ঢাকা, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১২ শাবান ১৪৪৫ হিঃ

বিশ্বজমিন

দেশে দেশে ইউক্রেনের দূতাবাসে রক্তাক্ত পার্সেল, পাঠানো হয় জার্মানি থেকে

মানবজমিন ডেস্ক

(১ বছর আগে) ৮ ডিসেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১১:১৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

mzamin

সম্প্রতি ইউক্রেনের একাধিক বিদেশি দূতাবাসে রহস্যজনক পার্সেল পাঠানো হয়েছে। এসব পার্সেলের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন প্রাণীর রক্তাক্ত দেহাংশ। এখন পর্যন্ত মোট ১৫ দেশের ইউক্রেনের দূতাবাসে এই পার্সেল পাঠানো হয়েছে। এগুলো সবই ইউরোপের দেশ। প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, পার্সেলগুলো পাঠানো হয়েছে জার্মানি থেকে। এ খবর দিয়েছে ডয়চে ভেলে।

খবরে জানানো হয়, ১৫ দেশে মোট ৩১টি পার্সেল গিয়েছে এখন পর্যন্ত। প্যাকেজগুলির ভেতরে আছে পশুর চোখ।চোখগুলি যাতে পচে না যায়, তার জন্য একটি তরল রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়েছে। কেবলমাত্র ইউরোপীয় দেশের দূতাবাসগুলিতেই এই প্যাকেজ পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুলেবা জানিয়েছেন, প্রতিটি প্যাকেজেই প্রেরকের একই ঠিকানা দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম জার্মানির বাডেন রাজ্যের একটি টেসলা ডিলারশিপের ঠিকানা ব্যবহার করেছে প্রেরক।

বিজ্ঞাপন
পোস্ট অফিসের মারফত ওই প্যাকেজগুলি পাঠানো হয়েছে। প্রেরক জানতো যে, পোস্ট অফিসে কোনো ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা লাগানো নেই। শুধু তা-ই নয়, প্যাকেজগুলিতে কোনোরকম হাতের ছাপ বা ডিএনএ-এর নমুনা যাতে না থাকে, তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফলে প্যাকেটগুলি পরীক্ষা করে কোনো তথ্যই পাওয়া যাচ্ছে না।

গত দুই দিন ধরে ইতালি, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, রোমানিয়া, ডেনমার্ক এবং পোল্যান্ডের একটি শহরের ইউক্রেন কনসুলেটে এই প্যাকেজগুলি পাঠানো হয়েছে। এখনো পর্যন্ত ১৫টি দেশ ৩১টি প্যাকেজ পেয়েছে। এরমধ্যে অস্ট্রিয়া একটি, ভ্যাটিকান একটি, ডেনমার্ক একটি, স্পেন পাঁচটি, ইটালি চারটি, কাজাখস্তান একটি, নেদারল্যান্ডস একটি, পোল্যান্ড ছয়টি, পর্তুগাল দুইটি, রোমানিয়া দুইটি, অ্যামেরিকা একটি, হাঙ্গেরি দুইটি, ফ্রান্স একটি, ক্রোয়েশিয়া একটি, চেক রিপাবলিক দুইটি এমন প্যাকেজ পেয়েছে। সম্পূর্ণ তথ্য ফেসবুকে শেয়ার করেছেন কুলেবা।

যে সমস্ত দেশের দূতাবাসে এই প্যাকেজ গেছে, সেই দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানিয়েছেন কুলেবা। রাশিয়ার আক্রমণের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ এবং গোয়েন্দারা এর তদন্ত শুরু করেছে বলে ইউক্রেন জানিয়েছে। এর আগে ইউক্রেনের স্পেন দূতাবাসে একটি চিঠি বোমা উদ্ধার করা হয়েছিল।
 

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2023
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status