ঢাকা, ১৮ মে ২০২৪, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৯ জিলক্বদ ১৪৪৫ হিঃ

বিশ্বজমিন

গাজায় ইসরাইলের হামলায় মসজিদ ধ্বংস বসতিস্থাপনকারীদের তাণ্ডব

মানবজমিন ডেস্ক
১৭ এপ্রিল ২০২৪, বুধবার
mzamin

গাজায় অবস্থিত জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরে একটি মসজিদে আকাশ থেকে বোমা হামলা করে তা ধ্বংস করে দিয়েছে ইসরাইল। তাতে আশপাশের অনেক বাড়িঘরও ধ্বংস হয়ে গেছে। আহত হয়েছেন বিপুল সংখ্যক নারী ও শিশু। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। ওদিকে গাজা সিটির আল শিফা হাসপাতালের একটি গণকবর থেকে কমপক্ষে ১০টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। দখলীকৃত পশ্চিমতীরে অধিক সংখ্যক সেনা মোতায়েন করেছে ইসরাইল। তাদের প্রশ্রয় পেয়ে সেখানে ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে ইসরাইলি বসতি স্থাপনকারীরা। ৭ই অক্টোবরের পর ইসরাইলি সেনারা হত্যা করেছে কমপক্ষে ৩৩,৭৯৭ ফিলিস্তিনিকে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৭৬,৪৬৫ জন। গাজায় ইসরাইলের এই গণহত্যা ও ধ্বংসলীলার নীরব প্রতিবাদ জানাচ্ছেন এক ইসরাইলি আর্টিস্ট।

বিজ্ঞাপন
যুদ্ধবিরতি না হওয়া পর্যন্ত ভেনিস বাইনালে প্রদর্শনী উন্মুক্ত করবেন না তিনি। ভেনিস বাইনালে হলো বিশ্বের সবচেয়ে অভিজাত আন্তর্জাতিক আর্ট প্রদর্শনীর অন্যতম। সেখানে গিয়েছেন ইসরাইলি প্রতিনিধি রুথ পাতির। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন গাজায় যুদ্ধবিরতি এবং হামাসের হাতে থাকা জিম্মিদের মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তিনি এই শোতে নিজেদের প্যাভিলিয়নের দরজা খুলবেন না। 

উল্লেখ্য, ইসরাইলের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় গত সেপ্টেম্বরে ভেনিসের এই প্রদর্শনীতে তার শিল্পকর্ম প্রদর্শনের জন্য বেছে নেয় রুথ পাতিরকে। তার ঠিক এক মাস পরে হামাস ইসরাইলে রকেট হামলা চালায়। এতে ইসরাইল-হামাস যুদ্ধ শুরু হয়। পাতির বলেছেন, পরিস্থিতি নিয়ে তিনি দীর্ঘ সময় কান্না করেছেন। যখন এমন একটি বড় প্রদর্শনী তার মতো তরুণী আর্টিস্টের জন্য সুযোগ এনে দেয়, তখন তিনি বলেন, ‘গাজায় যা ঘটছে তা আমার চেয়েও অনেক অনেক বেশি বড়। ইসরাইলি আর্টিস্ট ও কিউরেটররা তাদের প্যাভিলিয়ন তখনই খুলবেন, যখন যুদ্ধবিরতি হবে এবং জিম্মিদের মুক্তি নিয়ে একটি চুক্তি হবে।’ তাদের প্যাভিলিয়নের দরজায় টেপ দিয়ে এভাবে লাগিয়ে রাখা হয়েছে মেসেজ। পাতির আশা করেন এই যুদ্ধ শেষ হবে এবং ২৪শে নভেম্বরে বাইনালে’র প্রদর্শনী বন্ধ হয়ে যাওয়ার আগে জিম্মিরা দেশে ফিরে যেতে সক্ষম হবেন। ওদিকে দখলীকৃত পশ্চিমতীরের রামাল্লাহ থেকে আল জাজিরার সাংবাদিক রোরি চ্যালান্ডস বলেন, আমরা জানতে পেরেছি জেনিন, কলকলিয়া, তুলকারেম এবং হেবরনে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। দখলীকৃত পশ্চিমতীরে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ওপর বসতি স্থাপনকারীরা হামলা চালাচ্ছে। এতে কমপক্ষে সাতজন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। কয়েকটি গাড়ি পুড়ে গেছে। আগের দিন ইসরাইলি বাহিনী দু’জন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে। তারপরই এই তল্লাশি চলছে। ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে সেখানে সহিংস বিস্ফোরণ ঘটাচ্ছে বসতিস্থাপনকারীরা। ভয়াবহ সব বিস্ফোরণ ঘটানো হচ্ছে। এ বিষয়টিকে প্রামাণ্য হিসেবে ধারণ করেছে জাতিসংঘ। এর মধ্যে পশ্চিমতীরে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে ইসরাইল।  

পাঠকের মতামত

Destroy Israel....kill Netaneahu the killer of the world.

Abul Hayat
১৮ এপ্রিল ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১:৩৩ অপরাহ্ন

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status