ঢাকা, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৪ শাওয়াল ১৪৪৫ হিঃ

দেশ বিদেশ

ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত বিশপ স্যান্ডার্স, গ্রেপ্তার

মানবজমিন ডেস্ক
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, শুক্রবার

ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার বিশপ ক্রিস্টোফার স্যান্ডার্সকে। এ ছাড়া ধারাবাহিক যৌন অপরাধেও অভিযুক্ত হয়েছেন তিনি। বলা হয়েছে, তার এসব যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে শিশুরাও। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এতে বলা হয়, অভিযুক্ত ৭৪ বছর বয়সী এই বিশপকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ব্রুমি থেকে। ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ান পুলিশ এবং পোপ ফ্রাঁসিসের নির্দেশের পর সমান্তরালভাবে এ বিষয়ে তদন্ত করে। তবে অভিযোগ ওঠার পর তা অস্বীকার করেছিলেন বিশপ স্যান্ডার্স। এদিন তার জামিন আবেদন করা হলে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে উপস্থাপন করার কথা তাকে। এই ধরনের অভিযোগে অভিযুক্ত সবচেয়ে সিনিয়র ক্যাথলিক ধর্মীয় নেতাদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

বিজ্ঞাপন
 তার বিরুদ্ধে দুটি ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। ১৪টি বেআইনি এবং অন্যায় অবমাননার অভিযোগ আনা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষীয় একজন অভিভাবক হয়ে তিনি শিশুদের সঙ্গে যে অশালীন আচরণ করেছেন তার তিনটি অভিযোগ তোলা হয়েছে। ২০০৮ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ব্রমি, কুনুনুরা এবং কালুমবুরু আদিবাসী সম্প্রদায়ে এসব ঘটনা ঘটান তিনি। এর আগে প্রয়াত কার্ডিনাল জর্জ পেল’কে এমন অভিযোগে জেল দেয়া হয়। পরে তাকে খালাস দেয়া হয়। তিনি ছাড়াও বিশপ স্যান্ডার্স অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সিনিয়র কার্ডিনাল কর্মকর্তাদের মধ্যে শিশুদের বিরুদ্ধে যৌন অপরাধে অভিযুক্ত হলেন। 

অস্ট্রেলিয়ান ক্যাথলিক বিশপস কনফারেন্স বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পুলিশকে তদন্তে সহায়তার। বলেছে, বিশপ স্যান্ডার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ অত্যন্ত গুরুতর, গভীর হতাশাজনক, বিশেষ করে যারা এসব অভিযোগ করেছেন তাদের জন্য। পার্থের আর্চবিশপ টিমোথি কস্টেলো বলেন, এসব অভিযোগ পূর্ণাঙ্গভাবে তদন্ত করা উচিত এবং তা অবশ্যই প্রয়োজনীয় ও যথার্থ। 

১৯৭৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার উত্তর-পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত প্রত্যন্ত কিমবারলি অঞ্চলে ক্যারিয়ারের বেশির ভাগ সময় ব্যয় করেন বিশপ স্যান্ডার্স। ১৯৯৬ সালে তাকে ব্রুমির বিশপ নিয়োগ করা হয়। এই এলাকাটির আয়তন প্রায় ৭ লাখ ৭০ হাজার বর্গকিলোমিটার। আকারে তা প্রায় তুরস্কের সমান। এর মধ্যেই আছে দেশটির সবচেয়ে প্রত্যন্ত এলাকাগুলো। সামাজিক হিসেবে তিনি সুপরিচিত ছিলেন। তাই পরামর্শ বিষয়ক কাজ করতেন। ক্যাম্পিং বা মাছ ধরার সময় অল্প বয়সী ছেলেদের সঙ্গে নিয়ে যেতেন। স্থানীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে তিনি ছিলেন একজন শক্তিধর ব্যক্তি। 

কিন্তু ওই এলাকার কিছু আদিবাসী সম্প্রদায়ের পুরুষ যৌন নির্যাতনের অভিযোগ তোলার পর তার বিরুদ্ধে দ্বৈত তদন্ত শুরু হয়। প্রথমে ২০২০ সালে এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসে। কিন্তু পুলিশ প্রথমে যে তদন্ত করে তা কোনো অভিযোগ গঠন ছাড়াই বন্ধ করে দেয়া হয়। ২০২০ সালে ব্রমির বিশপ পদ তিনি স্বেচ্ছায় ত্যাগ করেন। তবে এমিরেটাস বিশপ হিসেবে থেকেই যান। কিন্তু পোপ ফ্রাঁসিস তদন্তের একটি ঐতিহাসিক নির্দেশ দেন। গত বছর এ বিষয়ে ২০০ পৃষ্ঠার রিপোর্ট ফাঁস হয়ে পড়ে মিডিয়ায়। ফলে নতুন করে তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

দেশ বিদেশ থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

   

দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত

মোবাইল হ্যান্ডসেট/ ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ এখন সংকটে

মৌলভীবাজারে জাতীয় পার্টির সম্মেলন সম্পন্ন / ‘আমরা আওয়ামী লীগে নেই, বিএনপিতেও নেই

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2024
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status