ঢাকা, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৫ রজব ১৪৪৪ হিঃ

দেশ বিদেশ

চেক ডিজঅনার মামলা করতে পারবে না ব্যাংক

স্টাফ রিপোর্টার
২৪ নভেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার

ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণ আদায়ের জন্য কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে চেক ডিজঅনারের মামলা করতে পারবে না। একইসঙ্গে বর্তমানে বিচারিক আদালতে চলমান ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের করা সব চেক ডিজঅনার মামলার কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তবে ঋণ আদায়ের জন্য শুধু ২০০৩ সালের অর্থঋণ আইনে অর্থঋণ আদালতে মামলা করা যাবে। গতকাল ঋণ আদায়ে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্র্যাক ব্যাংকের চেক ডিজঅনার মামলা বাতিল করে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। রায়ে আদালত বলেন, ব্যাংক ঋণের বিপরীতে যে চেক নেয়া হচ্ছে, সেটা জামানত। বিনিময়যোগ্য দলিল নয়। জামানত হিসেবে রাখা সেই চেক দিয়ে চেক ডিজঅনার মামলা করা যাবে না। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর আপিলের রায়ে এমন নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট। আদালতে মোহাম্মদ আলীর পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আব্দুল্লাহ আল বাকী। তাকে সহযোগিতা করেন ওয়াহিদা আফরোজ চৌধুরী, আইনজীবী কায়েদে আজম ইকবাল, শাহীনুর রহমান ও আছাদুজ্জামান। 

আদালত থেকে বেরিয়ে আইনজীবী আব্দুল্লাহ আল বাকী বলেন, এ রায়ের ফলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণের বিপরীতে চেক ডিজঅনারের মামলা করতে পারবে না।

বিজ্ঞাপন
তবে অর্থঋণ আদালতে এ সংক্রান্ত মামলা করতে পারবেন। দেশে প্রায় দশ লাখের মতো চেকের মামলা আছে। সবগুলো মামলা স্থগিত হয়ে গেল। মোহাম্মদ আলী ২০১১ সালের ২৯শে সেপ্টেম্বর ব্র্যাক ব্যাংক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর শাখা থেকে চার লাখ টাকা ঋণ নেন। ঋণ পরিশোধ না করায় ২০১৫ সালের ২৭শে জুলাই তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। মামলায় তাকে ছয় মাসের সাজা ও দুই লাখ ৯৫ হাজার ৩০৫ টাকা জরিমানা করা হয়। এই রায়ের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের ৮ই অক্টোবর হাইকোর্টে আপিল করেন মোহাম্মদ আলী। শুনানি শেষে বুধবার আদালত এই রায় ঘোষণা করেন। এদিকে, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ঋণের বিপরীতে গ্রহণ করা চেকের বিপরীতে মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবে ব্র্যাক ব্যাংক। রায় ঘোষণার পর এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান ব্র্যাক ব্যাংকের আইনজীবী সাইফুজ্জামান। এই আইনজীবী বলেন, হাইকোর্টের এই রায়ে দেশের সবধরনের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এজন্য আমরা সিএমপি (ক্রিমিনাল মিসসেলনিয়াস আপিল) করবো।   রায়ের লিখিত কপি বের হওয়ার আগে সিএমপি করতে হয়।

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status