ঢাকা, ৪ অক্টোবর ২০২২, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

বিশ্বজমিন

সামান্য কারণে গরীব অটো চালককে ১৭ চড়! ভিডিও ভাইরালের পর হেনস্থাকারী নারী গ্রেপ্তার

মানবজমিন ডেস্ক

(১ মাস আগে) ১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ১২:৩১ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪০ অপরাহ্ন

৯০ সেকেন্ডে ১৭টি চড়! সামান্য কারণেই এক অটো চালককে এভাবেই মারেন এক নারী। ঘটনা ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের নয়ডার। জানা গেছে, ওই নারীর গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা লাগে অটোরিকশাটির। আর এই সামান্য বিষয় নিয়েই তিনি তেড়েমেড়ে বেড়িয়ে আসেন গাড়ি থেকে। এরপর চড়াও হন অটো চালকের উপরে। একের পর এক চড় মারতে থাকেন তাকে। তিনি এমনকি কথা বলারও সুযোগ পাচ্ছিলেন না। শুধু মারধরই করেননি ওই নারী, তিনি ওই অটো চালকের পকেট থেকে সব টাকাও ছিনিয়ে নিয়েছেন। তবে গরীব অটো চালকের উপর এমন আচরণ নিয়ে এরইমধ্যে ফুঁসে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। টুইটার ও ফেসবুকে ওই নারীর এমন নির্মম আচরণের নিন্দা জানাচ্ছেন ব্যবহারকারীরা।

বিজ্ঞাপন
সর্বশেষ ওই নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, নয়ডার একটি বাজারের কাছ দিয়ে গাড়়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন ওই নারী। সেই সময় অটোর সঙ্গে ধাক্কা লাগে ওই গাড়ির। এরপরই গাড়ি থেকে নেমে আসেন ওই নারী। একেবারে রণংদেহি মূর্তি। একের পর এক থাপ্পড়। কলার ধরে ওই মহিলা ঝাঁপিয়ে পড়েন ওই গরীব চালকের উপর। ওই ব্যক্তি ক্ষমা চাওয়ারও চেষ্টা করেন। কিন্তু কে শুনছে সেসব কথা। একের পর এক থাপ্পড়।
পুলিশ জানিয়েছে, একেবারেই সামান্য ধাক্কা লেগেছিল। কোনও গাড়িরই তেমন ক্ষতি হয়নি। কিন্তু তারপরেও অযৌক্তিকভাবে ওই চালকের উপর চড়াও হন ওই নারী। পুলিশ ইতিমধ্যেই ওই হেনস্থাকারী নারীকে গ্রেপ্তার করেছে। তবে সূত্রের খবর শুধু মারধর করেই ক্ষান্ত হননি ওই মহিলা। ওই চালকের পকেট থেকে টাকাও তুলে নেন তিনি। গালিগালাজও করেন যা ইচ্ছা তাই বলে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলেন, ওই অটো চালক যদি একটা চড়েরও জবাব দিতো তাহলে উল্টো তাকেই জেলে যেতে হতো। অনেকেই পুরুষের জন্য আইনের কঠিন রূপটির কথা তুলে আনেন কমেন্টে।
 

বিশ্বজমিন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

বিশ্বজমিন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং স্কাইব্রীজ প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, ৭/এ/১ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status