ঢাকা, ২ জুলাই ২০২২, শনিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২ জিলহজ্জ ১৪৪৩ হিঃ

রকমারি

মদের নেশায় আসক্ত মোরগ, প্রতি মাসে লাগে দুই হাজার টাকার মদ

মানবজমিন ডিজিটাল

(৩ সপ্তাহ আগে) ৯ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ১:৫৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ৪:১৫ অপরাহ্ন

মোরগরা সাধারণত দানাপানি খেয়ে থাকে। সেটাই স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যে গেলে এক অদ্ভুত মোরগের সন্ধান পাবেন আপনি। সেই মোরগ আবার দানাপানিতে নয়, মদে আসক্ত। মোরগ যে মদ খেতে পারে, সেকথা চিন্তা করাই তো এক কঠিন বিষয়। কিন্ত এমন আজব কাণ্ডই ঘটেছে মহারাষ্ট্রের একটি গ্রামে। মোরগটি নাকি মদ না মিললে কোনও কিছুই মুখে তুলছে না। এর জেরে পোষ্যটির মালিক বেজায় বিপাকে পড়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ভান্ডার জেলার পিপারি গ্রামে। জানা গেছে, মোরগটির মালিকের নাম ভাউ কাতোরে।

বিজ্ঞাপন
পিপারিতে তার একটি মুরগির খামার রয়েছে। ওই খামারের একটি মোরগ নিয়েই মালিক এখন বেজায় সমস্যায় পড়েছেন। তিনি বলছেন, 'আমি জীবনে কখনও মদ স্পর্শ করিনি। 

এখন আমার পোষা মোরগকে মদ সরবরাহ করতে মাসে ২০০০ টাকা দিতে হয়।'' প্রশ্ন হল, মোরগ মদের নেশায় আসক্ত হল কিভাবে? জানা গেছে মোরগটি কোনও কারণে খাওয়া বন্ধ করে দেয়। সেই সময় গ্রামের একজন মোরগের মালিককে পরামর্শ দিয়েছিলেন যে খাবারের সঙ্গে একটু মহুয়া মিশিয়ে দিতে, মোরগ আবার খেতে শুরু করবে। সেইমত মুরগির খাবারে মহুয়া এবং সামান্য দেশীয় ওয়াইন মেশাতে শুরু করেন মোরগটির মালিকের নাম ভাউ কাতোরে। এমনকি দেশি মদ না মিললে বিদেশি মদও দেওয়া হত মোরগটিকে। 

এরপরেই শুরু হয় নতুন সমস্যা, খাবারের সাথে মদ খাওয়ার অভ্যাস করে ফেলে মোরগ। বিষয়টি এমন জায়গায় পৌঁছেছে যে মদের নেশায় আসক্ত মোরগটি এখন মদ ছাড়া কিছুই খাচ্ছে না। এদিকে মোরগের জন্য মদ সরবরাহ করতে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। এ অবস্থায় মোরগটির মালিক খুবই চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। কীভাবে তার পোষ্যটি অ্যালকোহল থেকে মুক্তি পাবেন তা বুঝতে পারছিলেন না তিনি। মদের নেশা ছাড়াতে সম্প্রতি একজন পশুচিকিত্সকের সাথে যোগাযোগ করেন পোষ্যটির মালিক। ডাক্তার বলেছেন, প্রাণীটিকে ভিটামিন ট্যাবলেট খাওয়াতে, যেহেতু এই ট্যাবলেটটির গন্ধ অনেকটা অ্যালকোহলের মতো। এখন দেখার ডাক্তারের দাওয়াইয়ে আদৌ কি মদ ছাড়তে পারবে মোরগটি?

সূত্র: pipanews.com

পাঠকের মতামত

This type of News degrading news papper standard.Manob Zamin should care about his dignities and pride.

Mustafa Zia Ahsan
৯ জুন ২০২২, বৃহস্পতিবার, ৩:২১ পূর্বাহ্ন

রকমারি থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

রকমারি থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com