসাম্যহীন রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। আমরা বিশ্বাস করি বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান হচ্ছেন আগামীর বাংলাদেশ। আমরা তার দেখানো পথ, মত ও রূপরেখা অনুযায়ী এই আওয়ামী লীগ সরকারকে হটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবো ইনশাআল্লাহ্।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এস এ কবীর জিন্নাহ, জেলা বিএনপির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আজাদ হোসেন খান, জেলা বিএনপির সহসভাপতি আব্দুল বাতেন মিয়া, অ্যাডভোকেট  সাংগঠনিক সম্পাদক নুরতাজ আলম বাহার, গোলাম কিবরিয়া সাঈদ প্রমুখ। 
এদিকে মানববন্ধনকে সফল করার লক্ষে সকাল থেকে জেলার প্রত্যেকটা উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা মানিকগঞ্জ জেলার শহরের বেওথা এলাকায় জড়ো হন। ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে কয়েক হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রাজনীতি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status