ঢাকা, ১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০ মহরম ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

মাওয়া ঘাটে সুনসান নীরবতা

নূরে আলম জিকু, মাওয়া থেকে

(১ মাস আগে) ২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৩ অপরাহ্ন

সকাল ১০টা। অন্যান্য দিনের মতো মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ঘাটে আজ আর হাঁকডাক নেই। নেই কোন কোলাহল। কিংবা ব্যস্ততা। নেই কোন যাত্রী। নদীর পাড়েই সারি সারি কিছু সংখ্যক বাস পার্কিং করে রাখা। সেখানে নেই চালক ও তাদের সহযোগীরা। ঘাটেই বাঁধা রয়েছে পন্টুন। নদীর তীরে স্পিডবোট, ফেরি, লঞ্চ নোঙর করে রাখা। এসবে পারাপারে নেই কোন যাত্রী কিংবা যান।

বিজ্ঞাপন
নেই হকারদের উৎপাতও। 

সেখানে খুলেছে খাবারের দোকান। তবে ক্রেতা নেই। অধিকাংশ দোকানের স্টাফরা দোকানের ভেতরে বাইরে বসে গল্প করছেন। তাদের মুখে চিন্তার ছাপ। অনেকে কর্ম হারানোর ভয়ে আছেন। অথচ ২ দিন আগেও মাওয়া ফেরিঘাটে দিনরাত ছিল কোলাহলপূর্ণ। নামী দামি বাহারি খাবারের জন্য রেস্টুরেন্টগুলোতে ভিড় লেগে থাকতো।

 

 

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, পদ্ম সেতু উদ্বোধনে একদিকে যেমন খুশি, তেমনি একই কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তারা। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

ফিরোজ নামের এক স্পিডবোট চালক বলেন, এই ঘাটে জড়িয়ে আছে নানা স্মৃতি। বিগত ১৫ বছরের বেশি সময় এই ঘাটে আছি। স্পিডবোটের উপর নির্ভর করেই সংসার চালাতাম। এখন কর্মহীন হয়ে যাবো। এখন আর কোন যাত্রী নেই আমাদের। সামনের দিনগুলো কিভাবে কাটাবো, সেই চিন্তা করছি। এই ঘাটে আমার মতো হাজার হাজার মানুষ বেকার হয়ে যাবে। 

 

 

রুটি কলা বিক্রেতা মো. আল আমিন জানান, আগের দিন নাই রাত নাই সব সময় এখানে কলা, রুটি বিক্রি করতাম। আজ দুদিন হলো কোন বিক্রি নেই। মানুষ নেই। মনে হচ্ছে ঘাট এলাকা অন্ধকার হয়ে গেছে। স্থায়ী দোকানগুলোও বন্ধ। আগে যারা ঘাট হয়ে যেত, তারা এখন পদ্মা সেতুতে যায়।

এদিকে গতকাল শনিবার সকালে উদ্বোধন হয় স্বপ্নের পদ্মা সেতুর। দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যেসব মানুষ মাওয়া ফেরিঘাট রুটে যাতায়াত করতো, তারা আজ রোববার সকাল থেকেই বিভিন্ন যানবাহনে করে পদ্মা সেতু পাড়ি দিচ্ছেন। যার কারণে পদ্মার পাড়ের মাওয়া ঘাটে আগের মতো হাঁকডাক নেই।

 

পাঠকের মতামত

স্পিডবোটগুলো যাত্রীদের সাথে খুব খারাপ আচরণ করতো। ইচ্ছেমতো ভাড়া আদায় করত। ক্ষমতার দাপটে যাত্রীদের হয়রানি করতে। এখন যাত্রীও নেই, ক্ষমতাও নেই, ব্যবসাও নেই। তাই আমি বলতে চাই ক্ষমতার দাপট চিরস্থায়ী নয়। আজ রাজা কাল ফকির।

Azad
৩ জুলাই ২০২২, রবিবার, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

I never believe in any arrogance or wishing for bad things for others but such type of people at ferry point area its unbelieve and unaccepted.also their attitude is totally rubbish even they don't know to honor to the people. for this now they are getting their punishment and will suffer long time,

Nazul
৩ জুলাই ২০২২, রবিবার, ২:২৮ পূর্বাহ্ন

পদ্মা ব্রিজ সংলগ্ন একটি EPZ হতে পারে

শাহ আহমাদুল হাসান
২৯ জুন ২০২২, বুধবার, ৯:৩৩ অপরাহ্ন

Entrepreneurs can build resort areas in Mawa and Banglabazar for tourists along with river cruise.

Nam Nai
২৮ জুন ২০২২, মঙ্গলবার, ৫:২৮ অপরাহ্ন

স্পীডবোটে মাথাপিছু কত নিতেন রে ভাই!!! দুর্মুখেরা বলে থাকে স্পীডবোটে "ভাড়া" নেওয়া হতোনা, "পকেট কাটা" হতো

urmi
২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ৩:১৭ অপরাহ্ন

একটি দেশের উন্নয়ন নির্ভর করে তার উন্নত অবকাঠামোর উপর । শুধু বড় বড় বিল্ডিঙগুলো দেশের উন্নতিতে যথাযত অবদান না রাখতে পারলেও উন্নত যোগাযোগ বাবস্থার অবদান অপরিসীম । তাই পদ্মা সেতুর অবদান আমাদের দেশের অর্থনীতিতে যে কত বড় ভূমিকা রাখতে চলেছে সেটা দেখুন আজকের থেকেই দৃশ্যমান হয়েছে । আমারা যেমন সময়কে বাঁচিয়ে আরও বেশী কাজ করতে পারি তেমনি অপচয়কে রোধ করতে পারি । প্রতিদিন যদি সেতু পারাপারে আমরা ৫ ঘণ্টা বাঁচাতে পারি তবে হিসাব করে দেখুন যে প্রতি দিন ৫০ হাজার মানুষ সেতু পারাপারে মোট কত ঘণ্টা বাঁচাতে পারে - ২ লাখ ৫০ হাজার ঘণ্টা প্রতিদিন ।

আজাদ
২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ৪:২৪ পূর্বাহ্ন

সরকারের উচিৎ এদের নতুন কোন কাজের জন্য ট্রেনিং দিয়ে কর্ম যোগার করে দেওয়া। এনজিও গুলিকে উৎসাহ দেওয়া উচিৎ।

ওবাইদুল
২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

এরা কম সময়ে ড্রাইভিং শিখে গাড়ি চালাতে পারে,অথবা যোগ্যতা অনুযায়ী অন্য কাজ করুক।আগে এখানে অনেক ধান্দা ছিল।

samsulislam
২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ৩:৪০ পূর্বাহ্ন

Those who lost livelihood would be difficult to regain it. Many will simply disappeared from our sight and we shall never know what happened to their fate.

Quamrul
২৬ জুন ২০২২, রবিবার, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ন

এরা কাজ হারিয়ে নতুন ভাবে উন্নত কাজ করে উন্নত জীবন পাবে, তাতে সন্দেহ নাই। গতবাধা নিম্ন আয়ের পেশা এতদিন তাদের পঙ্গু করে রেখেছিল। এই পরিবর্তন জীবনের ভাগ্য পরিবর্তনের সূচক।

Kazi
২৫ জুন ২০২২, শনিবার, ১১:২২ অপরাহ্ন

পরিবর্তন সমাজের উন্নয়নের মূল চালিকা শক্তি ৷ আজ যারা কর্মহীন বেকার হয়েছেন, আগামীতে তারাই দেখবেন পেশা পরিবর্তন করে পাল্টে গেছে জীবনের গতি ধারা ৷ কোন অবস্থাতে নিরাশ হতে নাই ৷ স্বপ্নের পদ্মা সেতু পাল্টে দেবে পুরো দেশটাকে, পুরো জাতীকে ৷

Titu Meer
২৫ জুন ২০২২, শনিবার, ১০:০৩ অপরাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status