ঢাকা, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

রকমারি

যে গ্রামের ৩৩ শতাংশই ইউটিউবার

মানবজমিন ডিজিটাল

(৪ সপ্তাহ আগে) ৩১ আগস্ট ২০২২, বুধবার, ৬:০৯ অপরাহ্ন

কোনো গ্রামের মানুষ অধিকাংশই হয়তো কৃষি কাজ করে। কিম্বা অনেকেই চাকরিবাকরি করে। অথবা হতে পারে প্রযুক্তি বা শিক্ষার আলো গ্রামে পৌঁছায়নি। গ্রামকেন্দ্রীক এমনটাই প্রচলিত গল্প বা সংবাদ। কিন্তু যদি এমন হয় যে, গ্রামের সবাই ইউটিউবার হয়ে যাচ্ছে তবে তা খটকা লাগে বৈকি। 
তিন হাজার বাসিন্দার গ্রামে এক হাজারজন ইতিমধ্যে ইউটিউবার হয়ে গেছে। ইউটিউবকেই বেছে নিচ্ছে পেশা হিসেবে। রোজ খুলছে নতুন নতুন চ্যানেল। তেমনই এক গ্রাম ভারতের ছত্তিশগড়ের তুলসী।

সবাই কম বেশি ইউটিউবের সঙ্গে জড়িত হওয়ার কারণে গ্রামটি ধীরে ধীরে পরিচিত হয়ে উঠছে ‘ভিলেজ অব ইউটিউবার’ বা ইউটিউবারদের গ্রাম হিসেবে।  এই গ্রামের ৩৩ শতাংশ বাসিন্দা এখন সরাসরি জড়িত ইউটিউবে। এখান থেকেই করছে আয়।

বিজ্ঞাপন
প্রশ্ন হলো- কেনই বা সব ছেড়ে ইউটিউবে যাচ্ছে সবাই। 
জ্ঞানেন্দ্র শুক্লা  ও জয় বর্মার  সাফল্যেই  তুলসীতে জোয়ার আসে ইউটিউব চ্যানেলের।
সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, ব্যাংকের চাকরি ছেড়ে জ্ঞানেন্দ্র ২০১১-১২ সালে বড়সড় ঝুঁকি নেন। ইউটিউব চ্যানেল খোলেন। গ্রামে তিনি আগে রামলীলায় টুকটাক অভিনয় করতেন। সেটাই তুলে ধরা শুরু করলেন তার চ্যানেলে।  বর্তমানে তার  চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা ১.১৫ লক্ষ। 
শিক্ষকতা ছেড়ে ইউটিউব চ্যানেল খুলেছিলেন জয় বর্মা। তিনি বলেন, আগে তার মাসিক আয় ছিল ১২ থেকে ১৫ হাজার। এখন মাস গেলে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা আয় করেন তিনি। এ কাজে শুধু আয়ই নয়, আনন্দও পান যোগ করেন এই ইউটিউবার। 
তাদের সফলতা দেখে গ্রামের অনেকেই তাই ইউটিউবের দিকেই ঝুঁকতে শুরু করে। যা ওই গ্রামকে ইউটিউবারদের গ্রামের তকমা এনে দেয়।

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

রকমারি থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status