ঢাকা, ২৭ জুন ২০২২, সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

অনলাইন

থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগ, জেল থেকে বেরিয়ে তরুণকে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

(১ মাস আগে) ২২ মে ২০২২, রবিবার, ১০:৪১ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৮:১১ অপরাহ্ন

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে থানায় চাঁদা দাবির অভিযোগ করায় জেল থেকে বেরিয়ে এক তরুণকে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শনিবার রাতে  উপজেলার চৌমুহনী বাজারে হোসেন মার্কেটের সামনে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণের নাম মো. আইমন (১৮)। তিনি চৌমুহনী পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের গণিপুরের নুর নবীর ছেলে।

হত্যাকাণ্ডের পর রাতেই ঘাতক তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা হলো- চৌমুহনী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাচ্চু মিয়ার ছেলে মো. রাকিব (২০), আব্দুল হাই মিলনের ছেলে মো. পাভেল (২১) এবং আজাদ মিয়ার ছেলে নিরব (২০)।
বেগমগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান রাজীব জানান, নিহত আইমন চৌমুহনী বাজারে প্রধান সড়কের পাশে খোলা জায়গায় জুতা বিক্রি করতেন। তিন মাস আগে স্থানীয় সন্ত্রাসী রাকিব তার কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। আইমন এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। পরে রাকিব ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়। তিন মাস কারাগারে থাকার পর গত বৃহস্পতিবার জামিনে মুক্তি পায় সে।

পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, রাকিব তার দুই সহযোগী পাভেল ও রিমনকে নিয়ে শনিবার রাত পৌনে ৮টার দিকে চৌমুহনী বাজারে আইমনের পথ আটকায়।  রাকিব তার কারাভোগের জন্য আইমনকে দায়ী করে।

বিজ্ঞাপন
এক পর্যায়ে তিনজন মিলে আইমনকে ছুরি মেরে জখম করে। বাঁচার জন্যে সে পাশের একটি ফার্মেসিতে আশ্রয় নিলে সেখানে গিয়েও তারা আইমনের গলার নিচে ছুরি মেরে জখম করে। কিছুক্ষণের মধ্যে তার মৃত্যু হয়। আইমনকে এভাবে প্রকাশ্যে হত্যার পর হাতবোমা ফাটিয়ে আতঙ্ক তৈরি করে খুনিরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার প্রতিবাদে চৌমুহনী বাজারের ব্যবসায়ীরা তাৎক্ষণিকভাবে বিক্ষোভ শুরু করেন এবং প্রায় আধা ঘণ্টা চৌমুহনী-ফেনী আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। পরে আটিয়াবাড়ি পুল এলাকা থেকে পুলিশ রাকিবসহ ওই তিন যুবককে গ্রেপ্তার করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

আইমনের মা রাতেই বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকা-ে ব্যবহৃত একটি ছুরিও উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাজীব বলেন, গ্রেপ্তার তিনজনের বিরুদ্ধেই থানায় বিভিন্ন অভিযোগে মামলা রয়েছে।

পাঠকের মতামত

দেশে যতদিন পর্যন্ত আইনের শাসন প্রতষ্ঠিত না হবে, ততদিন পর্যন্ত এটা চলতেই থাকবে।

Munir Ahmed
২২ মে ২০২২, রবিবার, ১:৩৬ পূর্বাহ্ন

অভিয়ুক্তের জামিনের অধিকার রক্ষিত হলো কিন্তু বাদির নিরাপত্তায় কোর্ট নির্বিকার থাকলো এমতাবস্থায় ন্যায় বিচারবোধের ঘাটতি বিচার ব্যবস্থাকে প্রশ্ন বিদ্ধ করে।

মোহাম্মদ হারুন আল রশ
২১ মে ২০২২, শনিবার, ১০:১২ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com