ঢাকা, ২৭ জুন ২০২২, সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬ জিলক্বদ ১৪৪৩ হিঃ

অর্থ-বাণিজ্য

পুঁজিবাজারে সূচকের বড় পতন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

(১ মাস আগে) ১৬ মে ২০২২, সোমবার, ৫:৪৬ অপরাহ্ন

সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির কারণে তিনদিন লেনদেন বন্ধ থাকার পর সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস সোমবার বড় দরপতন হয়েছে দেশের পুঁজিবাজারে। এদিন বাজারে শেয়ার বিক্রির চাপে লেনদেন হওয়া প্রায় সব প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমেছে। অধিকাংশ শেয়ারের দাম কমায় দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ডিএসইতে সূচক কমেছে ১৩৪ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক কমেছে ৩৮৪ পয়েন্ট। এদিনের এই দরপতনে দুই মাসের আগের জায়গায় চলে এসেছে পুঁজিবাজার। অর্থাৎ ডিএসইর সূচক আবারও সাড়ে ৬ হাজার পয়েন্টের নিচে চলে এসেছে। এর আগে চলতি বছরের ৮ই মর্চ ডিএসইর প্রধান সূচক ছিল ৬ হাজার ৪৭৪ পয়েন্টে। এখন ১৩৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৪৩০ পয়েন্টে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা জানান, ডলার সংকট, শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি দেউলিয়া ঘোষণার পাশাপাশি প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার ধরা পড়ায় পুঁজিবাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। তিনি গ্রেপ্তার হওয়ার পর তার সঙ্গে পুঁজিবাজারে জড়িতরা ভয়-আতঙ্কে রয়েছেন। তাদের অনেকে শেয়ার বিক্রি করে দিচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন
তাতে বাজারে প্যানিক সেল বেড়েছে। আর এই ইস্যুগুলোকে কাজে লাগিয়ে কারসাজি চক্র কম দামে শেয়ার কিনছে। আর বিনিয়োগকারীরা অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছেন। এ ছাড়া বিশ্বজুড়ে অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে নিত্যপণের দাম ক্রমেই বেড়ে চলার মধ্যে পুঁজিবাজার নিয়ে উৎকণ্ঠা বেড়েই চলছে বিনিয়োগকারীদের।

ডিএসইর তথ্য মতে, সোমবার বাজারে ৩৮১টি প্রতিষ্ঠানের ২৮ কোটি ৯৪ লাখ ১৭ হাজার ১৪১টি শেয়ার ও ইউনিট কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে ২৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ৩৪৮টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে সাতটির।

অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ১৩৪.৫৩ পয়েন্ট কমে ৬ হাজার ৪৩০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে কমেছে ২১ পয়েন্ট এবং ডিএস-৩০ সূচক কমেছে ৪০ পয়েন্ট।

সোমবার ডিএসইতে ১ হাজার ২১ কোটি ৬১ লাখ ৪৭ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৮২৩ কোটি ৩৬ লাখ ১১ হাজার টাকার শেয়ার। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন বেড়েছে।

বাংলাদেশ স্টক ব্রোকার এসোসিয়েশন-ডিবিএর সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সাদেক বলেন, শ্রীলঙ্কার অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের পর নানা ধরনের গুজবে পুঁজিবাজার টালমাটাল ছিল। কিন্তু তাই বলে এত বড় ধস কেন, সোট আমরা বুঝতে পারছি না। কী কারণে আকষ্মিক এত বড় ধস হলো, সেটা আমরা সত্যিই কেউ বুঝতে পারছি না। মনে হচ্ছে সবাই বিক্রি করে বাজার থেকে চলে যাবে- এমন অবস্থা। তিনি বলেন, কেবল সাধারণ বিনিয়োগকারীরা নয়, যাদের সাপোর্ট দেয়ার কথা, তারাও বিক্রি করছে। 
এদিন সবচেয়ে বেশি দাম কমেছে ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স, তজিম উদ্দিন টেক্সটাইল, এসিআই ফরমুলেশন, আলহাজ টেক্সটাইল, জেমিনি সি ফুড, ইস্টার্ন হাউজিং এবং আইপিডিসি লিমিটেড।

এদিন সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে শাইনপুকুর সিরামিকের শেয়ার। এরপর যথাক্রমে লেনদেন হয় বেক্সিমকো, জেএমআই হসপিটাল, আরডি ফুড, ফুওয়াং সিরামিক, এরআরবিসি ব্যাংক, ওরিয়ন ফর্মা, সালভো ক্যামিক্যাল, এসিআই ফরমুলেশন এবং লফার্জহোলসিম লিমিটেড। 

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৮৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৮৬৪ পয়েন্টে। এ বাজারে ৩০৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ২৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ২৬৭টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১০টির। এতে ৪৩ কোটি ২৭ লাখ ৬০ হাজার ৪১২ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।
 

অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অর্থ-বাণিজ্য থেকে সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com