ঢাকা, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

রাজনীতি

ভারতীয় পণ্য আওয়ামী লীগকে বর্জন করলেই জাতির মুক্তি মিলবে: গয়েশ্বর

স্টাফ রিপোর্টার

(২ সপ্তাহ আগে) ২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৩:৫০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ২:৪১ অপরাহ্ন

mzamin

ভারতীয় পণ্য আওয়ামী লীগকে বর্জন করলেই জাতির মুক্তি মিলবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে অন্তরে মম শহীদ জিয়া সংগঠনের উদ্যোগে ‘মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ জিয়াউর রহমানের ভূমিকা ও আজকের বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।
৭ই জানুয়ারি নির্বাচন প্রসঙ্গে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আপনি তো ভেজাল লাগালেন। বললেন, সারা বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশের লোক আমাদের বিরুদ্ধে যে ষড়যন্ত্র লিপ্ত হয়েছিল, ভারত যদি পাশে না থাকতো ৭ই জানুয়ারির নির্বাচন সম্পূর্ণ করতে পারতাম না। এটা তো আমাদের দলের কেউ বলেনি। এখানে কী বুঝব? আজকে সবাই পণ্য বর্জনের কথা বলছে। তাহলে ভারতের সবচেয়ে বড় পণ্য হচ্ছে আওয়ামী লীগ (সরকার), শেখ হাসিনা (প্রধানমন্ত্রী)। এই সরকারকে বর্জন করার তো করছেই- এটা ফেলে দিলেই শেষ। এই একটা পণ্য বর্জন করলেই তো জাতি মুক্ত হয়, সব পণ্য বর্জনের প্রয়োজন হয় না।
চিকিৎসাসহ নানা কারণে প্রতিদিন বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে দশ হাজার মানুষ পাসপোর্ট জমা দেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, গড়ে ৮’শ টাকা করে হলেও প্রতিদিন ৮০ কোটি টাকা লাগে এ জন্য। যদি একটা মানুষ সীমান্ত অতিক্রম করে তার প্রতিদিন খরচ গড়ে ৫ হাজার টাকা। আসার সময় আবার ৫০ হাজার টাকার বাজার করেও আনে।

বিজ্ঞাপন
আরও অন্যন্য খরচ। তাহলে বছরে কতটাকা বাংলাদেশ থেকে সেদেশে যায়, হিসাব করেছেন? পণ্য বর্জন কিসের বাংলাদেশের মানুষ যদি বলে, কাল থেকে ভারত যাব না, তাহলে দিল্লী বলবে, শেখ হাসিনা তোমাকে রাখতে গেলে আমরা বাঁচতে পারবো না। বাংলাদেশের মানুুষ ভারত না গেলে দেশটির অর্থনীতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে?
গয়েশ্বর বলেন, ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা ও থিংকট্যাংক তারা আগামী এক’শ বছর পর দেশের কী হবে তা নিয়ে হিসাব কষেন। সেই অনুযায়ি তারা কাজ করে। তারা দেশের মধ্যে মাতব্বরী করে না। কিন্তু আমাদের দেশের গোয়েন্দা সংস্থা-তারা আমাদের (বিরোধী দল) পেছনে লেগে আছে। তারা দেশের জন্য কাজ করতে পারে না। যদি পারতো তাহলে দেশে এতো চুরি ডাকাতি হত না। ৭ই জানুয়ারির ডামি, স্বামী, সমকামী নির্বাচন কারা করছে। 
সদ্য কারামুক্ত বিএনপি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালকে পাশে রেখে তিনি আরও বলেন, মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের স্বীকার করতে হয়তো কষ্ট হবে- জেলখানায় যারা (বিএনপির) গেছে, ওখান পর্যন্ত তারা (গোয়েন্দা সংস্থার লোক) গেছে। হয় কাউকে কাতুকুতু দিছে, আকার ইঙ্গিতে ভয় দেখাইছে, লোভ দেখাইছে। শাহজাহান ওমর বীরউত্তম তো কাতুকুতু দেয়ার আগেই কাত হয়ে পড়েছে। মুক্তিযুদ্ধের একজন বীরউত্তম, তার আর কিছু লাগে?  
আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাছের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ প্রমুখ।

 

পাঠকের মতামত

উপলব্ধি।

অননুমোদিত
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৭:২৬ অপরাহ্ন

ভারতীয় পণ্য বর্জন প্রত্যেক দেশ প্রেমিকের নৈতিক দায়িত্ব।

BB
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৭:২৫ অপরাহ্ন

সত্যিই বলেছেন ভারতের এই নিকৃষ্ট পণ্য জাতিকে কুরে কুরে খাচ্ছে। ভারতের এই নিকৃষ্ট পণ্যের কারণে আজ বাংলাদেশের লুটপাটের মহা উৎসব চলছে আর সাধারণ বাংলাদেশের জনগণ কষ্ট পাচ্ছেন নির্যাতিত হচ্ছে। ভারতের নিকৃষ্ট পণ্য আওয়ামী লীগ মুক্ত বাংলাদেশ চাই

Nazmul
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৫:৪১ অপরাহ্ন

শীতের ওয়াজ গ্রীষ্মকালে করে কোন লাভ নেই। মুক্ত বাজার অর্থনীতিতে বয়কটের রাজনীতি অর্থহীন। মনে হয়না আগামী ১০ বছরে আপনারা রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসতে পারবেন।

মিলন আজাদ
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৫:১৮ অপরাহ্ন

প্রিয় দেশপ্রেমিক সকল ভাই/বোন আসুন, আমারা আমাদের ঈমানের কছম খেয়ে প্রতিজ্ঞা করি, আজ থেকে আমরা কেউই আর ইন্ডিয়ায় যাবোনা। India out

বোদাই
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৪:৪১ অপরাহ্ন

'আওয়ামী মুসলিম লীগ'-এর 'মুসলিম' বাদ দিয়ে যখন 'আওয়ামী লীগ' হয়েছে তখন তো সন্দেহ যেকারো হতেই পারে দলটি উগ্র হিন্দুত্ববাদী ভারতের প্রোডাক্ট। তাই দলটিকে ভারতীয় পন্য বললে অতিরঞ্জন হবেনা। তলে তলে ভারতের সাথে দলটির সখ্যতা জন্মগত!

আবুল কাসেম
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৪:০৪ অপরাহ্ন

হ্যাঁ,ভারতীয় নিকৃষ্ট পন্য।

ইতরস্য ইতর
২৯ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার, ৩:৫৯ অপরাহ্ন

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

রাজনীতি সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status