ঢাকা, ২৩ মে ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

অর্থ-বাণিজ্য

টাকার বড় অবমূল্যায়ন, ডলারের দাম এক লাফে বাড়লো ৭ টাকা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

(২ সপ্তাহ আগে) ৮ মে ২০২৪, বুধবার, ৬:৩৬ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৫ অপরাহ্ন

mzamin

ডলারের দাম এক লাফে ৭ টাকা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। দীর্ঘদিন ১১০ টাকায় থাকা ডলারের অফিশিয়াল রেট এক দিনে ১১৭ টাকায় উন্নীত করা হয়েছে।

বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণের শর্তের কারণে এই দাম বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ বিষয়ে একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়, এখন থেকে ‘ক্রলিং পেগ’ নামে নতুন পদ্ধতিতে ডলার কেনা-বেচা হবে। এ পদ্ধতিতে বুধবার থেকে ডলারের রেট ১১৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ক্রলিং পেগ পদ্ধতির আওতায় ডলারের মধ্যবর্তী একটি দাম নির্ধারণ করে ব্যাংকগুলোকে এই দরের আশপাশে স্বাধীনভাবে লেনদেন করতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে আজ পর্যন্ত ডলারের দাম ছিল ১১০ টাকা, যা ছিল এসোসিয়েশন অব ব্যাংকারস বাংলাদেশ (এবিবি) ও বাফেদা নির্ধারিত।

এক লাফে ডলারের দাম ৭ টাকা বাড়ানোর প্রেক্ষিতে ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানিনির্ভর দেশ হওয়ায় আমদানি খরচ বেড়ে যাবে, পণ্যের দাম বাড়বে। আমদানিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। ফলে মূল্যস্ফীতি আরও বেড়ে যাবে। চাপ বাড়বে সাধারণ মানুষের ওপর।

ক্রলিং পেগ পদ্ধতিতে ডলারের দাম নির্দিষ্ট একটি সীমার মধ্যে ওঠানামা করে। নতুন পদ্ধতিতে অর্থনীতির বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে ডলারের দাম একটা সীমার মধ্যে বাড়বে বা কমবে। ফলে ডলারের দাম একবারে খুব বেশি বাড়তে পারবে না, আবার কমতেও পারবে না।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ ব্যাংক উচ্চসীমা ও নিম্নসীমা নির্ধারণ না করে মধ্যবর্তী সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে। ব্যাংকগুলোকে ডলারের লেনদেনের ক্ষেত্রে এই দরের আশপাশে থাকতে বলা হয়েছে।

চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি ক্রলিং পেগ পদ্ধতি চালুর কথা জানিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। কীভাবে এই পদ্ধতি চালু হবে, তা নিয়ে আইএমএফের শরণাপন্ন হয় বাংলাদেশ ব্যাংক। গত মার্চের মধ্যে এই পদ্ধতি চালু করার কথা বললেও মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ-সংক্রান্ত ঘোষণা দিল। আইএমএফের একটি দল এখন বাংলাদেশ সফর করছে।

বাংলাদেশের জন্য ৪৭০ কোটি ডলারের ঋণের শর্ত হিসেবে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হার নমনীয় করার পরামর্শ দিয়ে আসছিল। আইএমএফের চাওয়া, বাংলাদেশ ব্যাংক যেন বিনিময় হার বাজারভিত্তিক করার পথে এগোয়। একসময় কেন্দ্রীয় ব্যাংক বৈদেশিক মুদ্রার দাম নির্ধারণ করে দিলেও সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ব্যাংকভিত্তিক দুটো সংগঠন ডলারের দাম ঠিক করে আসছিল। সর্বশেষ তারা ডলারের আনুষ্ঠানিক দর ১১০ টাকায় নির্ধারণ করেছিল।

পাঠকের মতামত

No tension, হুন্ডি ব্যবসায়ীরাও বাড়িয়ে দিবে। আমার মনে হয় তারাও বোকা নয়. হুন্ডি কোন ব্যবসা না লুকিয়ে করতে হয়!! সব জিনিসের দাম আকাশচুম্বী হবে মনে রাখবেন ব্যাংক জয় বাংলা হয়ে গেছে!!

বাস
৯ মে ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ৩:৫৩ পূর্বাহ্ন

No tension, হুন্ডি ব্যবসায়ীরাও বাড়িয়ে দিবে। আমার মনে হয় তারাও বোকা নয়.

এলিন
৮ মে ২০২৪, বুধবার, ৭:৩৪ অপরাহ্ন

এটি বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি নাটকীয় এবং অপ্রত্যাশিত পদক্ষেপ। যদি খোলা বাজারে ডলারের দাম এখন না বাড়ে , হুন্ডি কমে গিয়ে Remittance বেড়ে যাবার একটি বিরাট সুযোগ তৈরী হলো।‌ সাধুবাদ, আপাতত !

Andalib
৮ মে ২০২৪, বুধবার, ৬:৫২ অপরাহ্ন

অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অর্থ-বাণিজ্য সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status