ঢাকা, ২ জুলাই ২০২২, শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ্জ ১৪৪৩ হিঃ

শেষের পাতা

নৌবাহিনীর বোটে মা উদ্ধার

জন্মের পর সন্তানের নাম রাখা হলো দুর্জয়

জীবন আহমেদ, সুনামগঞ্জ থেকে
২৩ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার

চারদিকে বন্যার অথৈ পানি আর পানি। নেই যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ পর্যাপ্ত খাবার। এরই মাঝে প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছেন এক মা। খবর পেয়ে ছুটে যান নৌবাহিনীর সদস্যরা। বাড়িয়ে দেন সাহায্যের হাত। এরপর সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থেকে নৌকায় করে নিয়ে আসেন সুনামগঞ্জে। সেবা পান প্রসূতি মা। জন্ম দেন ছেলে সন্তানের। নৌবাহিনীর এই অপার সহযোগিতার কারণে বাহিনীর মোটোর সঙ্গে মিল রেখে নাম রাখা হয় দুর্জয়।

ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার। নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কমান্ডার শফি বলেন, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্রতিনিধি হিসেবে আমরা সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে এসেছি।

বিজ্ঞাপন
মঙ্গলবার আমরা চারটি গ্রামে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণে যাই। এ সময় ইউএনও’র মাধ্যমে জানতে পারি, একজন প্রসূতি মা প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছেন। আমরা তিনটি নৌকা নিয়ে গিয়েছিলাম। একটি নৌকা নিয়ে আমরা কয়েকজন চলে আসি, সঙ্গে নিয়েছি মেডিকেল টিম। এরপর আমরা গিয়ে দেখি প্রসূতি মা যথেষ্ট নাজুক অবস্থায় আছেন এবং কাতরাচ্ছেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আমরা হাইস্পিড বোটের মাধ্যমে জামালগঞ্জ থেকে সুনামগঞ্জে পৌঁছে দেই। এরপর তার চিকিৎসা সম্পন্ন হয়। তিনি জন্ম দেন ফুটফুটে সন্দুর একটি পুত্র সন্তান। নৌবাহিনীর যে সেøাগান- ‘শান্তিতে সংগ্রামে সমুদ্র দুর্জয়’। তার সঙ্গে মিল রেখে পুত্র সন্তানটির নাম রাখা হয় ‘দুর্জয়’।

তিনি বলেন, দুর্জয়ের মা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নৌকায় করে যান এবং দুর্জয়ের জন্মের পর নৌবাহিনীর বোটেই ফিরে আসেন। সেবা দিতে পেরে আমরা খুশি।
দুর্জয়ের মা শিউলি বেগম বলেন, আমার দুই মেয়ের পর এখন এক ছেলে জন্ম নিলো। আমার বাচ্চা হয়েছে নৌবাহিনীর সদস্যদের সহযোগিতায়। এখন আমি বেঁচে আছি। তারা না থাকলে বাঁচতে পারতাম কিনা জানি না। আমি চাই আমার সন্তান বড় হয়ে নৌবাহিনীতে কাজ করুক। আমার সন্তান যেমন তাদের কারণে বেঁচে আছে আমিও চাই আমার সন্তানের জন্য কেউ বেঁচে থাক। আমি চাই আমার ছেলে বড় হয়ে অন্যের জন্য কাজ করবে। আমি অনেক খুশি ও কৃতজ্ঞ।

একই ঘটনা ঘটেছে এই উপজেলার দক্ষিণ কামলাবাদ গ্রামে। গতকাল মঙ্গলবার নৌবাহিনীর সদস্যরা প্রসূতি মায়ের কথা জানতে পেরে ছুটে যান তার কাছে। প্রসূতি মায়ের নাম শিল্পি আক্তার। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাকে চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

 

 

শেষের পাতা থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

শেষের পাতা থেকে সর্বাধিক পঠিত

পশ্চিমা চাপ মোকাবিলায় ভারতের সাহায্য/ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, দিল্লি ইতিবাচক

সাবেক স্ত্রী’র সঙ্গে পুলিশের পরকীয়ার জের/ ব্যবসায়ীকে থানায় এনে ক্রসফায়ারের হুমকি, ৪ পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com