ঢাকা, ২৭ জুন ২০২২, সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

বিশ্বজমিন

মোটা অঙ্কের জরিমানা দিলেন ট্রাম্প

মানবজমিন ডেস্ক

(১ মাস আগে) ২১ মে ২০২২, শনিবার, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৮ অপরাহ্ন

মোটা অঙ্কের জরিমানা গুনতে হলো সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে। কর ফাঁকির মামলায় নথিপত্র জমা না দেয়ায় তাকে এই জরিমানা করা হয়। ২০১৯ সাল থেকে তার বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগে তদন্ত করছে নিউ ইয়র্কের প্রাদেশিক কর্তৃপক্ষ। এ জন্য তার কাছে প্রয়োজনীয় নথি চাওয়া হয়। কিন্তু ট্রাম্প এখনো সেসব নথি প্রদান করেননি। আর এ কারণেই তাকে জরিমানা করে নিউ ইয়র্কের একটি আদালত। এ খবর দিয়েছে ফার্স্টপোস্ট।
খবরে বলা হয়, গত ২৫শে এপ্রিল ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জরিমানার রায় দেয় ওই আদালত। রায়ে বলা হয়, ট্রাম্প এসব নথি হস্তান্তর করার আগ পর্যন্ত প্রতিদিন তার ১০ হাজার ডলার করে জরিমানা হতে থাকবে। নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশিয়া জেমস ট্রাম্পের ওই মামলার তদন্ত করছেন। তার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, গত ১৯শে মে ডনাল্ড ট্রাম্প অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিসকে ১ লাখ ১০ হাজার ডলার জরিমানা দিয়েছেন। 

এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে নিউইয়র্ক আদালতের বিচারক আর্থার এনগোরোন ট্রাম্পের ওপর এ ব্যাপারে রুল জারি করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন
এতে বলা হয়েছিল, কর ফাঁকির মামলায় তলব করা নথি জমা না দিলে ট্রাম্পকে প্রতিদিন ১০ হাজার মার্কিন ডলার করে জরিমানা গুনতে হবে। যদিও নথি জমা দেয়ার নির্ধারিত তারিখ ছিল গত ৩ মার্চ। পরে আদালতে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৩১ মার্চ পর্যন্ত আরেক দফা সময় বাড়ানো হয়। কিন্তু এর পরও তলব করা নথি জমা না দেয়ায় এবং আদালতে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা না দেয়ায় বিচারপতি অর্থার এনগোরোন গত ২৫শে এপ্রিল ট্রাম্পকে জরিমানা করে এ রুল জারি করেন।    

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কর ফাঁকির মামলা দায়ের করেন জেমস। তদন্তের পর তিনি ধারণা করেন, ট্রাম্পের কোম্পানি ও পারিবারিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কর ফাঁকি দিয়ে থাকতে পারে। যদিও ট্রাম্প এই অভিযোগকে ‘রাজনৈতিক’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। কিন্তু নিউ ইয়র্ক কর্তৃপক্ষ ট্রাম্পের কাছে কর সম্বলিত নথি এবং আয়ব্যয়ের হিসেব চেয়েছে। গত ২৫শে এপ্রিল জরিমানা প্রদানের নির্দেশ দেয়ার পর ৬ই মে তা আবার বাতিলও করে দেয় আদালত। তবে এই ১১ দিন যে ১ লাখ ১০ হাজার ডলার জরিমানা হয়েছে তা প্রদানে ২০ মে পর্যন্ত সময় বেধে দেন বিচারক। সেই অর্থই প্রদান করলেন ট্রাম্প।

পাঠকের মতামত

This is called justice! What about justice in Bangladesh? One type for rich and powerful; another type for poor and general public.

Nam Nai
২১ মে ২০২২, শনিবার, ৬:১০ পূর্বাহ্ন

ট্রাম্প যে পরিমাণ কর ফাঁকি দিয়েছেন সে তুলনায় এই জরিমানা খুবই নগণ্য । তাই হাসি মুখে জরিমানা দিয়ে যাবেন । তার বিশাল ব্যবসার সাম্রাজ্য, এবং দেউলিয়া ঘোষণা করা অনেক ব্যবসার পাওনাদারদের ঠকানো টাকার সাম্রাজ্য ধরা পড়বে বিধায় নথি কখনো জমা দিবে না । কারণ জরিমানা দেওয়া লাভজনক ।

Kazi
২০ মে ২০২২, শুক্রবার, ১০:৫৮ অপরাহ্ন

এটাই গনতন্ত্র।

MD Emdadul Hoque
২০ মে ২০২২, শুক্রবার, ১০:২৪ অপরাহ্ন

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বিশ্বজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com