ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, শনিবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিঃ

অনলাইন

ট্রিপল মার্ডারের লোমহর্ষক বর্ণনা ঘাতক সাগরের জবানিতে

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

(২ মাস আগে) ৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৩:৪৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট: ১:৩৪ অপরাহ্ন

mzamin

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে মা ও ২ সন্তানকে হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার হয়েছে ট্রিপল মার্ডারের মূল আসামি নিহত রওশন আরার সৎ মামা। শনিবার বিকেলে বেলকুচি উপজেলার মধুপুর গ্রামের সুলতান আলীর স্ত্রী রওশন আরা বেগম (৪০) এবং দুই পুত্র জিহাদ (১০) ও মাহিম (৪) এর মরদেহ তালাবদ্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। ৩দিন আগে তাদের হত্যা করার কারণে লাশগুলো ফুলে দুর্গন্ধ বের হয়। ২রা অক্টোবর সকালে নিহত রওশন আরার ভাই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে বেলকুচি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতকে গ্রেপ্তার করতে মাঠে নামে পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা। মৃতদেহ উদ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই ট্রিপল মার্ডারের মূল আসামি নিহত রওশন আরার সৎ মামা আইয়ুব আলী সাগরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা।  

সোমবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ত্রিপল মার্ডারের বর্ণনা তুলে ধরেন পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মন্ডল। তিনি বলেন, বেলকুচিতে ট্রিপল মার্ডারের মূল আসামিকে আমরা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি। আসামি উল্লাপাড়া উপজেলার নন্দিগাতী গ্রামের মৃত মোকছেদ আলীর ছেলে আইয়ুব আলী সাগর।

বিজ্ঞাপন
সাগরকে গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন। সাগর পেশায় একজন তাঁত শ্রমিক। তার পেশার আয় দিয়ে সংসার নির্বাহ না হওয়ায় বিভিন্ন সময় ব্র্যাক, সাউথ বাংলা, মানবমুক্তি ও তাঁতী সমিতির এনজিও থেকে ক্ষুদ্র ঋণ নেয়। সংসারের খরচ মেটানো এবং এনজিওর কিস্তি এক সাথে চালানো কঠিন হয়ে পড়ে। খরচ ঋণগ্রস্ততার কারনে সে চরম হতাশাগ্রস্ত ছিলো। নিহত রওশন আরা সাগরের সৎ ভাগনি। প্রায়ই সে তার ভাগনির বাসায় যাতায়াত করতো। গত ২৬শে সেপ্টেম্বর সাগর রওশন আরার বাড়িতে যায় এবং ভাগনির কাছে টাকা হাওলাত চায়। কিন্তু কোন টাকা পায় না। পরে ঐদিন বাড়ীতে ফিরে কিস্তির টাকা যোগাড় করতে না পারায় তার ভাগনির বাসায় চুরি করার সিদ্ধান্ত নেয়। সেই জন্য ২৮শে সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় সাগর আবার তার ভাগনি রওশন আরার বাড়িতে যায়। রাতে সবার সঙ্গে খাবার খেয়ে একই ঘরে ঘুমিয়ে পরে। মাঝরাতে ভাগনির ঘরে চুরি করার উদ্দেশ্যে রওশন আরার আঁচল থেকে সিন্ধুকের চাবি খুলে নেয় এবং সিন্ধুক খুলে টাকা ও গহনা খুঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে রওশন আরা জেগে উঠলে সাগর পাশে থাকা পাথরের শিল দিয়ে রওশন আরার বুকে আঘাত করে গলা চিপে হত্যা নিশ্চিত করে। এরপর  সে ধারাবাহিকভাবে আবার সিন্ধুকে টাকা গহনা খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে রওশন আরার ছোট ছেলে মাহিন জেগে কান্না শুরু করলে সাগর তাকেও গলা চিপে হত্যা করে। সে আবার সিন্ধুকের কাছে যায়। এসময় বড় ছেলে জিহাদ জেগে উঠলে তাকেও গলা চিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। কিন্তু রওশন আরার ঘরে থাকা সিন্ধুকে কোন টাকা বা গহনা আর খুজে পায়নি সাগর। পরে ফজরের আযান হলে ঘর থেকে বের হয়ে বাইরে শিকলে তালা দিয়ে চলে যায়। 

গ্রেপ্তারকৃত আসামি সাগর নিজে সম্পৃক্ততাসহ ঘটনার বিষেয়ে লোমহর্ষক বর্ণনা ভিডিও আকারে প্রদর্শন করে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাগরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে পুলিশ সুপার জানান।  

পাঠকের মতামত

I went punished to him.

sadaik Md Iqball Hos
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৯:১৫ অপরাহ্ন

এই হত্যা কান্ডের জন্য ঘাতকের পাশাপাশি সুদের কারবারিরাও দোসি।

RABIUL ALAM Liton
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৯:০৪ অপরাহ্ন

তাকে আদালতে হাজির করার কি আছে? অপরাধ। স্বীকার করছে, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলিয়ে দেওয়া হলে অপরাধ প্রবণতা কমে যাবে।

Faiz Ahmed
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৬:০৫ পূর্বাহ্ন

কেনোজানি পুলিশের কোন তদন্তই এখন আর বিশ্বাস হয়না।

সত্য বালক
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৩:৫৭ পূর্বাহ্ন

সবাই আপনার (আইয়ুব আলী সাগর) সর্বোচ্চ লেভেলের শাস্তি কামনা করেবেন এটা খুবই স্বাভাবিক । কিন্তু ব্র্যাক, সাউথ বাংলা, মানবমুক্তি ও তাঁতী সমিতি এ এনজিও গুলোর কি হবে? কত মানুষকে কত ভাবে এই ঋণদাতা সংস্থাগুলি সর্বশ্রান্ত করেছে তার কোন হিসাব নেই।

মোহাম্মদ মাহবুব আলম
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

আবার "ঋণ" ও " কিস্তি " চলে এল। হয়ত পাওয়া যাবে এনজিওগুলো সাগরের কাছে তার স্বাক্ষর করা ফাঁকা চেকও নিয়ে রেখেছে যা দিয়ে তারা মামলার ভয়ও দেখিয়েছে।

আনিস উল হক
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৩:০৮ পূর্বাহ্ন

এ কেমন মানুষ!! তার মতো ব্যাক্তিকে নিরুদ্দেশ বিশ্বাস করাই ভুল ছিল। সবারই সচেতন থাকা জরুরি নিজের জান মালের রক্ষার জন্য। দ্রুত ফাঁসি হোক দাবি সবার।

Rubel Chowdhury
৩ অক্টোবর ২০২২, সোমবার, ৩:০০ পূর্বাহ্ন

অনলাইন থেকে আরও পড়ুন

আরও খবর

অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

Logo
প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী
জেনিথ টাওয়ার, ৪০ কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫ এবং মিডিয়া প্রিন্টার্স ১৪৯-১৫০ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ থেকে
মাহবুবা চৌধুরী কর্তৃক সম্পাদিত ও প্রকাশিত।
ফোন : ৫৫০-১১৭১০-৩ ফ্যাক্স : ৮১২৮৩১৩, ৫৫০১৩৪০০
ই-মেইল: [email protected]
Copyright © 2022
All rights reserved www.mzamin.com
DMCA.com Protection Status