ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

বিশ্বজমিন

ইরানের উপর যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ’র নতুন নিষেধাজ্ঞার উদ্যোগ, কী বলছে রাশিয়া?

১৮ এপ্রিল ২০২৪, বৃহস্পতিবার
mzamin

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন বলেছে, সপ্তাহের শুরুতে ইসরাইলে হামলার পর তারা ইরানের উপর আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপের দিকে নজর দিচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন বলেছেন, এ বিষয়ে আগামী দিনগুলোতে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে তিনি আশা করছেন। অন্যদিকে, ইইউ পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান  জোসেফ বোরেল বলেছেন, (ইইউ) ব্লক এটি নিয়ে কাজ করছে। ইসরাইল তার মিত্রদের প্রতি তেহরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার অনুরোধ করেছে। গত বছর অক্টোবরে  ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়েছে। ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচিকে সীমিত করার জন্য যে বিস্তৃত চুক্তি করা হয়েছিল তার সঙ্গে সম্পর্কিত ছিল এই নিষেধাজ্ঞাসমূহ। তবে যুক্তরাষ্ট্র, ইইউ এবং যুক্তরাজ্যসহ বেশ কয়েকটি দেশ পূর্বের নিষেধাজ্ঞা বজায় রেখেছে এবং নতুন কিছু নিষেধাজ্ঞা যুক্ত করেছে। সোমবার ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর প্রধান লেফটেন্যান্ট  জেনারেল হারজি হালেভি বলেন, ইরানের হামলার জবাব না দিয়ে  ছেড়ে দেয়া হবে না। ১৩ই এপ্রিল শনিবার ইসরাইলের উপর প্রথমবারের মতো সরাসরি হামলা করে ইরান। এই হামলায় ইরান, ইরাক, সিরিয়া এবং ইয়েমেন থেকে ৩০০টিরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র এবং  ড্রোন নিক্ষেপ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
তবে  সেসবের বেশির ভাগই ইসরাইল এবং তার মিত্ররা ধ্বংস করেছে।  এই হামলাটি ১লা এপ্রিল সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেটে ইসরাইলি বিমান হামলার প্রতিশোধ ছিল বলে জানিয়েছে তেহরান। সিরিয়ার সেই হামলায় ১৩ জন নিহত হন। এখন পর্যন্ত ইসরাইল শুধু কূটনৈতিকভাবে এই হামলার পাল্টা জবাব দিয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ৩০টিরও বেশি দেশকে ইরানের এই  ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। ইরানের একটি প্রধান সামরিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক শক্তি হলো ইসলামিক রেভ্যুলুশনারি গার্ড কোর (আইআরজিসি)। এটিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তকমা  দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে ইসরাইল। 

যুক্তরাষ্ট্র ইতিমধ্যে এটি করলেও, যুক্তরাজ্য এখনো করেনি। মঙ্গলবার মার্কিন অর্থমন্ত্রী ইয়েলেন বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার প্রতি সম্মান রেখেই আমি সম্পূর্ণ আশাবাদী যে আগামী দিনগুলোতে আমরা ইরানের বিরুদ্ধে আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবো। আমরা নিষেধাজ্ঞার টুলসগুলো প্রাক্‌-নিরীক্ষণ করিনি। কিন্তু ইরানের সন্ত্রাসী অর্থায়ন ব্যাহত করার সব বিকল্পই আলোচনার টেবিলে? থাকবে। ইরানের তেল রপ্তানি ‘একটি সম্ভাব্য  ক্ষেত্র, যা আমরা খতিয়ে দেখতে পারি’ যোগ করে তিনি বলেন, ইরান কিছু তেল রপ্তানি করছে। সেখানেও আমরা কিছু পদক্ষেপ নিতে পারি। মিস ইয়েলেন বলেন, ইরানকে বিচ্ছিন্ন করে প্রক্সি গোষ্ঠীগুলোকে তার অর্থায়ন করার ও ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধকে সমর্থন করার ক্ষমতাকে ব্যাহত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ইতিমধ্যে আর্থিক নিষেধাজ্ঞাগুলো ব্যবহার করেছে। এর মধ্যে আছে পাঁচ শতাধিকেরও বেশি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে লক্ষ্যবস্তু করা। ইরানের উপর বিদ্যমান মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় ইতিমধ্যেই দেশটির সঙ্গে প্রায় সমস্ত মার্কিন বাণিজ্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান পরে বলেন- নতুন নিষেধাজ্ঞাগুলো ‘ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র এবং  ড্রোন কর্মসূচির’ পাশাপাশি  দেশটির রেভ্যুলুশনারি গার্ড এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কেও লক্ষ্যবস্তু করবে।

 ইইউ’র শীর্ষ কূটনীতিক মি. বোরেল বলেছেন, কিছু সদস্য দেশ ইরানের উপর নিষেধাজ্ঞাকে আরও বাড়াতে বলেছে। নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় কাজ শুরু করার জন্য ইইউ’র কূটনৈতিক পরিষেবার কাছে অনুরোধ জানাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কার্টজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স (পূর্বের টুইটার)-এ একটি  পোস্টে ‘নিষেধাজ্ঞা গ্রহণের দিকে ইতিবাচক প্রবণতাকে’ স্বাগত জানিয়েছেন।  সর্বশেষ হামলার পর মধ্যপ্রাচ্যে বড় ধরনের উত্তেজনা এড়াতে বিশ্বনেতারা আহ্বান জানিয়েছেন।  প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, লৌহবর্মের মতো ইসরাইলের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি  তিনি বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন যে, এই পর্বে ইসরাইলের বিজয় ঘোষণা করা উচিত। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি  ফোনকলে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী  বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে হামলার প্রতিক্রিয়ায় পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে সতর্ক করেছেন। মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসির মধ্যে আলাপের পর  ক্রেমলিন বলেছে, ইরানের মিত্র রাশিয়াও তাদের ‘সংযমের’ আহ্বান জানিয়েছে। ক্রেমলিন বলছে, ভ্লাদিমির পুতিন আশা করছেন যে সমস্ত পক্ষ যুক্তিসঙ্গতভাবে সংযম  দেখাবে এবং এই পুরো অঞ্চলের জন্য বিপর্যয়কর পরিণতি ডেকে আনে, এমন নতুন কোনো সংঘর্ষকে প্রতিরোধ করবে। 

 সূত্র: বিবিসি

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status