ঢাকা, ১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৯ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

বিশ্বজমিন

চীনের মিসাইল, বোমা থেকে বাঁচতে তাইওয়ানজুড়ে মহড়া, প্রস্তুত হচ্ছে বাঙ্কার

মানবজমিন ডেস্ক

(২ সপ্তাহ আগে) ২ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ২:০৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৯:৩০ অপরাহ্ন

চীনের সঙ্গে বাড়ছে উত্তেজনা। যে কোনো সময় যুদ্ধ শুরু হতে পারে এমন আশঙ্কা দানা বাঁধছে। তাই সেই প্রস্তুতিও নিতে শুরু করেছে তাইওয়ান। দেশের মধ্যে থাকা বোমা থেকে বাঁচতে তৈরি বাঙ্কারগুলোকে প্রস্তুত করছে তারা। এছাড়া চলছে মহড়াও। আহতদের কীভাবে চিকিৎসা দেয়া হবে, কীভাবে দ্রুত সময়ের মধ্যে আশ্রয় নেয়া যাবে এসব প্রাক্টিস চলছেই। এ খবর দিয়েছে জেরুজালেম পোস্ট।

চীন তাইওয়ানকে নিজের অবিচ্ছেদ্য অংশ মনে করে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তাইওয়ানের আকাশসীমায় একের পর এক উস্কানি সৃষ্টি করছে চীন। প্রায়ই দেশটির যুদ্ধবিমান তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা জোনের মধ্যে প্রবেশ করছে। তাইওয়ানও নিজেকে রক্ষায় তার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করার চেষ্টা করছে।

বিজ্ঞাপন
সামরিক মহড়ার পাশাপাশি বেসামরিকদের নিরাপত্তায়ও মহড়া চলছে। 

এর অংশ হিসেবে চীনের ক্ষেপণাস্ত্র থেকে বাঁচতে বাসিন্দাদের বিভিন্ন শেল্টারে আশ্রয় নেয়ার প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। বাড়ির আন্ডারগ্রাউন্ড কিং সাবওয়েতে কীভাবে নিজেকে লুকানো যাবে তা দেখানো হচ্ছে। শপিং সেন্টারগুলোতেও চলছে মহড়া। দেশটির রাজধানী তাইপেতে প্রায় পাঁচ হাজার শেল্টার রয়েছে। সেখানে মোট ১ কোটি ২০ লাখ মানুষ আশ্রয় নিতে পারবে। এটি দেশটির মোট জনসংখ্যার ৪ গুণ। তাই চীনের হামলা থেকে বেসামরিক নাগরিকদের বাঁচানোর ক্ষমতা তাইওয়ানের রয়েছে বলে আত্মবিশ্বাসী দেশটির বাসিন্দারা। 

১৮ বছর বয়স্ক হারমনি উ জানান, প্রথমে এই মহড়া দেখে তিনি অবাক হয়েছিলেন। তবে তিনি বুঝতে পারছেন কেনো এটি করা হচ্ছে। তিনি বলেন, এ ধরণের আশ্রয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা জানি না, কখন যুদ্ধ বেধে যাবে। এগুলো তৈরি করা হয়েছে আমাদের নিরাপত্তার জন্য। যুদ্ধ খুবই ভয়ানক বিষয়। আমরা কখনো যুদ্ধ দেখিনি তাই আমরা সে জন্য প্রস্তুতও নই। মানুষ যাতে সহজেই তার বাড়ির কাছে অবস্থিত আশ্রয়কেন্দ্রটি খুঁজে পায় সে জন্য বিশেষ মোবাইল অ্যাপ তৈরি করেছে তাইওয়ান সরকার। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও চলছে প্রচারণা। এছাড়া আশ্রয়গুলোর বাইরে বিশেষ চিহ্ন ব্যবহার করা হচ্ছে এবং তাতে লেখা আছে কতজন এরমধ্যে আশ্রয় নিতে পারবেন। 

এ নিয়ে তাইওয়ানের বিল্ডিং অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কর্মকর্তা আবেরক্রোম্বি ইয়াং বলেন, ইউক্রেনের যুদ্ধের দিকে তাকান। কোনো নিশ্চয়তা নেই যে নিরীহ মানুষের উপরে আক্রমণ হবে না। এ কারণেই সকল মানুষের নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। দেশের সকল মানুষের সংকটকালীন সময়ের জন্য প্রস্তুত হওয়া দরকার। চীনা কমিউনিস্টরা যখন আমাদের উপরে আক্রমণ করবে, তখন আমাদের এসব শেল্টারে গিয়ে বাঁচতে হবে।
 

পাঠকের মতামত

THEN ONEDAY INDIA OR PAKISTAN WILL CLAIM THAT BANGLADESH WAS PART OF THEM. THIS IS A ALARMING SITUATION FOR THE SMALL COUNTRY LIKE US.

NIZAMUL SHAHIR
২ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন

আমাদের পুতিন ভাই হলো যুদ্ধগুরু। যুদ্ধু যুদ্ধু খেলায় পুতিন বর্তমানে এগিয়ে আছেন। ওদিকে বাইডেন দাদা একটা আল কায়দা নেতাকে মেরেই খরগোশের মত তিড়িং বিড়িং লাফাচ্ছেন। তাইওয়ানের দিকে খুচাখুচি দিয়ে ভাবছেন, না জানি কখন যুদ্ধু যুদ্ধু খেলায় অংশগ্রহন করবেন। আর খেলার মাঠের অপরদিকে চীন কাকা সমরের ঘন্টা বাজাচ্ছেন। আমরা শুধু অপেক্ষাতে আছি দৃশ‍্য অবলোকনের জন‍্য।

মোয়াজ্জেম হোসেন
২ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

আমি মনে করি তাইওয়ান চীনের অবিচ্ছেদ্য অংশ । যুক্তরাষ্ট্রের চিনের অভ্যান্তরিন ব্যাপারে মাথা ঘামানো উচিত নয়। যুক্তরাষ্ট্র চীনের সাথে যুদ্ধ বাধানোর চেষ্টা করছে।

নুরুল হামিদ
২ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

Taiwan is an integrated parts of great China. I can't understand why China so far not invade and occupy the island. China should't allow time to bolster the island and build strong tie with its other enemies before the island can accumulate enough power to resist any Chinese military action.

Monsur
২ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ৬:৪৩ পূর্বাহ্ন

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বিশ্বজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশি আরও ৪ এজেন্সিকে অনুমোদনের সুপারিশ/ মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বললেন- প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধেও কাজ হবে না

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status