ঢাকা, ২৫ মে ২০২৪, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

দেশ বিদেশ

শেখ হাসিনাকে কাঠগড়ার মুখোমুখি হতে হবে: বুলু

স্টাফ রিপোর্টার
৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার

বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনের ভোট রাতে করেন, বিনা ভোটে রাষ্ট্রক্ষমতায় আছেন। সরকারি  সুযোগ-সুবিধা ব্যবহার করে প্রধানমন্ত্রী জনসভায় অংশ নিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়েছেন। ইতিমধ্যে চারটি জনসভায় ভোট চেয়েছেন, এটা অন্যায়। আগামী দিনে আপনাকে শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রীর অফিস ব্যবহার করে ভোট চাওয়ার জন্য বিচারের কাঠগড়ার মুখোমুখি হতে হবে, জেলে যেতে হবে। সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বরকত উল্লাহ বুলু। ‘নাগরিক মঞ্চ’ নামে একটি সংগঠন এই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে। তিনি বলেন, বাংলাদেশে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রেখে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন হতে দেয়া হবে না। শেখ হাসিনার পতনের মধ্যদিয়ে নির্দলীয় সরকার প্রতিষ্ঠা, নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের মধ্যদিয়ে তাদের অধীনে নির্বাচন হবে। বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, বিএনপিসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো সভা-সমাবেশ করলে সরকার ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে।

বিজ্ঞাপন
তারপরও মানুষ সভা-সমাবেশের আগের দিন পায়ে হেঁটে, সাঁতার কেটে সমাবেশস্থলে এসে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান নেন।  আর ক্ষমতাসীনরা সভা-সমাবেশে ট্রেন, বাস দখল করে নিয়ে যাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে দেশের মানুষ আজ ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে। সরকারবিরোধী সমমনা রাজনৈতিক দলগুলো এই অনির্বাচিত সরকারের পতনে যুগপৎ আন্দোলন শুরু করছে। সাধারণ মানুষ যুগপৎ আন্দোলনের মাধ্যমে সমাবেশে অংশগ্রহণ করছে। নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির হাত থেকে মানুষ বাঁচতে চায়, সরকারের পরিত্রাণ চায়। তিনি আরও বলেন, চার লক্ষ কোটি টাকা আওয়ামী ঘরোনার লোকেরা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়েছে। দুদক ও সরকার এই বিষয়ে কথা বলে না। রাষ্ট্রের প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ধ্বংস হয়ে গেছে। এখন আগামী প্রজন্মকে নাস্তিক বানানোর থিউরি নিয়েছে। আমাদের সবাইকে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে এগিয়ে আসতে হবে। দেশকে রক্ষা করতে হবে। পাঠ্যপুস্তকে সংশোধনীতে চলবে না, বাতিল করে নতুন করে লিখতে হবে। আর মিথ্যা কথা ও ব্যর্থতার দায় নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হবে। শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে বুলু বলেন, শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন পাঠ্যপুস্তকের ভুল নাকি ১০ বছর আগের। তাহলে আমার বলতে হয় ১০ বছর আগে শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। আর আপনি (শিক্ষামন্ত্রী) পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন। তাহলে এই ভুল পাঠ্যপুস্তকে এলো কীভাবে? তাই এর জন্য কমিশন করে এই শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগসহ সরকার যে আগামী প্রজন্মকে নাস্তিকতা শেখাচ্ছে, সেজন্য এদের বিচার হওয়া উচিত। সরকার পাঠ্যপুস্তকের ভুল নিয়ে মানুষকে রামায়ণ বোঝাচ্ছে। সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন দেশপ্রেমিক নাগরিক পার্টির চেয়ারম্যান ও নাগরিক মঞ্চের সমন্বয়কারী আহসান উল্লাহ শামীম, মুসলিম সমাজের চেয়ারম্যান ও নাগরিক মঞ্চের সমন্বয়ক মো. মাসুদ হোসেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টির চেয়ারম্যান ও নাগরিক মঞ্চের সমন্বয়ক অধ্যাপক বজলুর রহমান আমিনী, বাংলাদেশ স্বাধীন পার্টির চেয়ারম্যান ও নাগরিক মঞ্চের সমন্বয়ক মির্জা আজম প্রমুখ।

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status