ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

বাংলারজমিন

দশমিনায় ভূমিহীনের ২০ একর জমির ধান লুট

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবারmzamin

দশমিনা উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন চরবোরহান ইউনিয়নের ৪৮ জন ভূমিহীনের বন্দোবস্তপ্রাপ্ত ২০ একর জমির আমন ধান লুট করে নিয়ে গেছেন লাঠিয়ালরা। এ ঘটনায় স্থানীয় ভূমিহীনদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ধান লুটের ঘটনায় মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তারা।  স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, চরবোরহান ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ চরবোরহান মৌজায় ১৯৮৫-৮৬ থেকে ২০০৫-০৬ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে ওই জমি স্থানীয় ৪৮ জন ভূমিহীন কৃষককে বন্দোবস্ত দেয় সরকার। বন্দোবস্তকৃত জমিতে দীর্ঘদিন বাসাবাড়ি করে বসবাস ও চাষাবাদ করে আসছিল ভূমিহীনরা। তাদের দাবি, মঙ্গলবার গলাচিপা উপজেলার চরকাজল ইউনিয়নের বড়শিবা এলাকার মোসলেম সরদার, রাজ্জাক মোল্লা, চানমিয়া মৃধাসহ অর্ধশতাধিক লাঠিয়াল দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ভূমিহীনদের প্রায় ২০ একর জমির ধান লুট করে নিয়ে যায়। স্থানীয় ভূমিহীন কৃষকনেতা মো. শাহজালাল মৃধা বলেন, প্রতিবছর ধানকাটা মৌসুমে চরে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হলেও এ বছর চরে কোনো পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়নি। এই সুযোগে লাঠিয়ালরা ধান লুট করে নিয়ে গেছে। ভূমিহীন কৃষক আলী হোসেন মেলকার বলেন, লাঠিয়ালরা প্রায় ২০ একর জমির ধান লুট করে নিয়ে গেছে। বাকি আরও ৩০-৪০ একর জমির ধান লুটের পাঁয়তারা চালাচ্ছেন তারা।

বিজ্ঞাপন
চরবোরহান ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাসান হাওলাদার বলেন, লাঠিয়ালরা জোরপূর্বক ভূমিহীনদের ধান কেটে নিয়ে গেছে। কেউ ভয়ে বাধা দিতে সাহস পাচ্ছে না। দশমিনা থানার ওসি মো. মেহেদী হাসান বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এ বছর চরাঞ্চলে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়নি। ভূমিহীনরা লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হবে। এ ব্যাপারে ধান লুটের সঙ্গে জড়িতদের লাঠিয়ালদের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বাংলারজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status