ঢাকা, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ রজব ১৪৪৪ হিঃ

রকমারি

এক মাছের দুই মাথা ও চার চোখ, ভাইরাল ‘চেরনোবিল মাছ’

মানবজমিন ডেস্ক

(৪ মাস আগে) ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ৮:৪৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৪ অপরাহ্ন

mzamin

ইউক্রেনের চেরনোবিলের কাছের একটি হ্রদ থেকে পাওয়া গেল দুই মাথা বিশিষ্ট এক আশ্চর্য মাছ। মাছটির দুটি মুখ এবং চারটি চোখ রয়েছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই মাছটির একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। নেটিজেনদের অনেকেই দাবি করছেন, ২০১৭ সালে ওই হ্রদটিতে পারমাণবিক দূষণ ঘটেছিল। আর সেই দূষণের কারণেই এই উদ্ভট দর্শন মাছটির শারীরিক বিকৃতি ঘটেছে। তবে, বিজ্ঞানীরা এই বিষয়ে নিশ্চিত নন, তাদের দাবি, দূষণের কারণেই মাছটির এরকম বিকৃতি ঘটেছে কি না জানতে আরও পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন। এ খবর দিয়েছে বৃটিশ গণমাধ্যম ডেইলি স্টার। 
বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ভিডিয়োতে মাছটিকে স্বাস্থ্যকর এবং সম্পূর্ণরূপে প্রাপ্তবয়স্ক বলে মনে হচ্ছে। কাজেই সম্ভবত পারমাণবিক দূষণের কারণে এটি এরকম অদ্ভুত দর্শন হয়নি। কারণ সেই ক্ষেত্রে এটির শৈশবেই মৃত্যু হত। ইউনিভার্সিটি অব সাউথ ক্যারোলিনার জীববিজ্ঞানী ড. টিমোথি মুসো বলেছেন, বিকিরণ থেকে হওয়া অধিকাংশ অভিযোজনের ফলে আয়ু কমে যায়।

বিজ্ঞাপন
এতদিন বেঁচেই থাকার কথা নয় মাছটির। এই ধরনের অধিকাংশ অভিযোজিত প্রাণী এতদিন বাঁচে না যে সেটি এত বড় হবে।
ড. টিমোথি মুসো এর আগে চেরনোবিল এবং জাপানের ফুকুশিমা দুই জায়গাতেই প্রাণীদের উপর পারমাণবিক দূষণের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করেছেন। তিনি আরও বলেছেন, গবেষণার সময় আমরা এরকম শয়ে শয়ে বা হাজার হাজার প্রাণী নিয়ে কাজ করি। প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই মনে হতে পারে বিকিরণের কারণেই সেগুলির বিকৃতি ঘটেছে। তবে, যথাযথভাবে নিয়ন্ত্রিত পরীক্ষা ছাড়া তা নিশ্চিতভাবে বলা প্রায় অসম্ভব। যদি অন্য তেজস্ক্রিয়ভাবে দূষিত স্থানে এই ধরনের অভিযোজন আগে পরিলক্ষিত হয়, তাহলে অবশ্য বলা যায়।
যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেই মাছটির দুটি মুখ ও চারটি চোখ আছে বলে মনে হলেও, একাংশের বিজ্ঞানীরা তা মানতে নারাজ। তাদের দাবি দ্বিতীয় যে মুখটি দেখা যাচ্ছে, সেটি আসলে একটি ক্ষত হতে পারে। পুরোপুরি নিরাময় না হওয়ায় ওই গর্তের মতো অংশ তৈরি হয়েছে। তাদের মতে, মাথার উপরে যে দ্বিতীয় জোড়া চোখ দেখা যাচ্ছে, সেটি সম্ভবত চোখ নয়। সেগুলি মাছটির নাসারন্ধ্র। কারণ মাছটি এশিয়ান কার্প বলে মনে হচ্ছে। এদের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল মাথার উপরের দিকে নাসারন্ধ্র থাকে।
তবে এত বিজ্ঞান নিয়ে ঘাটতে নারাজ নেটিজেনরা। তারা এরইমধ্যে এই মাছ নিয়ে আলোচনা জুড়ে দিয়েছেন। চেরনোবিলের কাছে পাওয়ায় এর নাম দিয়েছেন চেরনোবিল ফিশ। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিও। অনেকে মজা করে লিখেছেন, এখন থেকে চেরনোবিলের কাছে মাছ ধরা বন্ধ করতে হবে। 

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status