ঢাকা, ১৮ জুলাই ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

রকমারি

দক্ষিণ কোরিয়ায় কর্মরত অবস্থায় আত্মঘাতী 'রোবট'!

মানবজমিন ডিজিটাল

(২ সপ্তাহ আগে) ৩০ জুন ২০২৪, রবিবার, ৪:০১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০২ পূর্বাহ্ন

mzamin

রোবটও আত্মহত্যা করে? শুনতে অবাক লাগলেও বাস্তবে এমনটাই ঘটেছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। গুমি সিটি কাউন্সিলের ওই ঘটনায় তাজ্জব অফিসের কর্মীরাও। সিঁড়ি থেকে ২ মিটার নিচে পড়ে টুকরো টুকরো হয়ে যায় রোবটটি। কর্মীরা একে আত্মহত্যা বলেই মনে করছেন। রোবটটি ২০২৩ সালের অগাস্ট মাস থেকে  সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করছিল। সিটি কাউন্সিলের তরফে বলা হয়েছে অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে কাজ করতো রোবটটি। কাউন্সিলের এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানান, সিঁড়ি থেকে ঝাঁপ দেয়ার আগে এক জায়গায় দাঁড়িয়ে সে ঘুরছিল। মনে হচ্ছিল তার ভেতরে বড় কোনও গোলমাল হয়েছে। এরপর হঠাৎই সে সিঁড়ি থেকে ২ মিটির নীচে পড়ে যায়। রোবটের দেহ খণ্ডখণ্ড হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
তবে ঠিক কী কারণে সে এমনটা করেছে বা করে থাকতে পারে সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি। সিটি কাউন্সিলের ওই কর্মকর্তা বলেছেন, রোবটের কয়েকটি যন্ত্রাশ সংগ্রহ করা হয়েছে। সেগুলো এর প্রস্তুতকারকদের মাধ্যমে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। কিছু বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দিয়েছেন যে রোবটটি তার কাজের চাপের কারণে ‘মানসিকভাবে’ বিপর্যস্ত হয়ে পড়তে পারে , অন্যরা আবার বলছেন  এর পেছনে রয়েছে  প্রযুক্তিগত ত্রুটি। রোববটি বিয়ার রোবোটিক্স নামে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক একটি কোম্পানির তৈরি। গত বছরের গত আগস্টে একে গুমি সিটি কাউন্সিলে সরকারি কর্মচারীর দায়িত্বে মোতায়েন করা হয়। রোবটটির নিজস্ব কর্মচারী আইডি কার্ড ছিল। সে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কাজ করত। তার কাজ ছিল অফিসের বিভিন্ন নথিপত্র পরিবহন, দর্শনার্থীদের সহায়তা প্রদান এবং শহর সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য প্রচার। দক্ষিণ কোরিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে লেখা হয়েছে অত্যন্ত দক্ষ ওই রোবটটি কেন সুইসাইড করল? অতিরিক্ত কাজের চাপই কি এর কারণ? ইতিমধ্যেই বিষয়টিকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোড়ন পড়ে গেছে। গোটা দুনিয়ায় দক্ষিণ কোরিয়ায় সব থেকে বেশি রোবট কাজ করে। শিল্প ক্ষেত্রে প্রতি ১০ জন কর্মীর মধ্যে একটি রোবট। উৎপাদন শিল্প থেকে সার্ভিস সেক্টরে অটোমেশন করা হয়েছে ব্যাপক হারে।

সূত্র :  ওয়াশিংটন এক্সেমিনার

পাঠকের মতামত

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দুর্ঘটনার শিকার।

Kazi
৩০ জুন ২০২৪, রবিবার, ৪:১৯ অপরাহ্ন

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রকমারি সর্বাধিক পঠিত

মা-বাবার বিরুদ্ধে মামলা/ 'অনুমতি না নিয়েই কেন জন্ম দিয়েছ?'

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status