ঢাকা, ১৫ জুলাই ২০২৪, সোমবার, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ মহরম ১৪৪৬ হিঃ

অর্থ-বাণিজ্য

প্রস্তাবিত বাজেটে ইলেকট্রিক গাড়িতে শুল্ক সুবিধা চান উদ্যোক্তারা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

(১ মাস আগে) ১৩ জুন ২০২৪, বৃহস্পতিবার, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন

mzamin

আসন্ন ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ইলেকট্রিক গাড়ি, লিথিয়াম ব্যাটারি ও চার্জিং স্টেশনকে প্রাধান্য দেয়া হয়নি উল্লেখ করে এ খাতের উন্নয়নে বাজেটে শুল্ক ছাড়, নিবন্ধনের ফি কমানো ও প্রণোদনার দাবি জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ অটোমোবাইল অ্যাসেম্বলার্স অ্যান্ড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএএএমএ) এবং বাংলাদেশ ইলেকট্রিক মোবিলিটি অ্যাসোসিয়েশনের (বিইএমএ) উদ্যোগে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি উত্থাপন করা হয়।

বিএএএমএর সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান, আকিজ মোটরসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আমিন উদ্দীন, ইফাদ অটোর নির্বাহী পরিচালক বকশী আবির এবং গ্রিন টাইগারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে হাবিবা তিন্নি।

আবদুল মাতলুব আহমেদ বলেন, '২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন। বর্তমান অর্থনীতি পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রস্তাবিত বাজেট কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। এবারের বাজেট প্রতিপাদ্য বিষয় টেকসই উন্নয়নের পরিক্রমায় স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রা। স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমাণে অন্যতম উপাদান হলো স্মার্ট পরিবহণ ব্যবস্থা। স্মার্ট পরিবহণ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে ইলেকট্রিক গাড়ির ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই আসন্ন বাজেটে ইলেকট্রিক গাড়ি আমদানির ওপর সম্পূরক শুল্ক মওকুফসহ সর্বনিম্ন শুল্ক নির্ধারণের প্রস্তাব করছি।'

তিনি আরও বলেন, 'মাল্টি এক্সেল যানবাহনের প্রচলন এবং স্বীকৃত কারখানার মধ্যে দেশে বাস, ট্রাক, মিনিবাস, পিকআপ প্রস্তুত করে সড়ক দুর্ঘটনা এবং সড়ক-সেতু রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় হ্রাস করা সম্ভব। চলতি অর্থবছরের বাজেটে প্রায় সাড়ে নয় হাজার কোটি টাকা সড়ক রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বরাদ্দ ছিল। অথচ মাল্টি এক্সেল যানবাহনের জন্য কয়েকশ কোটি টাকা ছাড় দিয়ে হাজার কোটি টাকা রক্ষণাবেক্ষণ খরচ কমে যাবে।'

রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান বলেন, 'বাজেটে ইলেকট্রিক গাড়ির ওপর দিকনির্দেশনা ও প্রণোদনা থাকবে বলে আশা করেছিলাম। তাই ইলেকট্রিক গাড়িতে বিনিয়োগের শর্তে অন্তত আগামী দুই বছরের জন্য শুল্ক রেয়াত, রেজিস্ট্রেশন খরচ কমানো ও নগদ প্রণোদনা দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি। যেটি পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে করা হয়েছে।'

আকিজ মটরসের সিইও শেখ আমিন উদ্দিন বলেন, 'ঢাকা এখন বিশ্বের দূষিত শহরগুলোর একটি।

বিজ্ঞাপন
তাই জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে ইলেকট্রিক গাড়ি আমদানি ও উৎপাদনে প্রণোদনা দেয়া উচিত। তাহলে উদ্যোক্তারা পরিবেশবান্ধব এসব গাড়ি আমদানি ও পর্যায়ক্রমে উৎপাদন করার জন্য এগিয়ে আসবে।'

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এবারের বাজেট প্রতিপাদ্য বিষয় ‘টেকসই উন্নয়নের পরিক্রমায় স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রা’। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অন্যতম উপাদান হল স্মার্ট পরিবহন ব্যবস্থা। স্মার্ট পরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে ইলেকট্রিক ভেহিকেলের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের আশা ছিল স্মার্ট পরিবহন ব্যবস্থার অন্যতম উপাদান ইলেকট্রিক ভেহিকেল শিল্প বিকাশে প্রয়োজনীয় সহায়তামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে, কিন্তু প্রস্তাবিত বাজেটে যা প্রতিফলিত হয় নি। যা এই শিল্পের প্রসারকে এবং মুজিব ক্লাইমেট প্রোসপারেটি প্ল্যান ২০৩০ এ গৃহীত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে না। এ ছাড়া বিশ্বব্যাপী ইতিমধ্যে চলমান ইলেকট্রিক ভেহিকেল উৎপাদন, বিপণন, বিক্রয় ও সরবরাহ ব্যবস্থার সাথে তাল মিলিয়ে চলার মাধ্যমে বৈশ্বিক বাজার ও সরবরাহ ব্যবস্থার সাথে সংযুক্ত হওয়ার ব্যাপক সম্ভাবনাকেও বাঁধাগ্রস্ত করবে।

বক্তারা আরও বলেন, আসন্ন ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটে ইলেকট্রিক ভেহিকেল শিল্প উন্নয়নে বৎসরভিত্তিক পরিকল্পনা গ্রহন করে বিনিয়োগের শর্তসাপেক্ষে আগামী দুই বছর সিবিউ অবস্থায় ইলেকট্রিক গাড়ি আমদানির ওপর সম্পূরক শুল্ক মওকুফ করন সহ সর্বনিম্ন কাষ্টমস ডিউটি নির্ধারণ এবং পরবর্তী ১০ বছর ইঞ্জিন চালিত গাড়ির ন্যায় ইলেকট্রিক গাড়ির প্রোগ্রেসিভ ম্যানুফ্যাকচারিং এর ওপর ভিত্তি করে কর কাঠামো নির্ধারণ করার প্রস্তাব করছি এবং নতুন ইলেকট্রিক ভেহিকেল রেজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে অ্যাডভান্স ইনকাম ট্যাক্স মওকুফ সহ প্রতিবছর গাড়ির ফিটনেস ও ট্যাক্স টোকেন প্রদানের ক্ষেত্রে অ্যাডভান্স ইনকাম ট্যাক্স মওকুফের প্রস্তাব করছি। এ ছাড়া ইলেকট্রিক ভেহিকেলে ব্যবহৃত লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ও চার্জিং স্টেশন স্থাপনে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতির ওপর সর্বনিম্ন হারে আমদানি শুল্ক নির্ধারণের প্রস্তাব করছি। ইলেকট্রিক মোটর শিল্প বিকাশে এই শিল্পে ব্যবহৃত উপকরণ আমদানিতে রেয়াতি সুবিধা প্রদান করায় আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

অর্থ-বাণিজ্য সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status