ঢাকা, ১৩ জুলাই ২০২৪, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

বিনোদন

ঈদের বাইরে সাফল্য পাচ্ছে না সিনেমা

ফয়সাল রাব্বিকীন
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, শনিবারmzamin

গত বছরের ঈদ ও তার পরবর্তী সময়ে ‘পরাণ’ ও ‘হাওয়া’ ছবি দুটি অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করে। করোনা পরবর্তী সময়ে এ দু’টি ছবি প্রেক্ষাগৃহে দর্শক ফেরায়। এরপর ভাবা হয়েছিল চলচ্চিত্রের সুদিন বুঝি ফিরতে যাচ্ছে। কিন্তু না, তা হয়নি। ঈদ পরবর্তী সময়টাতে বেশকিছু ছবি মুক্তি পেলেও সফলতার মুখ দেখেনি। দু-একটি ছবি নিয়ে আলোচনা হয়েছে, প্রশংসা কুড়িয়েছে, কিন্তু লগ্নী ফিরিয়ে আনতে পারেননি প্রযোজকরা। ঠিক একই রকমভাবে চলতি বছরের দুই ঈদেও দর্শক হলমুখী হয়েছে। বিশেষ করে কোরবানির ঈদে শাকিব খানের ‘প্রিয়তমা’ ও আফরান নিশোর ‘সুড়ঙ্গ’ ছবি দুটি দারুণ ব্যবসা সফল হয়। ভালো চলেছে মাহফুজ আহমেদের প্রত্যাবর্তনের সিনেমা ‘প্রহেলিকা’ও। বাকি ছবিগুলোও ছিল আলোচনায়।

বিজ্ঞাপন
এমনকি ছবিগুলো দেশের বাইরেও ভালো ব্যবসা করেছে। যেটি একটি ইতিবাচক দিকই বলা চলে। কিন্তু ঈদ পরবর্তী সময়ে অবস্থা ঠিক তার উল্টো। ঈদের পর বেশ কয়েকটি ছবি মুক্তি পেলেও সফলতা সে অর্থে পায়নি। ৮৩ কোটি টাকা বাজেটের ‘এম আর নাইন: ডু অর ডাই’ মুখ থুবড়ে পড়েছে দেশের  প্রেক্ষাগৃহে। জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ও আসিফ আকবরের পরিচালনায় ছবিটি নিয়ে অনেক প্রত্যাশা থাকলেও তার সিকিভাগও পূরণ হয়নি। গত মাসে হৃদি হক পরিচালিত ‘১৯৭১ সেইসব দিন’ মুক্তি পেয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে। কিন্তু ব্যবসায়িক সফলতা পায়নি। একইভাবে দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর ‘সুজন মাঝি’- চলতি মাসের ৮ তারিখ মুক্তি পেলেও সফলতা মিলেনি। যদিও অনেকেই মনে করছেন শাহরুখ খানের ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘জাওয়ান’ বিশ্বের মতো একই তারিখে দেশে মুক্তির ফলে প্রভাব পড়েছে বাংলা সিনেমায়। কারণ সিনেপ্লেক্সে একচেটিয়া ব্যবসা করছে ছবিটি। এখনো স্টার সিনেপ্লেক্সের সব শাখাতেই ‘জাওয়ান’-এর শো চলছে সর্বাধিক। এরমাঝেই গতকাল মুক্তি পেয়েছে দীপঙ্কর দীপন পরিচালিত ‘অন্তর্জাল’ ছবিটি। সিয়াম, মিম, সুনেরাহ, সুমনদের এ ছবিটির শো সংখ্যাও ‘জাওয়ান’-এর তুলনায় বেশ কম। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, ভালো ছবিগুলো প্রযোজক-পরিচালকরা শুধু ঈদেই মুক্তি দিতে চাচ্ছেন। কারণ গত দুই বছরের হিসেবে ঈদেই কেবল প্রেক্ষাগৃহে দর্শক ভিড় করেছে বাংলা ছবি দেখতে। এ বিষয়ে মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দীন নওশাদ বলেন, সবাই ঈদমুখী হলে সারা বছর হলগুলো কীভাবে চলবে? এক্ষেত্রে তো ধারাবাহিকতা রক্ষা হয় না। আর সেটা না হলে দর্শক হলে কেন আসবে? ঈদে তো বটেই, আমি মনে করি ভালো গল্প ও শিল্পীদের সিনেমা বছরব্যাপী মুক্তি পাওয়া উচিত। কিন্তু সেই রিস্ক কেউ নিচ্ছে না। এদিকে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব শাহীন সুমন বলেন, ভালো ছবি হলে দর্শক হলে যায়। তবে সবাই নিজেদের ছবি ঈদে মুক্তি দিতে চাইলে হবে না। সারা বছর হল দর্শক খরায় থেকে শুধু ঈদে দর্শক হলে এলে তো চলচ্চিত্র টিকবে না। প্রযোজক-পরিচালক মোহাম্মদ ইকবাল বলেন, দেশের বড় তারকারা কেবল ঈদেই ছবি মুক্তি দিচ্ছে। ঈদের বাইরে সিনেমা হিট, সুপার হিট করে দেখাক। তাহলেই না সে বড় তারকা!

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন

   

বিনোদন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status